19 Aug 2017 : Sylhet, Bangladesh :

সিলেট 13 August 2017 ব্যক্তিত্ব  (পঠিত : 826) 

সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজে আলোচনা সভা

সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজে আলোচনা সভা
     

মো. আব্দুল বাছিত: মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির ভিসি প্রফেসর ড. মোঃ সালেহ উদ্দিন বলেছেন, বাঙালীর মুক্তি ও স্বাধীনতা অর্জনের লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু নিজের জীবনের মায়া ত্যাগ করে বারবার জেল-জুলুমের শিকার হয়েছেন। সোনার বাংলা গড়ে তুলার মূলমন্ত্রে দীক্ষিত বঙ্গবন্ধু নিজের জীবনকে বিলিয়ে দিলেন দেশের জন্য। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে শিক্ষার্থীদেরকে প্রকৃত মানুষ হওয়ার পাশাপাশি ভালো ডাক্তার হিসেবে নিজেদেরকে তৈরী করতে হবে।
সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ-এর উদ্যোগে জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোঃ রেজাউল করিম'র সভাপতিত্বে রোববার কলেজের লেকচার গ্যালারী-২ এ এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজের প্যাথোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মো. নজরুল ইসলাম ভূঁইয়া’র স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হওয়া সভায় মূখ্য আলোচকের বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ, সিলেট-এর চেয়ারম্যান এডভোকেট মোঃ লুৎফুর রহমান এবং বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন, সিলেট জেলা শাখার সভাপতি অধ্যাপক ডা. রুকন উদ্দিন আহমদ, হলি সিলেট হোল্ডিং লিমিটেড-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মুক্তিযোদ্ধা বশির আহমদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. শাহ আব্দুল আহাদ, সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব:) ডা. তোজাম্মেল হক। বিএমএ’র সমাজকল্যাণ সম্পাদক ডা. হিমাংশু শেখর দাসের সঞ্চালনায় আয়োজিত সভায় ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. ফজলুর রহিম কায়সার, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সার্জারী বিভাগের অধ্যাপক ডা. মৃগেন কুমার দাস চৌধুরী, মো. ইসফাক জামান সজীব। সভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে একটি ডকুমেন্টারী প্রদর্শন করানো হয়। ডকুমেন্টারীটি পরিচালনা করেন শিক্ষার্থী তাহনিয়া তাবাসসুম এশা। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাওলানা জামাল উদ্দিন।
মূখ্য আলোচকের বক্তব্যে জেলা পরিষদ, সিলেট-এর চেয়ারম্যান এডভোকেট মো. লুৎফুর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ সমস্ত জুলুম এবং নির্যাতনের কবল থেকে মুক্তি পায়। মূলত বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতনা। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে মানবপ্রেমের দীক্ষা নিয়ে আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে। কারণ বঙ্গবন্ধু তাঁর সারা জীবনই মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছেন।
সভাপতির বক্তব্যে অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. রেজাউল করীম বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শ নতুন প্রজন্মের সবাইকে জানতে হবে। বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে অজ্ঞতা সকলের জন্য লজ্জাজনক। নিজেদের প্রয়োজনে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ জানা সকলের একান্ত কর্তব্য।


   অন্য পত্রিকার সংবাদ  অভিজ্ঞতা  আইন-অপরাধ  আত্মজীবনি  আলোকিত মুখ  ইসলাম ও জীবন  ঈদ কেনাকাটা  উপন্যাস  এক্সপ্রেস লাইফ স্টাইল  কবিতা  খেলাধুলা  গল্প  ছড়া  দিবস  দূর্ঘটনা  নির্বাচন  প্রকৃতি পরিবেশ  প্রবাস  প্রশাসন  বিবিধ  বিশ্ববিদ্যালয়  ব্যক্তিত্ব  ব্যবসা-বাণিজ্য  মনের জানালা  মিডিয়া ওয়াচ  মুক্তিযুদ্ধ  যে কথা হয়নি বলা  রাজনীতি  শিক্ষা  সমসাময়ীক বিষয়  সমসাময়ীক লেখা  সমৃদ্ধ বাংলাদেশ  সাইক্লিং  সাক্ষাৎকার  সাফল্য  সার্ভিস ক্লাব  সাহিত্য-সংস্কৃতি  সিটি কর্পোরেশন  স্বাস্থ্য  স্মৃতি  হ য ব র ল  হরতাল-অবরোধ