Sylhet Express : সিলেট এক্সপ্রেস - সিলেটের প্রথম অনলাইন দৈনিক
   24 Oct 2017 : Sylhet, Bangladesh :

বিশ্ব 20 April 2013 সাহিত্য-সংস্কৃতি  (পঠিত : 2548) 

আমাদের রাজনৈতিক স্লোগান কি বদলে যাচ্ছে?

আমাদের রাজনৈতিক স্লোগান কি বদলে যাচ্ছে?
     

আবু সাঈদ আনসারী;--

আমাদের স্লোগানের ভাষা এখন অনেক বদলে গেছে। বদলাতে বদলাতে এমন একটা জায়গায় এসে পৌঁছেছে যে, মাঝে মাঝে কোনো কোনো স্লোগান শুনে আমরা বিস্মিত হচ্ছি, আৎকে উঠছি। অথচ আমাদের ভাষা অত্যন্ত মধুর। আমাদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য অত্যন্ত সমৃদ্ধ। কিন্তু কেন জানি আমরা আমাদের ভাষাকে বিকৃত করার পাশাপাশি আমাদের স্লোগানগুলোকেও বিকৃত করে ছাড়ছি। বিশেষ করে আমাদের মধ্যে যারা রাজনীতি করেন তাঁরা রাজনীতির মঞ্চে কিংবা মাঠে ময়দানে যেসব স্লোগান দেন ইদানিংকালে এসব স্লোগান আমাদের মাঝে বিষ ছড়াচ্ছে, আমাদেরকে বিভাজিত করছে।

ষোড়শ শতাব্দীতে ‘স্লোগান’ শব্দের উৎপত্তি ঘটে স্কটল্যান্ডে। আমরা জানি স্কটল্যান্ডের একটা নিজস্ব ভাষা আছে যা Gaelic নামে পরিচিত। স্লোগান শব্দটি ঐ Gaelic। এটা ইংরেজি শব্দ নয়। যদিও ইংরেজি ভাষায় তা Slogan নামে পরিচিত। মূলে তা ছিলো Sluagh-Garim. Gaelic ভাষায় Sluagh মানে হচ্ছে আর্মি আর Garim শব্দের অর্থ হলো চিৎকার, Slogan এর মানে দাঁড়ালো আর্মি বা সেনাবাহিনীর চিৎকার। অবশ্য রাজনৈতিক স্লোগানের যে সংজ্ঞাটা Oxford Dictionary তে আছে তা হলো ‘A motto associated with a political party or movement or other group.'

বৃটিশবিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে রাষ্ট্র ভাষা আন্দোলন, ছয় দফা দাবি, গণঅভ্যুত্থান, একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধ, সিপাহী জনতার বিপ্লব এবং নব্বইয়ের স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের সময় রাজপথে, শহর, বন্দর, গ্রামে-গঞ্জে মিছিলে মিছিলে মানুষ স্লোগানের উপর ভাসছিল। স্লোগানমুখর মানুষের আওয়াজে কাঁপতো রাজপথ। এখনো কাঁপে। কিন্তু এখন রাজপথ কাঁপার সাথে সাথে আমরাও অনেকে আতঙ্কে কাঁপি। স্বজাতির বিরুদ্ধে আমরা যে সমস্ত স্লোগান উচ্চারিত হতে শুনি এসব আমরা বৃটিশ কিংবা পাকিস্তানিদের বিরুদ্ধে করিনি। আমার সহজ সরল দৃষ্টিভঙ্গিতে এখনকার অনেক স্লোগান সভ্য জাতির স্লোগান নয়। অবশ্য যারা সঠিক পন্থায় স্লোগান এখনো দিচ্ছেন তাঁদের কথা ভিন্ন।

এক সময় কবিতার ভাষাই স্লোগান ছিল। কিংবা বলা যায়, অনেক কবিতাই ছিল স্লোগান। অন্নদা শংকরের বিখ্যাত ছড়া ‘তেলের শিশি ভাঙলো বলে খোকার পরে রাগ করো/তোমরা যে সব ধেড়ে খোকা ভারত ভেঙ্গে ভাগ করো’। মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর দ্বিজাতি তত্ত্বের বিরুদ্ধে তা ছিল এক দুর্দান্ত স্লোগান। স্বাধীনতা যুদ্ধ কিংবা বাংলার মুক্তি সংগ্রামে যে সমস্ত কবিতার ভাষা স্লোগান হিসেবে মানুষের মুখে মুখে ছিল, স্বাধীনতার পর সেসব স্লোগানের প্রয়োজনীয়তা কমে যাওয়ায় লোক মুখে শোনা যায় কদাচিৎ।

