18 Dec 2017 : Sylhet, Bangladesh :

সিলেট 30 November 2017 শিক্ষা  (পঠিত : 635) 

ক্যাপ্টেন একাডেমিতে ৩দিনব্যাপী শিক্ষা আনন্দমেলার উদ্বোধন

ক্যাপ্টেন একাডেমিতে ৩দিনব্যাপী শিক্ষা আনন্দমেলার উদ্বোধন
     

মো. আব্দুল বাছিত: সিলেটের অন্যতম শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘ক্যাপ্টেন একাডেমি’তে দিনব্যাপী শিক্ষা আনন্দ মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপশহরস্থ এলাকায় প্রতিষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে আনন্দমেলার উদ্বোধন করেন সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) আবু সাফায়াত মো. সাহেদুল ইসলাম। জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হয়। এছাড়া শিক্ষা আনন্দ মেলা উপলক্ষে একটি র‌্যালির আয়োজন করা হয়। র‌্যালিটি মূল প্রতিষ্ঠান থেকে উপশহরস্থ এলাকার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট প্রদক্ষিণ করে অনুষ্ঠানস্থলে মিলিত হয়। পরে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক কাউন্সিলর এডভোকেট সালেহ আহমদ সেলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সাংবাদিক-কলামিস্ট আফতাব চৌধুরী, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের ইনচার্জ মধুসূদন চন্দ এবং সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র থেকে আগত মি. মাইকেল জনসন। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ক্যাপ্টেন একাডেমির প্রিন্সিপাল মোছাম্মাৎ বদরুন্নেসা। অনুষ্ঠানের শেষে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন একাডেমির ভাইস প্রিন্সিপাল স্বপন কুমার বর্মণ। অনুষ্ঠানের সার্বিক উপস্থাপনা করেন ফারুক আহমদ এবং তানজিলা চৌধুরী। এছাড়া শিক্ষা আনন্দমেলা উপলক্ষে প্রতিষ্ঠানে একটি কম্পিউটার ল্যাবের উদ্বোধন, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতাসহ প্রধান অতিথি এবং অন্যান্য অতিথিবৃন্দ একাডেমির শিক্ষার্থীদের প্রদর্শিত বিভিন্ন বিজ্ঞানভিত্তিক প্রজেক্ট পরিদর্শন করেন। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সামিয়া এবং সৈয়দা মাহজাবিন মেহের। প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) আবু সাফায়াত মো. সাহেদুল ইসলাম বলেন, আজকের শিশুরা আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তাই তাদের মনন এবং সৃজনশীলতার বিকাশে ভূমিকা রাখতে হবে। মুখস্থ বিদ্যা দিয়ে দেশ ও জাতির উন্নয়ন সম্ভব নয় এবং এর মাধ্যমে নিজেদেরকে সঠিকভাবে প্রতিষ্ঠিত করা অসম্ভব। এধরনের শিক্ষা আনন্দমেলা শিক্ষার্থীদের মধ্যে সৃজনশীলতার বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি। এর মাধ্যমে ভিশন ২০২১ বাস্তবায়িত হবে বলে আমি আশা করি। বিকালে দ্বিতীয় অধিবেশনে শিক্ষার্থীরা কবিতা আবৃত্তি এবং উপস্থিত বক্তৃতায় অংশগ্রহণ করেন। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাবিপ্রবির নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. আব্দুল আউয়াল বিশ্বাস।


Free Online Accounts Software