19 Dec 2017 : Sylhet, Bangladesh :

বিশ্ব 30 November 2015 অন্য পত্রিকার সংবাদ  (পঠিত : 4797) 

সৌদি আরবে ‘সমকামী’ ঘোড়ার মৃত্যুদণ্ড!

সৌদি আরবে ‘সমকামী’ ঘোড়ার মৃত্যুদণ্ড!
     

অনলাইন ডেস্ক সৌদি আরবে ‘সমকামিতার অপরাধে’ একটি ঘোড়াকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে। শনিবার আরব বিশ্বের জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজ এই খবর জানায়। দৌড়ের জন্য বিখ্যাত এই ঘোড়াটির বাজারমূল্য ছিল প্রায় ৯৩ কোটি টাকা (১২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার)।

আদালতের সূত্রে পত্রিকাটি জানায়, চার বছর বয়সী এই ঘোড়াটির নাম আল-হাদিয়ে। আরবি এই নামটির অর্থ ‘উপহার’। এর মালিক ছিলেন সৌদি যুবরাজ আলওয়ালাদ-বিন-তালাল। দৌড়ের জন্য বিখ্যাত এই ঘোড়াটি চলতি ঘোড়দৌড়ের বছরেই প্রায় ৪২ কোটি টাকা (ছয় মিলিয়ন ডলার) আয় করেছিল। এটি সৌদি আরবের জাতীয় ঘৌড়দৌড় প্রতিযোগিতা ও কাতারের ‘অ্যারাবিয়ান হর্স শো’-তেও অংশ নিয়েছিল।

গত সপ্তাহে পুরুষ এই ঘোড়াটিকে আরেকটি ঘোড়ার সঙ্গে সঙ্গম করতে দেখে পরিচর্যাকারী। এরপরই সে বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে জানায়। এর পর থেকে ঘোড়াটিকে আলাদা করে রাখা হয়। এবং সমকামিতা আইনে ঘোড়াটির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়।

গত শুক্রবার ঘোড়াটির মৃত্যুদণ্ডের রায়ের পর একই দিন তা কার্যকর করা হয়। আরব বিশ্বের আরেক সংবাদমাধ্যম আরব ওয়ার্ল্ড ডটকম রায় স্বাক্ষরের একটি ছবি প্রকাশ করে বলেছে, দেশটির সরকারি টেলিভিশনে ঘোড়াটির মৃত্যুদণ্ডের আদেশের বিষয়টি প্রচার করা হয়। যাতে জনগণ বুঝতে পারে সমকামিতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রযন্ত্র কতটা কড়া। এমনকি কোনো প্রাণীকেও এই অপরাধে ছাড় দেওয়া হয় না!

সৌদি আরবের ধর্মীয় পুলিশ কর্তৃপক্ষ ও ‘সদগুণের বিস্তার এবং অনৈতিকতা প্রতিরোধ কমিটির’ প্রধান শাইখ আবদুর রহমান আল আলসানাদ বলেন, ‘সমকামিতা একটি মারাত্মক রোগ, যার সম্পর্কে বিজ্ঞান খুবই কম জানে। আমাদের পবিত্র এই ভূমিকে সম্ভাব্য সকল উপায়ে এই ক্ষতিরোগ থেকে দূরে রাখা হবে। শুধু মানুষ নয়, সকল প্রাণীকেও এই ক্ষতিকর অভ্যাস থেকে মুক্ত রাখতে সব ধরনের কঠোরতার অনুমতি আইনে দেওয়া আছে।’

আবদুর রহমান আল আলসানাদ আরো বলেন, ‘আমাদের বিদেশি বন্ধুরা হয়তো প্রাণী অধিকার নিয়ে কথা বলবেন। কিন্তু প্রাণী অধিকারের নামেও আমরা সমকামী প্রাণীকে এই পবিত্র ভূমিতে স্থান দিতে পারি না। সৌদি আরবের কোনো শাসক কোনোদিনও এর অনুমতি দেয়নি। আমাদের জনগণও ভয়াবহ এই অসুস্থতার বিষয়ে সচেতন আছেন।’ এনটিভি ৩০.১১.২০১৫


Free Online Accounts Software