গোলাপগঞ্জের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব হাজী আব্দুশ শহিদ তুতা মিয়ার ইন্তেকাল: জানাযা রোববার
   22 Oct 2017 : Sylhet, Bangladesh :

সিলেট 12 August 2017 ব্যক্তিত্ব

গোলাপগঞ্জের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব হাজী আব্দুশ শহিদ তুতা মিয়ার ইন্তেকাল: জানাযা রোববার

     

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক:
গোলাপগঞ্জ উপজেলার নিশ্চিন্ত গ্রামের সমাজ হিতৈষী হাজী আব্দুশ শহিদ মহিলা আলিম মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা হাজী আব্দুশ শহিদ তোতা ইন্তেকাল করেছেন। শুক্রবার(১১ আগস্ট) রাত ৮টায় সিলেট উপশহরস্থ নিজ বাসায় তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি......রাজিউন)। মৃত্যুকালে তিনির বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। দীর্ঘদিন থেকে তিনি বার্ধ্যক্ষজনিতসহ নানা রোগে ভোগছিলেন। মরহুম হাজী আব্দুশ শহিদ ঢাকাদক্ষিণ ইউপির সাবেক মেম্বার ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
মরহুমের জানাযা রোববার বাদ জুহর হাজী আব্দুশ শহিদ মহিলা আলিম মাদরাসা মাঠে অনুষ্টিত হবে। মরহুমের মাগফেরাতের জন্য দেশ বিদেশের সকলের কাছে দোআ চেয়েছেন তাঁর বড় পুত্র যুক্তরাজ্য প্রবাসী সুহেল আহমদ।
এদিকে হাজী আব্দুশ শহিদ মহিলা আলিম মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক ইউপি সদস্য হাজী আব্দুশ শহিদ তোতা মিয়ার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সেক্রেটারি সাহাব উদ্দিন, চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এম এ ছায়াদ, আ.লীগ নেতা নজরুল ইসলাম, শিক্ষক ও সাংবাদিক আজিজ খান, নিশ্চিন্ত গ্রামের বিশিষ্ট মুরব্বী মৌলভী আবুল হুসেন (ধলা মেছাব), সাবেক ইউপি সদস্য অফিক আহমদ খান,ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়নের ইউপি সদস্য সাহাব উদ্দিন, সাংবাদিক- ছড়াকার নোমান মাহফুজ প্রমুখ ।
তারা এক শোক বার্তায় মরহুমের রুহের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। শোক বার্তায় আরো বলেন, হাজী আব্দুস শহীদ তুতা মিয়া ছিলেন জনদরদী এক ব্যক্তিত্ব। যার ইন্তেকালে মানুষ হারালো এক অভিভাবককে। যার শূণ্যতা কখনো পূরণ হবার নয়। এছাড়া মাদরাসার সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও ম্যানেজিং কমিটির পক্ষ থেকে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন সুপারিনটেন্টডেন্ট শফিকুল ইসলাম।


Free Online Accounts Software