User Login | | নীতিমালা | 19 Jan 2018 : Sylhet, Bangladesh :
    সংবাদ : মঙ্গলচণ্ডী নিশিকান্ত মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ১৩০ বছর পূর্তি ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান  সংবাদ : মঙ্গলচণ্ডী নিশিকান্ত মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ১৩০ বছর পূর্তি ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান  সংবাদ : মিডল্যাণ্ড ব্যাংক লিমিটেড সিলেট শাখার উদ্বোধন  সংবাদ : 
শিক্ষার্থীদের মেধা ও মননকে কাজে লাগিয়ে
মানুষের সেবার মধ্যে দিয়ে এগিয়ে যেতে হবে   সংবাদ : কেমুসাসের আজ ৯৮২ তম সাহিত্য আসর   সংবাদ : লিডিং ইউনিভার্সিটিতে ‘লাইভ মাস্টার ক্লাস সেশন’ -এ টমি মিয়া  সংবাদ : ৪ নং পশ্চিম গৌরিপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত  সংবাদ : এন জি এফ এফ স্কুলের স্বর্ণালী পাতায় পড়বে কি কালো দাগ?  সংবাদ : এন জি এফ এফ স্কুলের স্বর্ণালী পাতায় পড়বে কি কালো দাগ?  সংবাদ : ফখরুল ইসলাম ছিলেন একজন
প্রতিশ্রুতিশীল আলোকচিত্রশিল্পী  সংবাদ : সাংবাদিক গল্পকার সেলিম আউয়ালের ৫৫তম জন্মদিন পালন  সংবাদ : সাংবাদিক গল্পকার সেলিম আউয়ালের ৫৫তম জন্মদিন পালন  সংবাদ : সিকৃবির ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের 
ওরিয়েন্টেশন সম্পন্ন
  সংবাদ : চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় 
সিলেটের সারাহ্ নাদিম আহমেদ প্রথম  সংবাদ :  কারাগারে হাজতির মৃত্যু
  সংবাদ : সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন  সংবাদ : কবি’র চোখে একফোটা জল  সংবাদ : পলিয়ার ওয়াহিদের ‘সময়গুলো ঘুমন্ত সিংহের’  সংবাদ : সিলেট নগরীতে গ্যাস সংকট: চরম জনদূর্ভোগ  সংবাদ : সিলেট নগরীতে গ্যাস সংকট: চরম জনদূর্ভোগ
sylhetexpress.com এর picture scroll bar এর code. এই কোড যেকোন website এ use করা যাবে।
| সিলেট | মৌলভীবাজার | হবিগঞ্জ | সুনামগঞ্জ | বিশ্ব | লেখালেখি | নারী অঙ্গন | ছবি গ্যালারী | রঙের বাড়ই ব্লগ |

