19 Feb 2018 : Sylhet, Bangladesh :

সিলেট 12 February 2018 সমৃদ্ধ বাংলাদেশ  (পঠিত : 551) 

সিলেটকে উন্নত দেশের নগরীর মতো গড়ে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে---বিভাগীয় কমিশনার ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম

সিলেটকে উন্নত দেশের নগরীর মতো 
গড়ে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে---বিভাগীয় কমিশনার ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম
     

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক:
সিলেট নগরীর জিন্দাবাজার পয়েন্ট থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সংলগ্ন চৌহাট্টা পয়েন্ট পর্যন্ত সড়ককে পরিচ্ছন্ন মডেল রোড হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার (১২ ফেব্রæয়ারী) বিকেলে র‌্যালী শেষে শহীদ মিনারের সামনে আয়োজিত সমাবেশে সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম এই ঘোষণা দিয়ে বলেন, সিলেট একটি পবিত্র প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যমন্ডিত পর্যটন নগরী। এই বিভাগীয় শহরটিকে উন্নত দেশের নগরীর পর্যায়ে আমরা নিয়ে যেতে চাই। সিলেট চেম্বারের মডেল রোডের উদ্যোগের ভূঁয়সী প্রশংসা করে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, এর মাধ্যমে মডেল নগরী বা¯Íবায়নে আমরা একধাপ এগিয়ে গেলাম।

গতকাল সোমবার দুপুর থেকে মডেল রোড ঘোষণার উদ্যোগকে স্বাগত জানাতে বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ শতশত ব্যবসায়ীরা ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে র‌্যালীতে অংশ নেন। তাদের সাথে গার্লস গাইড ও রোভার স্কাউটের সদস্যরা অংশ নেন। এসময় জিন্দাবাজার পয়েন্টে বিভাগীয় কমিশনার র‌্যালীর উদ্বোধন করেন। পরে র‌্যালীটি জিন্দবাজার থেকে শুরু হয়ে চৌহাট্টায় গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালীতে প্রশাসনিক কর্মকর্তা, সিটি কর্পোরেশন, বিভিন্ন মার্কেট ও ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

উলেøখ্য, ইতিপূর্বে মডেল রোড বাস্থবায়নের জন্য সিলেট এক আসনের এমপি ও মাননীয় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত চেম্বারের এই উদ্দোগের প্রতি একাত্ততা প্রকাশ করে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন। এছাড়া সিলেটের সর্বস্থরের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সমর্থন জানিয়েছেন।

সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা রয়েছে ২০১৮ সালের মধ্যেই মহানগর এলাকাগুলোকে একটি পরিচ্ছন্ন নগরী হিসেবে গড়ে তোলার। জিন্দাবাজার থেকে চৌহাট্টা পর্যন্ত আজ যে মডেল রোড ঘোষণা করা হলো তা সিলেট চেম্বারের একটি মহৎ উদ্যোগ। এই উদ্যোগকে আমি সাধুবাদ জানাই এই কারণে যে আমাদের যে মহাপরিকল্পনা পর্যায়ক্রমে বা¯Íবায়ন করতে যাচ্ছি এই মডেল রোড তা একধাপ এগিয়ে দিল। তিনি বলেন, জাতির পিতার একটি স্বপ্ন ছিল একটি সুখী সমৃদ্ধ সোনার বাংলা গড়ে তোলার। তার সেই স্বপ্ন বা¯Íবায়নে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। তিনি বলেন, আমরা চাই এদেশকে একটি উন্নত দেশে রূপান্তর করতে এবং বিভাগীয় নগরী সিলেটকে একটি উন্নত দেশের শহরের মর্যাদায় নিয়ে যেতে। তিনি জানান, গত ৭ ও ১৬ জানুয়ারী দূর্যোগ ব্যবস্থাপন সচিবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সিলেটকে একটি সুন্দর, পরিচ্ছন্ন, স্বাস্থ্যসম্মত ও আকর্ষণীয় নগরী হিসেবে গড়ে তোলার জন্য একটি মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আমরা এই মহাপরিকল্পনা বা¯Íবায়নের জন্য মানুষকে সচেতন ও একটি জাগরণ সৃষ্টি করবো। তিনি বলেন, মানুষ সচেতন না হলে এটা করা সম্ভব নয়। আর এই কার্যক্রমের মূলে থাকবে সিলেট সিটি কর্পোরেশন। তিনি বলেন, আমরা এই শহরটিকে ভালোবাসি। আমরা চাই এই নগরটি সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন নগর হিসেবে গড়ে উঠুক। এজন্য বিভাগীয় প্রশাসন সবধরণের সহযোগিতা দেবে। আজকে চৌহাট্টা থেকে জিন্দাবাজার সড়ককে পরিচ্ছন্ন মডেল রোড ঘোষণা করছি, পর্যায়ক্রমে অন্যান্য এলাকাকে পরিচ্ছন্ন রোড হিসেবে গড়ে তোলার পরিবেশ ও মানসিকতা আমরা সৃষ্টি করবো।

সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদের সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- সিলেটের জেলা প্রশাসক মোঃ রাহাত আনোয়ার, সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব, এসএমপি’র উপ পুলিশ কমিশনার ফয়সল মাহমুদ, সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি মাসুদ আহমদ চৌধুরী, সহ সভাপতি মোঃ এমদাদ হোসেন, পরিচালক ও আভ্যন্তরীণ বাজার সাব কমিটির আহবায়ক নুরুল ইসলাম। সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ মডেল রোড বা¯Íবায়নে প্রশাসনসহ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের স্বতঃস্ফূর্ত সমর্থন ও সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, এই মডেল রোড প্রতিষ্ঠা করতে পেরে আমরা অনুপ্রাণিত হয়েছি। এটা আরো সম্প্রসারিত করতে প্রশাসন, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দসহ নগরবাসীর সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে হবে। তিনি মার্কেট ও সংগঠনের পÿ থেকে ব্যনার, ফেস্টুন ইত্যাদি নিয়ে র‌্যালীতে অংশগ্রহণের জন্য সংশিøষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

এছাড়া র‌্যালী ও সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিÿা ও উন্নয়ন) আবু সাফায়াত মোঃ সাহেদুল ইসলাম, সিলেট চেম্বারের পরিচালক মোঃ হিজকিল গুলজার, জিয়াউল হক, মোঃ সাহিদুর রহমান, পিন্টু চক্রবর্তী, মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান (ভূট্টো), মুশফিক জায়গীরদার, মুকির হোসেন চৌধুরী, আব্দুর রহমান, চন্দন সাহা, মোঃ আব্দুর রহমান (জামিল), হুমায়ুন আহমেদ, মুজিবুর রহমান মিন্টু, এফবিসিসিআই এর পরিচালক সালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহ দিদার আলম নবেল, ওভারসীজ করেসপনডেন্ট্স এসোসিয়েশন অব সিলেট (ওকাস) এর সভাপতি খালেদ আহমদ, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী, সিলেট মহানগর ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের নেতৃবৃন্দে মধ্যে মোঃ নাজমুল হক, আব্দুর রহমান রিপন, আব্দুল হাদি পাবেল, মোঃ আলা মিয়া, হোসেন আহমদ, আব্দুল মুনিম মলিøক মুন্না, নিয়াজ মোঃ আজিজুল করিম, আব্দুস সামাদ, রিহাদুল হাসান, এখলাছুর রহমান মুবিন, কিবরিয়া হোসেন নিঝুম, ইয়াছিন সুমন, আজাদ আলী, হাজী রইছ আলী, সিলেট জেলা ঐক্য কল্যাণ পরিষদের নেতৃবৃন্দের মধ্যে এইচ. এম. তফাদার রুহেল, মোঃ লায়েক মিয়া, সৈয়দ মোহাম্মদ রাজন, মোঃ আলেক মিয়া, মোঃ কয়ছর আলী, ইমাম উদ্দিন কামাল, মোঃ পংকি মিয়া, শাহ আহমদুর রব, কয়েছ আহমদ সাগর, জাকারিয়া ইমরুল, শিপন খাঁন, রাজু আহমদ, মোঃ আলাউদ্দিন, সিলেট কল্যাণ সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এহছানুল হক তাহের। এছাড়াও সিলেটের বিভিন্ন মার্কেট ও ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, প্রশাসনিক কর্মকর্তাবৃন্দ, সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


Free Online Accounts Software