যেমন- ‘এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’। মুক্তিবাহিনীকে উজ্জীবিত করার জন্য এই একটা চরণই যথেষ্ট ছিল। হেলাল হাফিজ এই কবিতাটি লেখার পর কবি আহসান হাবিব বলেছিলেন, এরপর যদি হেলাল আর কোনো কবিতা না-ই লেখেন, কোনো অসুবিধা নাই...। রফিক আজাদের কবিতাও স্লোগান হিসেবে পোস্টারে দেখা যেতো- ‘ভাত দে হারমজাদা না হলে তোর মানচিত্র খাবো।’

আবার বৃটিশ বিরোধী আন্দোলনে নজরুল এবং সুকান্ত অনেক স্লোগানের জন্ম দিয়েছিলেন তাদের কবিতার মাধ্যমে। যেমন-‘কারার ঐ লৌহ কপাট, এই শিকল পরা ছল’। এ সমস্ত গান মানুষের দু’টি চাহিদাই মিটিয়েছিল, স্লোগান এবং গান। সুকান্তের ‘বন্ধু তোমার ছাড়ো উদযোগ সূতীক্ষ্ন করো চিত্ত। বাংলার মাটি দুর্জয় ঘাঁটি বুঝে নিক দুর্বৃত্ত’। আজো এই কবিতা স্লোগান হিসেবে বিবেচিত।

তাছাড়া, নজরুলের 'উহারা প্রচার করুক, হিংসা বিদ্বেষ আর নিন্দাবাদ। আমরা বলিব সাম্য শান্তি এক আল্লাহ জিন্দাবাদ।' আবার ‘বাজিজে দামামা বাঁধরে আমামা শির উঁচু করি মুসলমান/ দাওয়াত এসেছে নয়া জামানার ভাঙ্গা কেল্লায় উড়ে নিশান।’ এ সমস্ত গান বাঙালি মুসলমানদেরকে অনুপ্রেরণা দিয়েছিল।

আমাদের দেশে আরব বিশ্বের কিছু দেশের মতো ‘আল্লাহু আকবার’ স্লোগান দেয়া হয় বিশেষ করে ইসলামপন্থী দলের এটাই মূল স্লোগান। তারা শুরুতেই ‘নারায়ে তাকবির’ বলেন। নারায়ে আরবি শব্দ যার অর্থ ‘উচ্চ স্বরে বলো’। তাকবির শব্দটির মূল হলো ‘কাবির’ মানে বড়। আল্লাহু আকবার এই দু’টি শব্দ প্রতিদিন নামাজে মুসলমানরা কম হলেও ২৮৯ বার উচ্চারণ করেন। পৃথিবীর তিনটি রাষ্ট্র আফগানিস্তান, ইরাক এবং ইরানের জাতীয় পতাকায় আরবিতে ‘আল্লাহু আকবার’ লেখা আছে। তবে আরব বিশ্বে ‘নারায়ে’ শব্দটা কেউ বলেন না। তারা শুধু ‘তাকবির’ তারপর ‘আল্লাহু আকবার’ এভাবেই স্লোগান দেন।

ইতোমধ্যে আরব বসন্তে মিসর, তিউনিসিয়া এবং লিবিয়াতে আমরা আল্লাহু আকবার স্লোগান শুনেছি। আরব দেশগুলোতে আবার ইসলামপন্থী কিংবা সেকিউলারিস্ট উভয়ে এই স্লোগানে অভ্যস্ত।

কোনো কোনো সময় নাটকের সংলাপ কিংবা পত্রিকার শিরোনাম ও স্লোগান হয়েছে। শেক্সপিয়রের 'All’s Well that Ends well' একটা নাটকের নাম। আবার তা স্লোগানও বটে। রবার্ট ফ্রস্টের বিখ্যাত কবিতা ‘Stopping by woods on a snowy evening’ এর শেষ বিখ্যাত লাইন - But I have promises to keep/ And miles to go before I sleep/ And miles to go before I sleep.' যেন জীবনের এক সংগ্রামী স্লোগান.
Sayed_ansarey@yahoo.co.uk

আবুসাঈদ আনসারী  এর অন্যান্য লিখাঃ


Free Online Accounts Software