হেমন্তের একটি চমৎকার সন্ধ্যা


27 December 2017

SylhetExpress.com

তাসলিমা খানম বীথি:
সিলেটের শীতলপাটি বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী একটি শিল্প। এ শিল্প আজ বাংলাদেশের সীমানা ছাড়িয়ে বিশ্ব ঐতিহ্যে রূপ নিয়েছে। বাংলার আবহমান সংস্কৃতি ফুটে ওঠে শীতলপাটির গায়ে, অজানা শিল্পীদের মনোজ্ঞ নকশায়। গ্রামের সাধারণ মানুষের হাতে শীতলপাটির গায়ে আঁকা হয় বাংলার প্রকৃতি, মানুষ, পশুপাখি, লতাপাতা, গাছপালা, নদনদী, মানুষের সুখ দুঃখ, আনন্দ বেদনার কথা। নিজেদের জীবনযাপন কিংবা জীবিকা নির্বাহের জন্যে এ পণ্য উৎপাদন করে থাকে তারা। তবে এই শিল্প শুধু গ্রামেই নয় শহরেও রয়েছে এর প্রসার।
প্রচন্ড গরমে একটু স্বস্তির পরশ পেতে একটা সময় মানুষ অনেক কিছুর মতো ছুটে যেতো শীতলপাটির কাছে। অতীতের দিকে তাকালে দেখা যায়, যখন বৈদ্যুতিক পাখা কিংবা এয়ারকন্ডিশনার ছিল না তখন ক্লান্ত তনুমনের একটি উলেøখযোগ্য সঙ্গী ছিল শীতলপাটি। সেই শীতলপাটি আজ আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃতি পেয়েছে। ইউনেস্কোর বিশ্ব নির্বস্তুক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের (ইনটেনজিবল কালচারাল হেরিটেজ অব হিউম্যানিটি) তালিকায় উঠেছে শীতলপাটির নাম। বিশ্বের নির্বস্তুক ঐতিহ্য সংরক্ষণার্থে গঠিত আন্তর্জাতিক পর্ষদের সম্মেলন দক্ষিণ কোরিয়ার জেজু দ্বীপে ৬ ডিসেম্বর ২০১৭ অনুষ্ঠিত হয়। এই সম্মেলনের শেষ পর্বে উঠে এসেছে বাংলাদেশের সিলেটের ঐতিহ্যবাহী কারুশিল্প ‘শীতলপাটি’। ইউনেস্কোর এই ঘোষণার মাত্র ৫ দিনের ব্যবধানে ১১ ডিসেম্বর ২০১৭ সোমবার বৃষ্টি¯স্নাত এক সন্ধ্যায় বিশ্ব নির্বস্তুক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় শীতলপাটির অন্তর্ভূক্তিতে সাহিত্য সংগঠন কৈতর সিলেট-এর উদ্যোগে ‘সিলেটের শীতলপাটির বিশ্বজয়ে আনন্দে অবগাহন : ছড়ায়-ছন্দে শীতলপাটি’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও ছড়াপাঠের আসর অনুষ্ঠিত হয়।
শীতলপাটির বিশ্ব জয়ে হেমন্তের ¯স্নিগ্ধ এক সন্ধ্যায় কৈতর’র আনন্দানুষ্ঠানে সিলেটের কবি, সাহিত্যিক, লেখক, সাংবাদিক ও দেশে ও বিদেশে কর্মরত বিভিন্ন সাংগঠনিক ব্যক্তিত্বরা এসো জড়ো হয়েছিলেন। সেই মঞ্চে দাঁড়িয়ে তারা বলেছিলেন, হারিয়ে যাওয়া শীতলপাটি নিয়ে তাদের হৃদয়ের কথা। কেউ বলেছিলেন গল্পের মধ্য দিয়ে, কেউ বা বলেছিলেন ছড়ায় ছন্দে। কবি নাঈমা চৌধুরী বলছিলেন নববধু হয়ে শ্বশুর বাড়িতে তার যাবার কথা। তারপর শ্বাশুড়ি মায়ের কাছ থেকে শীতলপাটি উপহার পাবার কথা।
আনুষ্ঠানিকতা থাকলেও তাতে ছিলো প্রাণের ছোঁয়া। কৈতর সিলেট-এর চেয়ারম্যান সাংবাদিক-সংগঠক সেলিম আউয়ালের সভাপতিত্বে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেটের প্রবীণ চিত্রশিল্পী অরবিন্দ দাশ গুপ্ত। অনুষ্ঠানে ছড়া পাঠের উদ্বোধন করেন দৈনিক নয়া দিগন্ত পত্রিকার সাহিত্য সম্পাদক কবি জাকির আবু জাফর এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, লেখক সাংবাদিক সাঈদ চৌধুরী, নিউইয়র্কের সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা’র এসিসট্যান্ট এডিটর এমদাদ হোসেন চৌধুরী দীপু, যুক্তরাজ্যে শীতলপাটি প্রদর্শনী আয়োজনের অন্যতম উদ্যোক্তা কাজী মাসুদ, বেতশিল্প প্রস্তুতকারক ও রপ্তানীকারক মো. ওলিউর রহমান সাজন, ছড়াকার কামরুল আলম এবং মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন কলামিস্ট বেলাল আহমদ চৌধুরী।
সিলেট এক্সপ্রেসের স্টাফ রিপোর্টার তাসলিমা খানম বীথি’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রবীণ সাংবাদিক মুহম্মদ বশিরুদ্দিন, দৈনিক জালালাবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আজিজুল হক মানিক, লিটল ম্যাগ ভিন্নধারা সম্পাদক জাহেদুর রহমান চৌধুরী, কবি-সংগঠক ইছমত হানিফা চৌধুরী ও দৈনিক সিলেটের ডাকের বালাগঞ্জ প্রতিনিধি জিলøুর রহমান জিলøু। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ছড়াকার আমীর হোসাইনী।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি প্রবীণ চিত্রশিল্পী অরবিন্দ দাস গুপ্ত বলেন, শীতলপাটি আমাদের গ্রামীণ জীবনের ঐত্যিহ্য বহন করে। আমাদের লোক সংস্কৃতি কতো সমৃদ্ধ তার প্রমাণ বিশ্ব নির্বস্তুক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় সিলেটের শীতলপাটি স্থান পেয়েছে। নি:সন্দেহে এটি সিলেটের মানুষের পরম আনন্দ ও গর্বের বিষয়। এই শীতলপাটি তৈরির পিছনে যাদের অবদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ গ্রামের সেই নারী-পুরুষকে যথার্থ মূল্যায়ন করতে হবে। শীতলপাটির কারিগরদের শ্রম ও মেধাকে যথাযথ মূল্যায়ন করতে হবে, তারা যেন এগিয়ে যেতে পারে, টিকে থাকতে পারে।
শিল্পী অরবিন্দ দাশ গুপ্ত তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে নিজের কাজের কথা তুলে ধরে বলেন, শিল্পের বিকাশে, সুন্দর মনের মানুষ সৃষ্টিতে আমাদের প্রত্যেককে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করতে হবে।

ছড়া পাঠের উদ্বোধক কবি জাকির আবু জাফর আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। তিনি অনুষ্ঠানে একটি দীর্ঘ বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, আমাদের পশ্চাত মানে হলো ঐতিহ্য, পশ্চাত মানে হলো ইতিহাস, পশ্চাত মানে হলো কাহিনি। আজকের এই চমৎকার আয়োজন হেমন্তের প্রায় শেষের দিকে একটি সন্ধ্যায়। আলোকিত হয়ে ওঠেছে সিলেটের কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ। কিছু কিছু সন্ধ্যা মানুষের হৃদয়ে থেকে যায়, কিছু কিছু সন্ধ্যা মানুষের জীবনে স্মৃতি হয়ে যায়। আজকের এই সন্ধাটি তেমনি একটি সন্ধ্যা যা স্মৃতিতে জেগে থাকবে, বেঁচে থাকবে এবং সম্ভবত আলো দিতে থাকবে। সেলিম আউয়াল একজন বড় গল্পশিল্পী, কথাশিল্পী এবং একজন সংস্কৃতিবান মানুষ। তাকে দেখে আমার মনে হয় তিনি একজন আলোকিত মানুষ। তিনি আলো বিলিয়ে যাচ্ছেন তার ভালোবাসা ও কর্মের মধ্যে দিয়ে। আলোর কাজ অন্যকে আলো বিলিয়ে দেয়া। পৃথিবীতে এমন আনন্দ কমই আছে। যে আলো যত বিলানো যায় সে আলো নিজে কমে না, সে কেবল জ্বালাতেই থাকে। আলো জ্বলতে জ্বলতে গোটা পৃথিবীময় হয়ে যায়। কিন্তু যিনি জ্বালান তিনি জ্বলতেই থাকেন। তেমনি সেলিম আউয়াল একজন আলোকিত মানুষ। তিনি আলো দেখিয়ে দেন। তিনি আলোর পথ আবিষ্কার করেন। তেমনি একটি ঘটনা। মাত্র ৬ ডিসেম্বর ঘোষণা হলো আজ ১১ ডিসেম্বর শীতলপাটি নিয়ে আয়োজন। আজকে আমার বেশ আনন্দ লাগছে। এখানে আমার বেশ প্রিয় কিছু মুখ উপস্থিত রয়েছেন। আজকে আমাদের ঐতিহ্য চলে গেছে বিশ্ববাসীর কাছে। এটি আমাদের গর্বের বিষয়, এটি আমাদের আনন্দের বিষয়। এটি আমাদের আরো একটি স্বপ্নজয়ের কাহিনী। বাংলাদেশ এই স্বপ্নটি যখনই উচ্চারণ করি তখন মনে হয় হৃদয়ে কোথায় আর বাংলাদেশ ছাড়া জায়গা বিশিষ্ট নেই।
কবি জাকির আবু জাফর ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পাওয়া শীতলপাটি নিয়ে এরকম ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠানের আয়োজন করায় কৈতরকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, একজন নববধু শীতলপাটি সঙ্গে করে তার নতুন স্বপ্ন নিয়ে নতুন জায়গায় যেত। আজ সেই শীতলপাটি বিশ্বের কাছে চলে গেছে। বাংলাদেশের মাটি তো শীতলপাটি, বাংলাদেশের নদীগুলো শীতলপাটির নকশা। বাংলাদেশের বৃক্ষগুলো শীতলপাটির নকশা। বাংলাদেশের বুকে উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকা পাহাড় সেতো শীতলপাটি। এটি যদি আমরা হৃদয়ে ধারন করি তাহলে ভালোবাসা থেকে, প্রেম থেকে, আবেগ থেকে ঐতিহ্য থেকে সংস্কৃতি থেকে বাংলাদেশ হয়তো বিশ্বের দরবারে অন্যরকম একটি নাম হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাবে।

