20 Nov 2017 : Sylhet, Bangladesh :

সিলেট 10 May 2017 বিবিধ  (পঠিত : 763) 

সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের 
বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ
     

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: মহান মে দিবসে নগরীর মীরবক্সটুলায় অবস্থিত উইমেন্স মেডিকল কলেজের ভিতরে আল-সাফা রেস্টুরেন্টের মালিক ১লা মে দিবসে শ্রমিকের খানাদানা না দিয়ে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে ও দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়। শ্রমিকরা ছুটির বেতন চাইতে গেলে মালিক ক্ষুব্ধ হয়ে শ্রমিক ইমাম হোসেনকে মালিকের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে অমানবিক নির্যাতন ও বেদম মারপিট করে আটকে রাখে ও ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ জীবননাশের হুমকি দেয়। এক পর্যায়ে বিশ্বস্থ সূত্রে খবর পেয়ে সংগঠনের কর্মীবৃন্দ তাকে উদ্বার করে আনে। এরই প্রেক্ষিতে আজ বিকাল ৫টায় সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে সংগঠনের মহাজনপট্টিস্থ কার্যারয়ে জমায়েত হয়ে এক বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে কেন্দ্রিয় শহিদ মিনারের সামনে এসে সমাবেশে লিপ্ত হয়। ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ আরিফুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. ছাদেক মিয়ার পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের সভাপতি নূরুল হুদা ছালেহ।
সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রমজান আলী পটু, জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট শহর পূর্বাঞ্চল কমিটির সভাপতি মো. খোকন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক মো. নজমূল হোসাইন, সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম ছফর আলী খান, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মুহিদুল ইসলাম, অর্থ সম্পাদক মো. ইউসূফ জামিল, দপ্তর সম্পাদক মো. বশির মিয়া, প্রচার সম্পাদক জমির আলী, জেলার সদস্য রফিকুল ইসলাম উজ্জল, আকির হোসেন।
অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক দপ্তর সম্পাদক জুলফিকার আলী ভুট্টো, সিনিয়র সদস্য ইমান আলী, ফজলু মিয়া, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।
বক্তরা বলেন, সারা বিশ্বে শ্রমিক শ্রেণী ১লা মে মহান মে দিবসের ছুটি ভোগ করে থাকেন। আমাদের দেশের সরকারী বেসরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী ছুটি ভোগ করলেও হোটেল শ্রমিকদের অদ্যাবধি এই আইনী অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছে। হোটেল সেক্টরে শ্রম আইনের সকল সুযোগ সুবিধা ভোগ করার কথা থাকলেও আইনের সঠিক প্রয়োগ না থাকার কারণে তা থেকে আজও হোটেল শ্রমিকেরা বঞ্জিত রয়েছে। বক্তরা আরো বলেন, আসন্ন পবিত্র রমজান মাসে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য সাধারণের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখতে হবে। হোটেল সেক্টরে বাজার মূল্যের সাথে সঙ্গতি রেখে নিম্নতম মূল্য মজুরি ১০ হাজার টাকা ঘোষণা করতে হবে। এই সিলেটে একটি স্থায়ী শ্রমি আদালত প্রতিষ্ঠা ও যুগ্ম শ্রম পরিচালকের কার্যালয় স্থাপন করতে হবে। অবলম্বে শ্রমিক ইমাম হোসেনের উপর নির্যাতনকারী আল-সাফা রেস্টুরেন্টের মালি ও সমাজের দুষ্ট চক্র মালিকের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্তমূলক শান্তিÍর জোর দাবী জানানো হয়।


Free Online Accounts Software