17 Dec 2017 : Sylhet, Bangladesh :

9 September 2013 এক্সপ্রেস লাইফ স্টাইল  (পঠিত : 2038) 

ধূম পান ছাডবেন কি ভাবে

ধূম পান ছাডবেন কি ভাবে
   

m abdullah bhuiya এর লিখা।   রঙের বাড়ই   পাতা থেকে

 

ধূমপান ছাড়ার উপায়
তামাকগাছ এক সময় ভেষজ হিসেবে ব্যবহৃত হতো। মাথাব্যথা, ঠাণ্ডা, কাশির ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হতো। তামাকের ভেষজ ব্যবহার ছিল ষোড়শ শতকে। মেক্সিকোর টোব্যাকো (Tobacos) প্রদেশে এর ব্যবহার বেশি ছিল। তামাকের tobacco ইংরেজি শব্দটিও ওই প্রদেশের নামানুসারে। এক সময় এর পরিচিতি ছিল herbe sainte অথবা পবিত্র গাছ হিসেবে। ফ্রান্সে তখন গাছটি বেশ জনপ্রিয় ছিল (১৫৬৫)। নিকোট (Nicot) নামক এক ব্যক্তি গাছটিকে ফ্রান্সে পরিচিত করান বলে তার নামানুসারে গাছটির ফ্রান্সে নামকরণ হয় Nicotiane. পরবর্তী সময়ে তামাকের কার্যকরী উপাদানেরও নামকরণ করা হয় নিকোটিন (Nicotine).

নিকোটিন হেরোইনের চেয়েও ভয়াবহ। যদি আপনি ধূমপান করেন, তবে মাত্র ৬ সেকেন্ডের মধ্যে তা আপনার মস্তিষ্কে পৌঁছে যাবে, যা হেরোইনের চেয়ে দ্বিগুণ দ্রুত কাজ করে। এ জন্য বলা হয়, nicotine is wonderful drug. অথচ ড্রাগ হিসেবে হেরোইন নিষিদ্ধ। আইন প্রয়োগকারী সংস'া হেরোইন আটকে থাকে ত্রস্ত-ব্যস্ত। কিন' ধূমপান চলে প্রকাশ্যে। তামাক, জর্দা, বিড়ি, সিগারেট বিক্রি হয় যত্রতত্র। তামাকজাত দ্রব্য নিষিদ্ধ নয়। নিষিদ্ধ হচ্ছে হেরোইন। নিকোটিন হেরোইনের চেয়ে ভয়াবহ অসক্তি সৃষ্টি করলেও তা নিষিদ্ধ নয়। নিকোটিন সবচেয়ে ক্ষতিকর ড্রাগ বলে বর্তমানে চিহ্নিত। আমেরিকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অন ড্রাগ এবিউস (National Institute on drug Abuse)-এর মতে Cigarette smoking is now the most serious and most widespread from of addiction in the world –even worse than heroinনিকোটিন সরাসরি আমাদের মস্তিষ্ক ও স্নায়ুতন্ত্রে প্রভাব বিস্তার করে। ধূমপানের কারণে যে নিকোটিন আমাদের শরীর গ্রহণ করে, তা আমাদের হৃৎপিণ্ডের রক্তনালীকে সঙ্কুচিত করে। যার কারণে বুক ব্যথা ও হার্ট অ্যাটাক হতে পারে। নিকোটিন মস্তিষ্কের রক্তনালীগুলোকে সঙ্কুচিত করে। ফলে ব্রেইন স্ট্রোক হয়ে থাকে। নিকোটিন শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা নষ্ট করে দেয়। শরীরের রক্ত প্রবাহে বাধা সৃষ্টি করে। এ ধরনের আরো বহু প্রতিক্রিয়া নিকোটিনের কারণে ঘটে থাকে।

এ ছাড়া তামাকে থাকে চার হাজারেরও বেশি রাসায়নিক উপাদান, যার মধ্যে ১০০টি ক্যান্সার

=================================================

সৃষ্টি করতে পারে। তামাক দ্বারা শুধু যে ফুসফুসের ক্যান্সার হয়, তা কিন' নয়। কিডনি, পাকস'লী

=========================================================

, মুখগহ্বর, গলনালী, মলান্ত্র, জরায়ুমুখ এবং যোনিমুখের ক্যান্সারও সৃষ্টি করতে পারে তামাকজাত

=======================================================

দ্রব্য।

যারা ধূমপান করেন, তারা ধূমপানজনিত ক্ষতিকর বিষয় জানেন না এমন নয়। মূলত, ধূমপান এমন এক ধরনের আসক্তি সৃষ্টি করে, যার কারণে শত ইচ্ছা থাকলেও অনেকে ধূমপান ত্যাগ করতে পারেন না।

তাই কেউ যখন ধূমপান ছাড়ার চিন্তা করেন, তখন তাকে ধূমপানের ক্ষতিকর দিকগুলোকে ইতিবাচক বিবেচনায় মেনে নিতে হবে।

**ধূমপানজনিত রোগগুলোর ভয়াবহতা সম্পর্কে তার পরিষ্কার ধারণা লাভ করতে হবে।

***ধূমপান যে একটি বড় সামাজিক সমস্যা, তা তাকে উপলব্ধি করতে হবে।

*** তাকে আরো মেনে নিতে হবে যে, ধূমপান দ্বারা তিনি শুধু নিজেই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন না, পরিবার, বন্ধুবান্ধব এবং আশপাশের লোকেরাও তার দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।