তিনি বলেন, আমাদের সাহিত্য, সংস্কৃতিতে শীতলপাটিকে ছড়িয়ে দিতে হবে। ভালোবাসা চেয়ে বড় কিছু নেই। বিজয়ী হয় তারা যারা ভালোবাসা দিয়ে যায়। আকাশ থেকে যখন বৃষ্টি নামে তখন মৃত মাটি সজিব হয়ে ওঠে। আমাদেরকে নতুন করে স্বপ্ন দেখতে হবে, স্বপ্ন বুনতে হবে। একজন মা যেমন তার সন্তানকে ভালোবাসা দিয়ে আগলে রাখে, ঠিক তেমনি আমাদের বিশ্ব নির্বস্তুক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় সিলেটের শীতলপাটিকে পরম যতেœ আরো সমৃদ্ধি করতে হবে।

কবি জাকির আবু জাফর আরো বলেন, ছায়া-আনন্দ মানুষ যখন পায় তখন বার বার ছুটে আসে। আপনার দৃষ্টি যখন আকাশের মাঝে ছড়িয়ে দেবেন, দেখবেন সীমানা ছড়িয়ে গেছে। যখন কেউ খারাপ পথে চলে যায়, তখন তাকে ভালোবাসা দিয়ে ফেরাতে হবে। আমাদের দেশ, সমাজ আরো সুন্দর হবে। ব্যারিকেড ভেঙ্গে ডিঙ্গিয়ে বেরিয়ে আসুন দেখবেন হৃদয় বড় হচ্ছে, স্বপ্ন বড় হচ্ছে। নিজের সাথে যে কথা বলবে, সে অন্যের ক্ষতি করতে পারবে না। কারন আত্মার সাথে যে কথা বলে তার তো সময় নেই কারো ক্ষতি করার।

কৈতর’র আনন্দানুষ্ঠানে সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রবীণ সাংবাদিক মুহম্মদ বশিরুদ্দিন বলেন, ছোটবেলা মূর্তা ফুলের মধু খেয়েছি। সেই শীতলপাটি এখন বিশ্বস্বীকৃত। শুধু আমাদের সিলেট জেলা না পুরো বাংলাদেশের সুনাম বাড়িয়েছে এই শীতল পাটি। একসময় শীতলপাটির জায়নামাজ ছিল ঘরে ঘরে। যারা শীতলপাটি তৈরি কাজের সাথে জড়িত তাদের ভাগ্য পরিবর্তন হোক, দিনবদল হোক।

যুক্তরাজ্যে শীতলপাটি প্রদর্শনী আয়োজনের অন্যতম উদ্যোক্তা কাজী মাসুদ বলেন, বিশ্বের দরবারে সিলেটের নাম ওটায় সত্যি আনন্দিত। আমাদের দেশের নারী পুরুষের দক্ষতা, মমতা, ভালোবাসা পরিশ্রমে বুনন করা শীতলপাটি স্বীকৃতি পেয়েছে। গ্রামের মানুষের নিবিড় ভালোবাসায় নিখুঁত হাতে চমৎকারভাবে চিত্রকর্মের মাধ্যমে গ্রামীণ জীবন তুলে ধরছেন তা প্রশংসনীয়। দেশে যেমন এর সম্ভাবনা রয়েছে তেমনি বিদেশেও রপ্তানির সম্ভাবনা রয়েছে। গ্রামের মা বোনদের কাজ যাতে আঞ্চলিক এবং আর্ন্তজাতিকভাবে নিয়ে যাওয়া হয় সেই লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ইউনিট গঠন করে শীতলপাটিসহ আমাদের লোক সংস্কৃতিকে পরিচিত করে তুলতে হবে। শীতলপাটি ইউনেস্কো স্বীকৃতি পেয়েছে সেই আনন্দ নিয়ে আমরা আরো এগিয়ে যাবো। আমার বাল্যবন্ধু গল্পকার সেলিম আউয়াল অবশ্যই অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন আজকের অনুষ্ঠানের জন্য। তবে অন্যান্য সংগঠন এ নিয়ে আয়োজন করলে আরো ভালো লাগতো।

