24 Jul 2017 : Sylhet, Bangladesh :

সিলেট 17 July 2017 ব্যক্তিত্ব  (পঠিত : 602) 

সিলেটে ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল-এর মৃত্যু শতবার্ষিকী পালন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

সিলেটে ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল-এর 
মৃত্যু শতবার্ষিকী পালন উপলক্ষে 
আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল
     

মো. আব্দুল বাছিত; স্বদেশী আন্দোলনসহ উপমহাদেশে ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের জাতীয়নেতা, প্রথম বাঙ্গালী মুসলিম ব্যরিস্টার, হিন্দু মুসলমান মিলনের অগ্রদূত ব্যারিস্টার আবদুল রসুল-এর মৃত্যু শতবার্ষিকী সিলেটে পালিত হয়েছে। ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল মৃত্যু শতবার্ষিকী পালন কমিটি, সিলেট-এর আয়োজনে নগরীর কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এডভোকেট এমাদ উলøাহ শহীদুল ইসলাম শাহীন বলেন, ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল ভারতীয় উপমহাদেশের বহুল গুণে গুণান্বিত এক আলোচিত ব্যক্তিত্ব। কিন্তু কালের গর্ভে সেই মহান ব্যক্তি আজ হারিয়ে যেতে বসেছেন। রাজনীতি, সমাজসেবা এবং পেশাগত সকল দিক দিয়ে সফল ব্যারিস্টার আব্দুল রসুলকে জাতির সামনে উপস্থাপনের মাধ্যমে তাঁর প্রতি সম্মান প্রদর্শন করতে হবে।
ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল মৃত্যু শতবার্ষিকী পালন কমিটি, সিলেট আয়োজিত এবং কৈতর সিলেট-এর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন মৃত্যুশতবার্ষিকী পালন কমিটির আহবায়ক প্রবাসী কবি-গবেষক তাবেদার রসুল বকুল এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন কমিটির সদস্যসচিব ও কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সহ সভাপতি সেলিম আউয়াল। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় (১৬ জুলাই ২০১৭) অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান এ এইচ এম মাহমুদ রাজা চৌধুরী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক জালালাবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আজিজুল হক মানিক এবং মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন কবি-সাংবাদিক আব্দুল বাছিত।
সিলেটের প্রথম অনলাইন দৈনিক সিলেট এক্সপ্রেস-এর স্টাফ রিপোর্টার সাহিত্যকর্মী তাসলিমা খানম বীথির সঞ্চালনায় আয়োজিত সভায় আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগীয় কমিটির সভাপতি আবদুল বাতিন ফয়সল, কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল মুকিত অপি, বিশিষ্ট রম্য লেখক হারান কান্তি সেন, এডভোকেট এম এ মালিক, কবি-সংগঠক ইসমত হানিফা চৌধুরী, কবি-সংগঠক সিদ্দিক আহমদ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন কবি কামাল আহমদ এবং মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা রায়হান কবির।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী বলেন, ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল উপমহাদেশের রাজনীতিতে সত্যিকারের জাতীয়তাবাদের প্রবক্তা। অসাম্প্রদায়িক চেতনা ধারণ করে যিনি সারাজীবন মানবতার কল্যাণে কাজ করে গেছেন। তাঁর নামে বাংলাদেশে কোনো বিশ্ববিদ্যালয় কিংবা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হল নির্মাণ করে তাঁর প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা উচিত।
