26 Sep 2017 : Sylhet, Bangladesh :

পাথর কুচি পাতা থেকে বিদ্যুত

পাথর কুচি পাতা থেকে বিদ্যুত
     

মাহবুবুর রশিদ;-- সুজলা সুফলা শষ্য শ্যামলা আমাদের এই প্রিয় বাংলাদেশ। দেশে রয়েছে প্রচুর পরিমানে অফুরন্ত প্রাকৃতিক সম্পদ। যে সম্পদগুলোকে সঠিকভাবে কাজে লাগাতে পারলে বাংলাদেশ ও হতে পারে অর্থনৈতিকভাবে একটি সমৃদ্বশালী উন্নয়নশীল দেশ।
পাথর কুচি গাছের সাথে আমরা সকলেই কম বেশী পরিচিতি,যে গাছটির পাতা থেকে গাছ হয়, আরো অবিশ্বাস্য ঘটনা হলো গাছটির পাতা থেকে বিদ্যুত উৎপন্ন হয়। বিদ্যুত সমস্যা সমাধানে যুগান্তকারী এই প্রযুক্তি আবিষ্কার করেছেন বাংলাদেশের কৃতি সন্তান জগন্নাত বিশ্ব্যবিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. কামরুল আলম খান। তিনি কয়েক বছর আগে এ পাতা থেকে বিদ্যুত আবিষ্কার করেন। প্রথমবারের মতো সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার অবহেলিত একটি গ্রামের ৫৭ টি পরিবারে পাথরকুচি পাতা থেকে দেশীয় প্রযুক্তি ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে নতুন সম্ভাবনা জাগিয়ে তুলেছেন । পুরো দেশে যেখানে বিদ্যুত সংকট,লোডশেডিং চলছে-সেই দুঃসময়ে এই শুভ সংবাদ। বর্তমানে আলম অটোলাইট লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্টান এই প্রযুক্তির সামগ্রীগুলো বাজারজাত করছে। পাথরকুচি পাতাকে ব্লান্ডার মিশিনে জুস বানিয়ে কাচের বা প্লাষ্টিকের পাত্রে ঢেলে এ বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হয়। পবিত্র কোরআন শরীফের সূরা ইয়াসিনের ৮৩ নং আয়াতে আছে“তিনি তোমাদের জন্য সবুজ বৃ হতে অগ্নি উৎপাদন করেন এবং তোমরা তা দ্বারা অগ্নি প্রজ্বলিত কর”। এই বিদ্যুৎ দিয়ে এনার্জি¡ বাল্ব, ফ্যান, টেলিভিশন ও পিকেএল রেফ্রিজারেটর ব্যবহার করা যায়। সাধারন বিদ্যুতের েেত্র যেখানে গ্রাহককে প্রতি ইউনিটে খরচ গুনতে হয় ৬ থেকে ১০ টাকা। সেখানে পাথরকুচি পাতা থেকে বিদ্যুৎ মাত্র ১ টাকায় ব্যবহার করা যায়। খুব কম টাকায় এ বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়া যায়। মাত্র এক একর জমিতে উৎপাদিত পাথরকুচি পাতা থেকে বছরে ৬০ থেকে ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব। যাতে খরচ হবে মাত্র ১২ কোটি টাকা। নতুন এই প্রযুক্তিকে কাজে লাগাতে পারলে দেশের বিদ্যুত সমস্যা কিছুটা হলেও সমাধান হতে পারে।
লেখকঃ- সাংবাদিক ও শিক্ষার্থী,সম্পাদকঃ-কানাইঘাট নিউজ e-mail:mahbuburrashid68@yahoo.com মোবাঃ ০১৭২৭৬৬৭৭২০