বেতশিল্প প্রস্তুতকারক ও রপ্তানীকারক মো. ওলিউর রহমান সাজন তার বক্তৃতায় বিশে^র বিভিন্ন দেশ ঘুরে বেড়াবার অভিজ্ঞতা ব্যক্ত করে বলেন, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের হোটেল, পর্যটন এলাকায় তাদের হস্তশিল্প সাজিয়ে রাখা হয়েছে। আমাদের শীতলপাটির বাজার সৃষ্টি করতে হবে। সিলেটের ঐতিহ্য শীতলপাটি নিয়ে যারা কাজ করছেন তারা এতটা মূল্যায়িত হচ্ছে না। আমরা যদি তাদেরকে সহযোগিতা করি, মূল্যায়ন করি তাহলে আমাদের বেতশিল্প বা শীতলপাটিকে ভালোভাবে মার্কেটিং করা যাবে। আমরা যত বেশি মার্কেটিং করবো এর সাথে জড়িত শ্রমিকরা অর্থনৈতিভাবে ততো বেশী লাভবান হবে। তাদের কাজ আরো এক ধাপ এগিয়ে যাবে। আমাদের মানুষকে বুঝাতে হবে শীতলপাটির সাথে আমাদের আবেগ ও ভালোবাসা জড়িত। বিদেশে কেউ গেলে সাথে করে নিয়ে যায়। আমাদের ঐতিহ্য শীতলপাটির হস্তশিল্প মেহমানদেরকে উপহার দিলে এটি উপযুক্ত মূল্যায়িত হবে। দেশে ও বিদেশে এটি ছড়িয়ে পড়বে। সিলেটে যদি হস্তশিল্পগুলো প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা হয় তাহলে গ্রামের মানুষ উপকৃত হবেন।

নিউইয়র্কের সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা’র এসিসট্যান্ট এডিটর এমদাদ হোসেন চৌধুরী দীপু বলেন, ইউনেস্কো স্বীকৃতি দেবার জন্যে যারা কাজ করেছেন তাদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। আমি আশাবাদী বেতশিল্পের সাথে জড়িত শিল্পী-ব্যবসায়ীদের নিয়ে এরকম আরো অনুষ্ঠান হবে। যারা এটি নিয়ে কাজ করে তারা অবহেলিত। তাদের জন্য কিছু করতে হবে। সকলের প্রচেষ্টায় এ শিল্পের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। সচেতনতার সাথে সাহিত্য শিল্পে এর ছোঁয়া ধরে রাখতে হবে। শিল্পীর সোনালী আচড়ে এই শিল্প আরো বিকশিত হবে। আমেরিকায় আমি বসবাস করলেও আমি গর্বিত আমার জেলার শিল্প শীতলপাটি বিশ্বের দরবারে স্বীকৃতি পেয়েছে। যারা বিদেশে থাকে তাদের সবসময় মন কাঁদে দেশের জন্য। বিদেশে আভিজাত্যের মধ্যে দেশের কথা মনে পড়লে মন খারাপ হয়। সকল হতাশার মধ্যে এরকম অনুষ্ঠান আমাদের আনন্দ দেয়। সবার আবেগ রয়েছে দেশের জন্য। আমরা প্রবাসী হলেও দেশের জন্য কাজ করার চেষ্টা করি।

ছড়াকার কামরুল আলম বলেন, শীতলপাটি আমরা যত বেশি ব্যবহার করবো তত বেশি আমরা সমৃদ্ধি হবো। আমাদের লেখার মধ্যে দিয়ে দেশের সংস্কৃতিকে তুলে ধরতে হবে।

কবি ইছমত হানিফা চৌধুরী বলেন, শীতলপাটি বিহীন কোন কাজ আমাদের জীবনে নেই। আমাদের সিলেটের ঐতিহ্য শীতলপাটি, জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত আমাদের জীবনযাত্রায় শীতলপাটি জড়িত। রংতুলিতে আঁকা ছবির মত বেতের কাজের মাধ্যমে গ্রামীণ দৃশ্য কিংবা দেশের মানচিত্র ফুটে ওঠে শীতলপাটিতে। আমাদের ঐতিহ্যকে হারিয়ে যেতে দেওয়া যাবে না। এটিকে টিকিয়ে রাখতে হবে।

দৈনিক সিলেটের ডাকের বালাগঞ্জ প্রতিনিধি জিলøুর রহমান জিলøু বলেন, সিলেট অঞ্চলে বিশেষ করে বালাগঞ্জ উপজেলার কিছু গ্রামের নারীদের বড়ো একটি অংশ শীতলপাটির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে বেঁেচ থাকে। তাদের জীবিকা নির্বাহ করে শীতলপাটি বুননের মধ্যে দিয়ে। তাদের সেই কাজের মূল্য দিতে হবে। তাহলে তাদের শ্রম সার্থক হবে।

ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী বলেন, সিলেটের পূণ্যভূমিতে জন্মগ্রহণ করে আমরা গর্বিত। এই মাটিতে জন্ম নিয়েছেন অনেক জ্ঞানী গুনী ব্যক্তি। কৈতর-সিলেট সেই সকল গুণী ব্যক্তিসহ সিলেটের ইতিহাস ঐতিহ্য নিয়ে নিয়ে কাজ করছে। কৈতর সিলেট-র ব্যাপ্তি একদিন আরো প্রসারিত হবে।

সভাপতির বক্তব্যে সাংবাদিক-সংগঠক গল্পকার সেলিম আউয়াল বলেন, আমাদের দেশের শিল্পকে সমৃদ্ধ করতে হলে আমাদেরকে এক সাথে কাজ করতে হবে। গ্রামের সহজ সরল মানুষের পরিশ্রমে তৈরি করা শীতলপাটি আমাদেরকে মূল্যায়ন করতে হবে। আমরা একযোগে কাজ করলে দেশ শিল্প সংস্কৃতিতে আরো সমৃদ্ধিশালী হবে।
অনুষ্ঠানের বড়ো আকর্ষণ ছিলো ‘ছড়ায়-ছন্দে শীতলপাটি’ শীর্ষক লেখাপাঠে অংশ নেন, ঔপন্যাসিক সিরাজুল হক, কবি নাঈমা চৌধুরী, ঔপন্যাসিক আলেয়া রহমান, কবি পৃথ্বিশ চক্রবর্তী, ছড়াকার নজমুল হক চৌধুরী, কবি জালাল জয়, ছড়াকার সৈয়দ মুক্তদা হামিদ, প্রভাষক শাহ সরোয়ার আলী, ছড়াকার আমীর হোসাইনী ও ছড়াকার মুয়াজ বিন এনাম প্রমুখ।
রচনা-১৩ ডিসেম্বর ২০১৭






ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকী (অবঃ)

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকী (অবঃ)
আব্দুল হামিদ মানিক

আব্দুল হামিদ মানিক
ইকবাল বাহার সুহেল

ইকবাল বাহার সুহেল
বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল

বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল
শফিকুল ইসলাম<br>প্রা. মেট্রোপলিটান ম্যাজিষ্ট্রেট

শফিকুল ইসলাম
প্রা. মেট্রোপলিটান ম্যাজিষ্ট্রেট
হারান কান্তি সেন

হারান কান্তি সেন
সেলিম আউয়াল

সেলিম আউয়াল
জসীম আল ফাহিম

জসীম আল ফাহিম
এ.এইচ.এস ইমরানুল ইসলাম

এ.এইচ.এস ইমরানুল ইসলাম
মোহাম্মদ রমিজ উদ্দিন

মোহাম্মদ রমিজ উদ্দিন
দীপন জুবায়ের

দীপন জুবায়ের
শাহাদাত চৌধুরী

শাহাদাত চৌধুরী
আজিম হিয়া

আজিম হিয়া
জালাল আহমেদ জয়

জালাল আহমেদ জয়
সাঈদ নোমান

সাঈদ নোমান
সৌমেন রায় নীল

সৌমেন রায় নীল
জিবলু রহমান

জিবলু রহমান
কাউসার চৌধুরী

কাউসার চৌধুরী
	তাবেদার রসুল বকুল

তাবেদার রসুল বকুল
শাহ মিজান

শাহ মিজান
পহিল হাওড়ী (মোঃ আবু হেনা পহিল)

