21 Sep 2017 : Sylhet, Bangladesh :

সিলেট 10 July 2017 প্রশাসন  (পঠিত : 315) 

হরিজন সম্প্রদায়ের জীবন মান উন্নয়নে পাঁচদফা দাবীতে স্বারকলিপি

হরিজন সম্প্রদায়ের জীবন মান উন্নয়নে পাঁচদফা দাবীতে স্বারকলিপি
     

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: হরিজন সম্প্রদায়ের জীবন মান উন্নয়নে পাঁচদফা দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্বারকলিপি প্রদান করেছে বাংলাদেশ হরিজন ঐক্য পরিষদ সিলেট জেলা শাখা। সোমবার সকালে জেলা প্রশাসকের কাছে এ স্বারকলিপি প্রদান করা হয়। এর পূর্বে নগরীর কাষ্টঘর এলাকা থেকে মিছিল নিয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে হরিজন ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দ।
স্কারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশে ১৫ লাখ হরিজন জনগোষ্ঠির বাস। এই জনগোষ্ঠি বংশ পরম্পরায় আদি পেশাজিবী হিসেবে পরিচ্ছন্নতা কর্মীর কাজকে জাত-পেশা হিসেবে সিটি করপোরেশন, পৌরসভা, সরকারী, বেসরকারী স্বায়ত্বসাশিত প্রতিষ্ঠান সমূহে পরিচ্ছন্নতার কাজ করে থাকে। যারা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন ভাবে ঘৃণা ও বৈষম্যের শিকার হচ্ছে। এই সকল জনগোষ্ঠি অর্থনৈতিক দারিদ্রতার কারণে বৈষম্য, বঞ্চনা, ঘৃণা, সমাজ বিচ্ছিন্নতা, মর্যাদাহীণতা, ভূমি দখল ও নিরাপত্তাহীণতায় ভূগছে। আজ বেঁচে থাকার জন্য নুন্যতম অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সম্প্রদায়টি। এর প্রেক্ষিতে সরকারের পক্ষ থেকে পরিচ্ছন্নতা কর্মী পদে জাত হরিজনদের ৮০ শতাংশ কোটা বরাদ্দ দিয়েছে। সেফটি নেট কর্মসূচিতে আবাসনের জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন। শিক্ষিত ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তি কোটা ও অন্যান্য চাকুেিত কোটার নির্দেশনা দিয়েছেন । কিন্তু বাস্তবায়নে এর কোন চিত্র নেই। স্বারকলিপিতে সকল সিটি করপোরেশন ও পৌরসভায় প্রথম কর্মচারী থাকলেও আজ পর্যন্ত হরিজনেরা স্থায়ী নিয়োগ পায় নেই। এতে চাকুরীচ্যুত, ছাটাই করা হয়। স্বারকলিপিতে হরিজন ঐক্য পরিষদের দেয়া পাঁচ দফা দাবীতে উলেøখ করা হয়, প্রত্যেক সিটি করপোরেশন ও পৌরসভায় পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের স্থায়ী নিয়োগ দিতে হবে। সর্বনিন্ম বেতন ১০ হাজার টাকা থেকে ১২ হাজার টাকা নির্ধারণ করা। সংরক্ষিত ৮০ শতাংশ বরাদ্দ কোটায় অযৌক্তিক শর্ত বিধীমালা বন্ধ করা। বংশ পরিচয় ও পেশাগত সমাজ প্রতিষ্ঠায় বৈষম্য দুর করে শিক্ষিত হরিজন সন্তানদের মেধা ও যোগ্যতানুযায়ী নিয়োগ কোটা বরাদ্দ দেওয়া। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হরিজন শিক্ষার্থীদের ভর্তি কোটা দেওয়া। বাংলাদেশের সকল স্থানে কলোনীতে হরিজনরা মানবেতর জীবন যাপন করছে তাদের আবাসন তৈরী করাসহ কর্মসংস্থানের মাধ্যমে আবাসন ব্যবস্থা করা।
স্বারকলিপি গ্রহণকালে সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. রাহাত আনোয়ার হরিজন ঐক্য পরিষদের প্রতিনিধিদের বিভিন্ন দাবী গুলো বিবেচনা করা হবে বলে জানান।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, হরিজন ঐক্য পরিষদ সিলেট জেলা শাখার সভাপতি সুজন লাল, সহ সভাপতি বাদল লাল, কলোনি ইনচার্জ আজগর হোসেন খান, সনদ্বিপ লাল, সাধারণ সম্পাদক রতন কুমার, যুগ্ম সম্পাদক অমল লাল, রানা লাল, শেলী রানি, লাল দুমার, সাংগঠনিক সম্পাদক রাজেশ লাল, বিক্রম লাল প্রমুখ।


   অন্য পত্রিকার সংবাদ  অভিজ্ঞতা  আইন-অপরাধ  আত্মজীবনি  আলোকিত মুখ  ইসলাম ও জীবন  ঈদ কেনাকাটা  উপন্যাস  এক্সপ্রেস লাইফ স্টাইল  কবিতা  খেলাধুলা  গল্প  ছড়া  দিবস  দূর্ঘটনা  নির্বাচন  প্রকৃতি পরিবেশ  প্রবাস  প্রশাসন  বিবিধ  বিশ্ববিদ্যালয়  ব্যক্তিত্ব  ব্যবসা-বাণিজ্য  মনের জানালা  মিডিয়া ওয়াচ  মুক্তিযুদ্ধ  যে কথা হয়নি বলা  রাজনীতি  শিক্ষা  সমসাময়ীক বিষয়  সমসাময়ীক লেখা  সমৃদ্ধ বাংলাদেশ  সাইক্লিং  সাক্ষাৎকার  সাফল্য  সার্ভিস ক্লাব  সাহিত্য-সংস্কৃতি  সিটি কর্পোরেশন  স্বাস্থ্য  স্মৃতি  হ য ব র ল  হরতাল-অবরোধ