18 Dec 2017 : Sylhet, Bangladesh :

সিলেট 6 December 2017 ব্যক্তিত্ব

সিলেটের বিশিষ্ট চিকিৎসক ডা. সুদর্শন বণিক আর নেই

সিলেটের বিশিষ্ট চিকিৎসক ডা. সুদর্শন 
বণিক আর নেই
     

স্টাফ রির্পোটার: সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সাবেক সহকারী অধ্যাপক এবং নগরীর দাঁড়িয়াপাড়ার বাসিন্দা বিশিষ্ট চিকিৎসক ও সমাজসেবী ডা. সুদর্শণ বণিক আর নেই। বুধবার সকাল ৮টায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি পরলোক গমন করেন। তার বয়স হয়েছিলো ৬৮ বছর। তিনি দীর্ঘদিন ধরে দুরারোগ্য ক্যান্সারে ভোগছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি ১ ছেলে এবং ১ মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। পরে দুপুর ২টায় সিলেট নগরীর চালিবন্দার মহাশ্মশানে তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়। ডা. সুদর্শন বণিকের ছেলে শাওন বণিক একজন প্রকৌশলী এবং ছোট ভাই সিভিল সার্জন সিলেট অফিসের সিনিয়র হেলথ এডুকেশন অফিসার সুজন বণিক এবং বিশিষ্ট ছড়াকার ও ব্যাংকার সুমন বণিক। তিনি স্বর্গীয় সুরেশ চন্দ্র বণিক এবং নমী বালা বণিকের বড় ছেলে ছিলেন।
ডাক্তার সুদর্শন বর্ণিকের মৃত্যু খবর পেয়ে ছুটে আসেন সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ডাক্তার একে মাহবুবুল হক, ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাজিক মিয়া সহ তার দীর্ঘদিনে সহকর্মি এবং শুভাকাঙ্খীরা। এসময় শ্রী শ্রী জগন্নাথ জিউড় আখড়া কমিটি এবং চৈতালী সংঘের পক্ষ থেকে তার মরদেহে পুস্পস্তবক অর্পন করে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয়।
এদিকে তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন, সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়দা জেবুন্নেছা হক, সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. হিমাংশু লাল রায়, সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক ও বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেটের আব্দুর রহমান জামিল, সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. দেবব্রত রায়, সহকারী পরিচালক ডা. আলাউদ্দিন আহমদ ও ডা. আজিজ আহমদ মালিক, অধ্যাপক ডা. এম এ আহবাব, অধ্যাপক ডা.ওসুল আহমদ চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. শিশির চক্রবর্তী, অধ্যাপক ডা. মৃনাল কান্তি দাশ, অধ্যাপক ডা. আবদুলøাহ আল মামুন, অধ্যাপক ডা. মতিউর রহমান, ডা. জ্যোতি কুসুম চৌধুরী, বিশিষ্ট শিক্ষাবীদ অধ্যাপক বিজিত কুমার দে, ঢাকা ব্যাংকের আরএম মো. আজাদ উদ্দিন, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্যপরিষদ সিলেটের এডভোকেট প্রদীপ ভট্টাচার্য, মহালয়া উদযাপন পরিষদ শ্রীহট্ট, সিলেট বিবেক প্রমুখ।
কর্মজীবনে ডাক্তার সুদর্শন বণিক সিলেট ওসমানী হাসপাতালের বাইরে পার্কভিউ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারি পরিচলক, মুজিব জাহান রেক্রিসেন্ট সিলেট, সীমান্তিক সিলেট, বাংলাদেশ রেলওয়ে চট্টগ্রাম ও সিলেট এবং বাংলাদেশ পুলিশ হাসপাতাল সিলেটে দÿতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন।
একজন সমাজসেবী হিসেবেও তিনি পরিচিত ছিলেন। তিনি জগন্নাথ জিউড় আখড়া কালীঘাট এর সম্পাদক, পাহাড়তলী কালীবাড়ী চট্টগ্রাম এবং সাবেক সহ সভাপতি, সিলট পুলিশ লাইন কালীবাড়ীর পৃষ্টপোষক, বন্দরবাজার বালক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন।
সিলেট নগরীতে রোগী অনুপাতে অল্প ভিজিট, অমায়িক ব্যবহার আর চিকিৎসা সেবার জন্য ডাক্তার সুদর্শণ বণিক বেশ জনপ্রিয় একজন চিকিৎসক ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন হাসপাতালের বাইরে নগরীর জলøারপারে তার ব্যক্তিগত চেম্বারে রোগী দেখে আসছিলেন। অসুস্থ হবার পর কয়েক বছর ধরে আর সেটা নিয়মিত করতে পারেননি।



Free Online Accounts Software