পহিল হাওড়ী (মোঃ আবু হেনা পহিল)
মিহির রঞ্জন তালুকদার

মিহির রঞ্জন তালুকদার
Ibrahim khalil

Ibrahim khalil
মাহমুদ পারভেজ

মাহমুদ পারভেজ
মোঃ রফিকুল হক

মোঃ রফিকুল হক
মামুন হোসেন বিলাল

মামুন হোসেন বিলাল
সাকিব আহমদ মিঠু

সাকিব আহমদ মিঠু
রাহিকুল ইসলাম চৌধুরী

রাহিকুল ইসলাম চৌধুরী
সালাহ্‌ আদ-দীন

সালাহ্‌ আদ-দীন
মুহিউল ইসলাম চৌধুরী মাহিম

মুহিউল ইসলাম চৌধুরী মাহিম
সৈয়দ কাওছার আহমদ

সৈয়দ কাওছার আহমদ
সানৌ সিংহ

সানৌ সিংহ
তাজুল ইসলাম

তাজুল ইসলাম
মুসা আল হাফিজ

মুসা আল হাফিজ
মুনশি আলিম

মুনশি আলিম
মারুফ আহমদ

মারুফ আহমদ
জি.এম. নজরুল ইসলাম

জি.এম. নজরুল ইসলাম
      সৈয়দ মবনু

সৈয়দ মবনু
ছাদিকুর রহমান

ছাদিকুর রহমান
লুৎফুর রহমান

লুৎফুর রহমান
Muhammad Altaf Husain

Muhammad Altaf Husain
আলমগীর হুসাইন

আলমগীর হুসাইন
মোশাররফ হোসেন সুজাত

মোশাররফ হোসেন সুজাত
minhaz foysol

minhaz foysol
লেখক মেলা

লেখক মেলা
হাসনাইন সাজ্জাদী

হাসনাইন সাজ্জাদী
লুৎফুর রহমান তোফায়েল

লুৎফুর রহমান তোফায়েল
মোহাম্মদ আব্দুল হক

মোহাম্মদ আব্দুল হক
মোহাম্মদ সায়েস্তা মিয়া

মোহাম্মদ সায়েস্তা মিয়া
হারূন আকবর

হারূন আকবর
গোলাম ইউসুফ সাগর

গোলাম ইউসুফ সাগর
ডাঃ আব্দুল হাই মিনার

ডাঃ আব্দুল হাই মিনার
রাফিদুৃল ইসলাম চৌধুরী

রাফিদুৃল ইসলাম চৌধুরী
ফারহান সাদিক

ফারহান সাদিক
হাসনাত হাওড়ী

হাসনাত হাওড়ী
আফতাব চৌধুরী

আফতাব চৌধুরী
সাইয়িদ শাহীন

সাইয়িদ শাহীন
মাওলানা তাইজুল ইসলাম ফয়েজ

মাওলানা তাইজুল ইসলাম ফয়েজ
শাহ নজরুল ইসলাম

শাহ নজরুল ইসলাম
 মোঃ ওয়াহিদুল হক

মোঃ ওয়াহিদুল হক
মুহাম্মদ রুহুল আমীন নগরী

মুহাম্মদ রুহুল আমীন নগরী
আমিনুল ইসলাম সফর

আমিনুল ইসলাম সফর
মিজানুর রহমান মিজান

মিজানুর রহমান মিজান
মোহাম্মদ আব্দুল হাই

মোহাম্মদ আব্দুল হাই
মুহাম্মদ মনজুর হোসেন খান

মুহাম্মদ মনজুর হোসেন খান
ডা. রায়হান কবীর খান

ডা. রায়হান কবীর খান
এনাম  চৌধুরী

এনাম চৌধুরী
আই. এ. জীবন

আই. এ. জীবন
ওলীউর রহমান

ওলীউর রহমান
আবুসাঈদ আনসারী

আবুসাঈদ আনসারী
ফয়সাল আহমদ ভূঁইয়া

ফয়সাল আহমদ ভূঁইয়া
Saifuddin Md. Khaled

Saifuddin Md. Khaled
নাজমুল হক

নাজমুল হক
আব্দুল্লাহ আল শাহীন

আব্দুল্লাহ আল শাহীন
আবু মালিহা

আবু মালিহা
সুলায়মান আল মাহমুদ

সুলায়মান আল মাহমুদ
নাজমুল ইসলাম মকবুল

নাজমুল ইসলাম মকবুল
নূরুন্নেছা চৌধুরী রুনী

নূরুন্নেছা চৌধুরী রুনী
মাহবুবা সামসুদ

মাহবুবা সামসুদ
আমেনা আফতাব

আমেনা আফতাব
ইছমত হানিফা চৌধুরী

ইছমত হানিফা চৌধুরী
সুফিয়া জমির ডেইজী

সুফিয়া জমির ডেইজী
নীলিমা আক্তার

নীলিমা আক্তার
মাছুমা আক্তার চৌধুরী রেহানা

মাছুমা আক্তার চৌধুরী রেহানা
নাঈমা চৌধুরী

নাঈমা চৌধুরী
অয়েকপম অঞ্জু

অয়েকপম অঞ্জু
তাসলিমা খানম বীথি

তাসলিমা খানম বীথি
মাজেদা বেগম মাজু

মাজেদা বেগম মাজু
সালমা বখ্ত্ চৌধুরী

সালমা বখ্ত্ চৌধুরী
শামসাদ হুসাম

শামসাদ হুসাম
রায়হানা বারী রেখা

রায়হানা বারী রেখা
জান্নাতুল শুভ্রা মনি

জান্নাতুল শুভ্রা মনি
রিমা বেগম পপি

রিমা বেগম পপি
আলেয়া রহমান

আলেয়া রহমান
রওশন আরা চৌধুরী

রওশন আরা চৌধুরী
আমিনা শহীদ চৌধুরী মান্না

আমিনা শহীদ চৌধুরী মান্না
মাসুদা সিদ্দিকা রুহী

মাসুদা সিদ্দিকা রুহী


লেখালেখি পাতার সর্বশেষ পাঠানো লিখাঃ

এসো ভিড় করি


সরওয়ার ফারুকী:
এসো জান্নাতের পথে ভিড় করি
হৈ হৈ ছুটে যাই
নববর্ষের মতো খুশদিলে নামি
ঈদের ভোরের মতো চঞ্চল হই
এসো উৎসের পথে কিষাণের মতো প্যাঁচকোঁচ মারি
নবান্নের মতো পুণ্যেরে মাড়াই ।
কদম ফুলের মতো বেশুমার ফুটি রাখালিয়া সুর হই খেতে
এসো ডাকাডাকি করি দলবেঁধে ফিরি ঘরে
ছু ...Details...


গল্পকারের পঞ্চান্ন ও সেলিম আউয়াল ভাই


জহীর মুহাম্মদ: বলছিলাম শক্তিমান সাংবাদিক ও জনপ্রিয় গল্পকার সেলিম আউয়ালের কথা। সব বিশেষণ ছাপিয়ে যিনি স্বমহিমায় ভাস্বর। যারাই সান্নিধ্য পেয়েছেন তাদের কাছে খুব বেশী প্রিয় একটি নাম সেলিম আউয়াল। সবার হৃদয়ে সমভাবে বসত করে নেয়া সেলিম আউয়ালকে মিডিয়া ও সাহিত্যের সাথে জড়িত কারো কাছে নতু ...Details...


শুভেচ্ছা ছড়া


মুয়াজ বিন এনাম:
(শুভ জন্মদিন প্রিয় গল্পকার সেলিম আউয়াল নিবেদিত ছড়া)
জুঁই-বেলি, চামেলি ও বকুলের গন্ধে
জোনাকিরা নাচ্ছিলো কীযে মহানন্দে
পাখিগুলো গাইছিলো, দুলছিলো মন যে
রত্নটা এসেছিলো হেসে বালাগঞ্জে।
গল্পের শুরু হলো কোনো এক পৌষে
ঘ্রাণ নিয়ে করছিলো একা মৌ মৌ সে
ছড়ালো তা পৃ ...Details...


আমার দেখা ৫৫ বছর বয়সের টগবগে এক যুবক শ্রদ্ধেয় সেলিম আউয়াল


মাহমুদুল হাসান :পৃথিবীতে মানুষ জন্মগ্রহণের পর বিদাতার ইশারায়, শিশু থেকে কিশোর, কিশোর থেকে যুবক, যুবক থেকে বৃদ্ধ হয়। আশা আর ভরসার ভেলা ভেসে-চলা মানুষ কেউ হয় বয়সের ভারে বৃদ্ধ কেউ আবার অনেক বয়স হলেও মনোবলের যোগদানে টগবগে যুবকে পরিণত থাকেন। আমার চোখে দেখা তেমনি একজন টগবগে ৫৫ বছর বয়সের অ ...Details...


সিলেটের সাহিত্যাঙ্গনে একজন সু সাহিত্যিক গল্পকার সেলিম আউয়াল


এম এ আসাদ চৌধুরী: সেলিম আউয়াল, একজন লেখক, সংগঠক ও সাংবাদিক।২০১৬ সালে আমার প্রথম কাব্যগ্রন্থ কবিতার জন্য ভালোবাসা'র প্রকাশনা উৎসবের অতিথি শনাক্তে কবি সিদ্দিক আহমদ ভাইর মুখে আসে সেলিম আউয়াল সাহেবের নাম।দাওয়াত দেয়া হলো তিনি আসলেন, দেখলাম, চিনলাম, অতঃপর জানলাম সেলিম আউয়াল শুধু মাত্র এ ...Details...


