23 Nov 2017 : Sylhet, Bangladesh :

সিলেট 30 August 2012 আইন-অপরাধ  (পঠিত : 11695) 

দক্ষিণ সুরমার কলোনীগুলোতে গড়ে উঠেছে মিনি পতিতালয়

     

নগরীর দক্ষিণ সুরমার কয়েকটি কলোনীতে অসামাজিক কার্যকলাপে স্থানীয় জনসাধারণ ুব্ধ হয়ে উঠেছেন। বিশেষ করে কীনব্রীজের নীচের কলোনীগুলো চিহ্নিত স্পট হিসেবে পরিচিত হলেও গত কয়েক মাস থেকে একটি প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় দণি সুরমার কয়েকটি আবাসিক এলাকার কলোনীগুলোতে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছে। এসব কলোনীতে ১০/১২ জন করে দেহপসারণী রেখে কলোনীর মালিকের সহযোগিতায় নির্বিঘেœ অসামাজিক কার্যকলাপ চালিয়ে যাচ্ছে পতিতা সর্দাররা।
এসব পতিতালয়ের অধিকাংশ খদ্দর হচ্ছে উঠতি বয়সী যুবকরা। অভিযোগ রয়েছে এসব স্পটের সংবাদ পুলিশের কাছে থাকলেও অধিকাংশ েেত্রই পুলিশ নীরব ভূমিকা পালন করে। ফলে বীরদর্পে অসামাজিক কাজ চালিয়ে যাচ্ছে অপরাধীরা।
২৫নং ওয়ার্ডের বারখলা আবাসিক এলাকায় জাহাজ বিল্ডিংয়ের পাশে বারখলার জনৈক ব্যক্তির মালিকানাধীন কলোনীতে ৬টি রুমে প্রায় ১০/১২ জন দেহপসারণী রেখে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছে। এছাড়াও গোটাটিকর আবাসিক এলাকায় প্রাইমারী স্কুলের পাশে একটি কলোনী, আদর্শ আবাসিক এলাকায় দক্ষিণ খোজারখলার একটি কলোনী, লালাবাজার বাজারের পাশেই একটি কলোনী, কদমতলী আবাসিক এলাকায় কয়েকটি কলোনী, বাইপাস রোডে পিরোজপুর আবাসিক এলাকায় একটি কলোনী, জৈনপুর বাজারের পাশে একটি কলোনীতে দিন-রাত চলছে অসামাজিক কার্যকলাপ।
বারখলা আবাসিক এলাকার বাসিন্দারা অনেকটা ােভের সহিত জানালেন কয়েক মাস যাবত বারখলার জনৈক ব্যক্তির মালিকানাধীন কলোনীতে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছে। অসামাজিক কার্যকলাপ বন্ধ করার জন্য মালিককে বলা হলেও সে কোন কর্ণপাত করেনি। এখন মালিকের সহযোগিতায় চলছে অসামাজিক কার্যকলাপ। এলাকাবাসীর অভিযোগ কিছু সংখ্যক পুলিশ ও একটি প্রভাবশালী মহল নিয়মিত মাসোহারা পাওয়ায় এসব অপরাধীদের উচ্ছেদ করা হচ্ছে না।
আবাসিক এলাকাগুলোতে অসামাজিক কার্যকলাপ পরিচালনা করায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী। তারা এ ব্যাপারে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর আশু হস্তপে কামনা করছেন।


Free Online Accounts Software