****এখানে মনে রাখা দরকার, ধূমপান শুধু ধূমপায়ীকেই ক্ষতি করে না, বরং তার আশপাশের লোকেরা আরো বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

****সুতরাং এটা মনে করার কোনো কারণ নেই যে, যিনি ধূমপান করেন, শুধু তিনিই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। তাই সমাজের সব শ্রেণীর দায়িত্ব হচ্ছে- ধূমপান প্রতিরোধ করা।

ধূমপান ত্যাগ করার জন্য কয়েকটি উপদেশ :

(ক) প্রথমেই নিজেকে একজন অধূমপায়ী হিসেবে চিন্তা করুন।

(খ) ধূমপানের সমস্যাগুলো ইতিবাচকভাবে মেনে নিন।

(গ) ধূমপানের সমস্যাগুলো বন্ধুবান্ধবের সাথে আলোচনা করুন।

(ঘ) ধূমপানের ইচ্ছা ত্যাগ করুন। ধূমপানের ইচ্ছা হলে অন্য কাজে মনোযোগ দিন।

(ঙ) ধূমপানের সময়গুলো চিহ্নিত করুন এবং ওই সময়ে ভিন্ন কিছু করার চিন্তা করুন।

(চ) ধূমপানের ইচ্ছা হলে ইচ্ছামতো ফলফলাদি খান।

(ছ) ভিটামিন-সি জাতীয় জিনিস বেশি বেশি খান।

(জ) মনটাকে সব সময় ইতিবাচক চিন্তার অনুসারী করুন। ।

الرحيم

--------------------

آخى المدخن لحظه من فضلك

------------------------

الحمد لله وحده والصلاة والسلام على من لانبى بعده اما بعد----

*فقد اجمع علماء في البلد الحرام المباركة على حرمة التدخين---

واستدلوا على ذالك بكثير من أدلة الكتاب والسنة – منها قوله تعالى ----- ويحل لهم الطيبات ويحرم عليهم الخبائث – الأعراف الآية 157

ولا يشك احد من العاقل البالغ في خبث الدخان -------------------

وقوله تعالى --------------------------------------------------------

ولاتلقوا بأيديكم إلى التهلكة ---- البقرة الآية –195

وقوله تعالى ------------------------------------------------------

ولا تقتلوا أنفسكم إن الله كان بكم رحيما ----- النساء – الآية 29

وقد أثبتت الدراسات والتجارب الطبية آن التدخين مهلك وقاتل ولو على المدى البعيد---------------------------------------------------

------------------ وقول النبي صلى الله عليه وسلم --------------

 لا ضرر ولا ضرار – رواه احمد -------- والدخان ضرر على النفس والأسرة والمجتمع والأمة بأسرها-------------



أولا---- من أضرار التدخين على الجهاز التنفسي

----------------------------------------------

*** الإصابة بسرطان الرئة والحنجرة- والتهاب الرئة المزمن-

***بمرض السل الرؤى – والربو المزمن -

*** الاصابة بضيق التنفس – والالتهاب الشعبي المزمن

ثانيا --- من أضرار التدخين على جهاز العصبي

--------------------------------------------------

***-----------الاصابة –بمرض الأرق والتوتر

*** -- ضعف الأعصاب المؤدى إلى شلل الأعصاب

***---------- -- سرعة الغضب – والعصبية الزائدة

***-- -------- ضعف الذاكرة – ووهن النشاط الذهني

*** --- ضعف حاستي- الشم والذوق لأنه رائحة الدخان يظهر من الفم والجسم والثياب ولكن ما عندهم إحساس ---

*** ------------------- ضعف البصر والتهاب الجفون

ثالثا ---- من إضرار التدخين على القلب والجهاز الدوري

--------------------------------------------------------

***--- زيادة ضربات القلب –

*** ---- تصلب الشرايين وارتفاع ضغط الدم

****----- جلطات القلب والأوعية الدموية للمخ

****----- اضطراب الدورة الدموية في الأطراف

**** ----- الاصابة بالذبحة الصدرية والتهاب الشريان

التاجي

رابعا – من اضرارالتدخين على الجهاز الهضمي

---------------------------------------------

*** -- الاصابة بسرطان الفم والبلعوم والمريء والبنكرياس ----

****----------الاصابة بقرحة المعدة والاثنى عشر

**** ---------- الاصابة بمرض الضمور الكبدي

***** --- فقدان الشهية –والوهن - والضعف العام –

خامسا --- من أضرار التدخين على جهاز البولي

----------------------------------------------

***-- الاصابة بسرطان المثانة- وقرحة المثانة

***---- الاصابة بسرطان الكلى - والتسمم البولي

هل تصدق

-----------

**** أن الوفيات الناتجة عن التدخين في كل عام أكثر من الوفيات الناتجة عن جميع الأمراض الفتاكة مجتمعة –

****--- إذا كانت القنبلة الذرية التي ألقيت على يابان فتكت ب 260000 شخص فان التدخين يفتك كل عام بثلاثة ملايين شخص واه على العجب من المدخنين

*****--- ان السيدات والسادة: أن السيجارة الوحدة تحتوى على ما يقرب من 600 مركب كيماوي منها 40 مركبا يسبب مرض السرطان

**** إن في المائة سبعون شخص من 50 مليون مدخن في الولايات المتحدة حاولوا الإقلاع عن التدخين فمتى تحاول أنت يا عبد الله آخى المسلم الإقلاع عن التدخين – الست أحق بذالك منهم

كتبه --- عبد الله نظامي بنغلاديش


Free Online Accounts Software