উত্তপ্ত আরব বিশ্ব!সমাধান কোথায়


আবু বকর সিদ্দিক: একবিংশ শতাব্দীতে সারা বিশ্ব সকল মানুষকে শান্তিতে রাখার জন্য অংগীকার করেছে।কিন্তু দু:খজনক বিশ্বের প্রতিটি দেশের রাষ্টপ্রধান তাদের নিজেদের তৈরী করা চুক্তি থেকে বের হয়ে এসেছে।দুই যুগ যেতে না যেতেই মধ্যপ্রাচ্য সহ সকল দেশের অবস্থা সংকটাপন্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। ব্যক্ত ...Details...


জন্মভূমি ত্যাগিলো মোরে


বদরুজ্জামান জামান:
জন্মভূমি ত্যাগিলো মোরে , জানিনা কোন দোষে।
যাযাবর ভবঘূরে আর উদ্বাস্তু জীবণ সুখে
অর্জন বিসর্জনে চলে গেল একযুগ।
দগ্ধচিত্ত যন্ত্রণার আলিঙ্গনে স্বপ্ন দেখি তৃপ্তসুখে-
আমি তো এখনো জ্যান্ত।
সহোদর স্বজন ত্যাগিলো মোরে, বিত্ত ভৈবব চিত্তসুখ স্বপ্নে।
তাকা ...Details...


জাগো বিশ্ব মুসলমান


মোহাম্মদ ইমাদ উদ্দীন:
ইসলামের আলো নিভাতে আজি
পশ্চিমা শক্তি জেগেছে।
বিশ্ব মুসলিম জাগরে জাগ
করিস না আর দেরী।
উপড়ে দিতে হবে সব ষড়যন্ত্র ওদের
করে দিতে হবে ধুলিসাৎ ওদের সব প্রাচীর।
জাগো বিশ্ব মুসলিম
জাগরে এবার জাগ।
মৃত্যুকে ভয় করিস না কভু
ভয় করিস না শত্রুর মেশিনগান।< ...Details...


বঙ্ এ


মোহাম্মদ আব্দুল হক:
হুক্কাহুয়া হুক্কাহুয়া
নীতিকথা সব ভুয়া।
ঘুষখোর বলি তাই
তিনি আজ সাথে নাই।
শিয়ালেরা একজোট
মানুষের নাই ভোট।
নীতি কাঁদে ফুঁপিয়ে
ঘুষখোর জিপি এ।
গুম খুন বঙ্ এ
চলে নানা ঢঙ্ এ। ইদুরের কুট কুট
শকুনির রাঙা ঠোঁট।
...Details...


নীল প্রজাপতি


মিজানুর রহমান মিজান:
মুক্তস্বাধীন শৈশব , নীলাকাশ , চরাচর
ডানামেলে নীল প্রজাপতি আনন্দে অন্তহীন।
বয়ে চলা নদী সদৃশ , লক্ষ্য অনন্ত সাগর
নদী ও মাঝে মাঝে লজ্জাবতী হয়
শৈশবের মতো অফুরন্ত অবয়বে
যৌবন বার্ধ্যক্য অবশ্যম্ভাবী পরিণাম
বিমুক্ত নয় ঐ উদিত ভাস্বর;
বেলা শেষে স্মৃতি বিস্ ...Details...


লেখালেখি পাতার সর্বাধিক পঠিত লিখাঃ

মমতাময়ী বীথির জন্য অনেক শুভ কামনা (4714 বার পঠিত)


এম এ আসাদ চৌধুরী: সিলেট শহরের একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে বীথি। তার পুরো নাম তাসলিমা খানম বীথি। বাবা-মা আর বোন নিয়ে তাদের পরিবার। তিন বোনের মধ্যে সে মেঝো। তার কোনো ভাই নেই। পড়ালেখা শেষ করে সিলেটে প্রথম অনলাইন নিউজ পোর্টালের স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কাজ করছে। সিলেট এক্সপ্রেসের কাজে ...Details...


৭১ এ কানাইঘাট (2268 বার পঠিত)


আবু বকর সিদ্দিক: বাংলাদেশের উত্তর -পূর্ব সীমান্তের একটি সমৃদ্ধ জনপথ হচ্ছে কানাইঘাট। সিলেট শহর থেকে অদূরে প্রকৃতির লীলাভূমি সমৃদ্ধ ইতিহাস সমৃদ্ধ একটি জায়গা হলো কানাইঘাট।কানাইঘাট এর মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বাংলাদেশের অন্যান্য যেকোন অঞ্চলের চেয়ে কম নয়।এখানে মানুষ রক্ত দিয়েছে।অনে ...Details...


রাজনীতির আয়নায় উজ্জ্বল ফেঞ্চুগঞ্জের রাজনীতিবিদ মরহুম তজমুল অালী চেয়ারম্যান (1056 বার পঠিত)


মো. আব্দুল বাছিত: পৃথিবীতে বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন স্থানে সময়ের প্রেক্ষাপটে কিছু মহত এবং আত্মত্যাগী মানুষের আবির্ভাব ঘটে। যারা কোনো সময়ই নিজের কথা ভাবেন না, ভাবেন সমাজ ও দেশের কথা, মানুষের কল্যাণের চিন্তাই যাদের ধ্যান এবং জ্ঞান হয়ে যায়। সমাজ ও রাষ্ট্রের জন্য কিছু করতে পারলে যাদের অন্ ...Details...


চেতনার ঋদ্ধ আবাস (611 বার পঠিত)


এম এ ফাত্তাহ: ছান্দিক দেহাবেশে কাব্যকলার অতল রস শ্রাবণের বৃষ্টি যেন অবিরাম অঝরধারা এক পশলা সুখের পরশ; তুৃমি এলে সহাস্যে সন্তর্পণে তিলে তিলে গড়ে নিলে চেতনার ঋদ্ধ অবাস। অগাধ আস্থায় যারে আটকায়ে রাখি সাধনায় শুদ্ধ একরোখা মন ক্ষণিকের মরীচিকা জাগতিক প্রলোভন চাওয়া পাওয়ার বারমাসী ফর ...Details...