বিশেষ অতিথি দৈনিক জালালাবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আজিজুল হক মানিক বলেন, ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল উপমহাদেশের বাঙালি মুসলমানদের কাছে এক আলোচিত ব্যক্তিত্ব। তাকে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরা সময়ের দাবী।
স্বাগত বক্তব্যে সাংবাদিক-সংগঠক সেলিম আউয়াল বলেন, ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল উপমহাদেশের স্বদেশী আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। তাঁর জীবনী পাঠ নতুন প্রজন্মকে অনুপ্রেরণা যোগাবে। ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল তাঁর অনন্য ব্যক্তিত্ব ও বিচক্ষণতার কারণে অল্প জীবনে অভূতপূর্ব সম্মানের অধিকারী হয়েছেন।
কেমুসাসের সাহিত্য সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল মুকিত অপি বলেন, সকলের ভাগ্যে যোগ্য উত্তরসূরী জুটে না। কিন্তু এ ক্ষেত্রে ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল অত্যন্ত ভাগ্যবান। কবি-গবেষক তাবেদার রসুল বকুলের মাধমে ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল সম্পর্কে বাংলাদেশের মানুষ জানতে পেরেছে। ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল সাহসিকতা এবং দেশপ্রেমের মাধ্যমে বাঙালির মনে জায়গা করে নিয়েছেন।
সাংবাদিক আবদুল বাতিন ফয়সল বলেন, ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল রাজনৈতিক এবং সামাজিকভাবে মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করে গেছেন। তাঁর জীবন জানলে আমাদের জ্ঞান ভান্ডার আরো সমৃদ্ধ হবে।
রম্যলেখক হারান কান্তি সেন বলেন, ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল সম্পর্কে জানতে হবে। তাঁর বহুমাত্রিক জীবনালেখ্য সকলের জন্য প্রেরণা হিসেবে কাজ করবে।
এডভোকেট এম এ মালিক বলেন, ব্যারিস্টার আব্দুল রসুল হিন্দু-মুসলিম ঐক্যের জন্য কাজ করে গেছেন। তাঁর জীবনী থেকে শিক্ষা অর্জন করে সমাজের জন্য কাজ করে যেতে হবে।
কবি-সংগঠক ইসমত হানিফা চৌধুরী বলেন, ব্যারিস্টার আব্দুল রসুলের জীবন সম্পর্কে জানতে পারলে নতুন প্রজন্ম আরো এগিয়ে যেতে পারবে। পাশাপাশি সকলের মধ্যে সাম্প্রদায়িক চেতনার স্ফূরণ হবে।
সভাপতির বক্তব্যে কবি-গবেষক তাবেদার রসুল বকুল বলেন, ব্যারিস্টার আব্দুল রসুলের বহুমাত্রিক জীবনকে মলাটবদ্ধ করতে যথেষ্ট পরিশ্রম ও সাধনা করতে হয়েছে। তাঁর সম্পর্কে গবেষণা করা সময়ের দাবী। এমনই একজন গুণীজনকে জাতির সামনে উপস্থাপন করার মাধ্যমে সর্বোপরি জাতিই উপকৃত হবে।




   অন্য পত্রিকার সংবাদ  অভিজ্ঞতা  আইন-অপরাধ  আত্মজীবনি  আলোকিত মুখ  ইসলাম ও জীবন  ঈদ কেনাকাটা  উপন্যাস  এক্সপ্রেস লাইফ স্টাইল  কবিতা  খেলাধুলা  গল্প  ছড়া  দিবস  দূর্ঘটনা  নির্বাচন  প্রকৃতি পরিবেশ  প্রবাস  প্রশাসন  বিবিধ  বিশ্ববিদ্যালয়  ব্যক্তিত্ব  ব্যবসা-বাণিজ্য  মনের জানালা  মিডিয়া ওয়াচ  মুক্তিযুদ্ধ  যে কথা হয়নি বলা  রাজনীতি  শিক্ষা  সমসাময়ীক বিষয়  সমসাময়ীক লেখা  সমৃদ্ধ বাংলাদেশ  সাইক্লিং  সাক্ষাৎকার  সাফল্য  সার্ভিস ক্লাব  সাহিত্য-সংস্কৃতি  সিটি কর্পোরেশন  স্বাস্থ্য  স্মৃতি  হ য ব র ল  হরতাল-অবরোধ