বাবা ডাকতে চাই
   24 Sep 2017 : Sylhet, Bangladesh :

2 June 2016 সাহিত্য-সংস্কৃতি  (পঠিত : 1214) 

বাবা ডাকতে চাই

বাবা ডাকতে চাই
     

এ বি এম সোহেল রশিদ:
আচ্ছা বলবে আমায়
বাবা ডাকতে কেমন লাগে
যখন বাবা বলে চিৎকার করে ডাকি
বুকটা আমার কেমন করে কাঁদে
পৃথিবীর সব তানপুরা এক সাথে বাজে
এমন ঝড়ো সুর কখনো শুনিনি আগে।
কেমন করে ডাকতে হয় শিখিয়ে দিবে
সেই যে কবে একাত্তরের আগে
ডেকেছিলাম মনে কি আছে ?
বয়স আমার চার কি পাঁচ
রাজারবাগের উল্টোদিকে
শান্তিবাগের বাসা থেকে
স্বাধীনতা আনবে বলে
বাবা গেলো চলে।
সেই শেষ দেখা, মনে পড়ে
২৫ মার্চের কালো রাতে বৃষ্টির মত গুলি
একটা লাল সবুজ হলুদে মিশেল পতাকা
নির্জন রাতে উড়ছিল স্বাধীন ভাবে একা
শুধু এই অপরাধে আম গাছটা ঝাঁঝরা হয়ে গেছে
কত মানুষ হয়েছে শহীদ
পুলিশ ব্যারাকে নির্বিচারে কতজনকে করেছে হত্যা
তাকি আমার মনে আছে
কচি আমগুলো মিশে গেছে আমার পতাকার সবুজে।
ভোরে সূর্য ফোঁটার আগে
আমরাও যে দলবেঁধে অজানার পথে
আমার বাবা স্বাধীনতা আনতে গেছে।
একেক করে নয়টি মাস গেল
মাঝে একটা সরকারী চিঠি এলো
জানালো পাকিস্তানের সেনাবাহিনী
রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে হয়েছেন গ্রেফতার
আছেন তিনি তেজগাঁয়ের ছত্রীসেনার বন্দী শিবিরে
বাবা ডাকবো বলে সেখানেও গেলাম বার বার
কিন্তু ওরা বাবা ডাকতে দিল না আর।
বাবা ডাকার তারিখ পড়ল ষোলই ডিসেম্বর’৭১
সারাদিন জানালার শিক ধরে দাড়িয়ে থাকলাম
কি যে উচ্ছ্বাস
কি যে অপেক্ষার আনন্দ
একেক করে মানুষ আসছে
এই প্রথম শুনলাম ভয়হীন গুলির শব্দ
ঠা ঠা করে গুলির শব্দে ভাসছে আনন্দ
বিজয়ের পতাকা হাতে নিয়ে সবাই এলো
পাশের বাড়ির চাচা এলো
খালাত ভাই আবু সাইদ এলো
একে একে সবাই এলো
যাদের ডাকে যুদ্ধ তারাও ফিরে এলো
কিন্তু বাবা এলো না!
সেই থেকে শুরু
এখনো দাড়াই অপেক্ষার জানালায়
বাবা আসবে চুপি চুপি
মার্চ এলে খুঁজি
ডিসেম্বর এলে খুঁজি
শুধু ডাক বিভাগের স্মারক ডাক টিকিটে খুঁজে পাই
রশীদ হায়দার সম্পাদিত ‘‘স্মৃতি ‘৭১” বইটিতে খুঁজে পাই
আমি একবার বাবা ডাকতে চাই
আমাকে শিখিয়ে দাও
আমি চিrকার করে বাবা ডাকবো।



Free Online Accounts Software