বেগম রোকেয়া ও বাঙালি নারী জাগরণ (502 বার পঠিত)


মোহাম্মদ আব্দুল হক:বাংলাদেশের নারী সমাজ প্রসঙ্গ এবং এদেশে নারীদের মর্যাদা বিষয়ে কথা উঠলে যে কজন মহীয়সী নারীর নাম মনে পড়ে ও যাঁদের সংগ্রামী জীবনপথ চোখের সামনে ভেসে চলে আসে তাদের মধ্যে অগ্রবর্তী হচ্ছেন বেগম রোকেয়া। বেগম রোকেয়া যেন এক তেজোদীপ্ত চেতনার আলোকের নাম। শুধু বাংলাদেশ নয় স ...Details...


কবি হাসনাইন সাজ্জাদী : বিজ্ঞান কবিতার স্বপ্নপুরুষ (501 বার পঠিত)


বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল: হাসনাইন সাজ্জাদী বিজ্ঞান কবিতার প্রবর্তক। তিনি কবি সমাজচিন্তক ও সংগঠক। বর্তমানে বাংলা কবিতায় বিজ্ঞানমনষ্কতা নিয়ে আসার পাশাপাশি আরো বহু দিকে তার কর্ম বিস্তারিত রয়েছে। তবে কবিতায় বিজ্ঞানবাদই তাকে আকর্ষণ করেছে বেশি। তিনি প্রবলভাবে ঝুঁকে পড়েছেন বিজ্ঞান কবিত ...Details...


জ্বলছে আরাকান, পুড়ছে মানব!প্রশ্নবিদ্ধ মানবতা! (495 বার পঠিত)


আবু বকর সিদ্দিক:মনে করুন আপনি প্রতিদিনের মত আজকের দিনেও সব কাজকর্ম শেষ করে বাসার সবার সাথে রাত্রে খেয়েদেয়ে ঘুমিয়ে পড়লেন। মধ্যরাত হঠাৎ শুনতে পেলেন চিৎকার উত্তেজনা দূর থেকে ভেসে আসছে মানুষের কান্না।কখনো বা কানে আসছে বোমার শব্দ আবার কখনো দেখতে পাচ্ছেন দূরে কোথায় ও আগুনের লিলিহান শি ...Details...


মানবাধিকার দিবসে আমাদের প্রত্যাশা (424 বার পঠিত)


জাহাঙ্গীর হোসাইন চৌধুরী: মানবাধিকার শব্দটিকে ভাঙ্গলে দু’টি শব্দ পাওয়া যাবে, একটি মানব ও অন্যটি অধিকার। মানবাধিকার শব্দের মাধ্যমে বুঝানো হয়েছে মানুষের অধিকারকে। মানবাধিকার মানুষ হিসাবে তার মৌলিক অধিকার গুলোকে বুঝায়, সহজ ভাষায় মানবাধিকার হচ্ছে মানুষের সহজাত অধিকার যা যে কোন মান ...Details...


উপহার (350 বার পঠিত)


ছালিক আমীন:
(তাসলিমা খানম বীথি আপুর জন্মদিনে নিবেদিত)
একটা "সভ্য পৃথিবী" তোমার জন্যে। তুমি সেই পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ হয়ে- সুবাস ছড়াও আকাশে-বাতাসে। জনমের পর থেকে- যেই ভাবে ছড়িয়ে যাচ্ছিল- তোমার পূর্বপুরুষ।
. জানি তোমরা অবলা নারী।
পুরুষ- তোদের "নীরব মাটির" সাথে উপমা দেয়। কিন্ত তুমি এই ...Details...


আমার অপরাধ (338 বার পঠিত)


মিজানুর রহমান মিজান:
চেয়েছিলাম একটু শান্তির নীড়, সুখের পরশ
তোদের মাঝে খুজে পাবো বেদনার উপসর্গ।
কোন বিষ পাত্রে চুমুক দিয়েছি আবেগের বশে নিজেই জানিনা।
পদে পদে বিপদ সংকুল পথে করেছ কণ্ঠিত
একি তোদের অভিলাষ?সাহচর্যে যদি কেউ সোনার
হরিণের অন্বেষায় চলে, চুপিসারে তার টুটি চেপে ধর ...Details...


লেখালেখি
ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকী (অবঃ)
আব্দুল হামিদ মানিক
শফিকুল ইসলাম
প্রা. মেট্রোপলিটান ম্যাজিষ্ট্রেট
ইকবাল বাহার সুহেল
হারান কান্তি সেন
সেলিম আউয়াল
বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল
এ.এইচ.এস ইমরানুল ইসলাম
জসীম আল ফাহিম
সৌমেন রায় নীল
সাকিব আহমদ মিঠু
রাহিকুল ইসলাম চৌধুরী
সালাহ্‌ আদ-দীন
ছাদিকুর রহমান
সাঈদ নোমান
জালাল আহমেদ জয়
পহিল হাওড়ী (মোঃ আবু হেনা পহিল)
শাহ মিজান
তাবেদার রসুল বকুল
কাউসার চৌধুরী
নারী অঙ্গন
নূরুন্নেছা চৌধুরী রুনী
ইছমত হানিফা চৌধুরী
আমেনা আফতাব
মাহবুবা সামসুদ
সুফিয়া জমির ডেইজী
নীলিমা আক্তার
মাছুমা আক্তার চৌধুরী রেহানা
সালমা বখ্ত্ চৌধুরী
রিমা বেগম পপি
রওশন আরা চৌধুরী
অয়েকপম অঞ্জু
আমিনা শহীদ চৌধুরী মান্না
জান্নাতুল শুভ্রা মনি
মাসুদা সিদ্দিকা রুহী
আলেয়া রহমান
মাজেদা বেগম মাজু
নাঈমা চৌধুরী
শামসাদ হুসাম
তাসলিমা খানম বীথি
রায়হানা বারী রেখা

সাহিত্য-সংস্কৃতি পাতার আলোচিত লিখা
.: 3 weeks ago : :.
মমতাময়ী বীথির জন্য অনেক শুভ কামনা (4714 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

এম এ আসাদ চৌধুরী: সিলেট শহরের একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে বীথি। তার পুরো নাম তাসলিমা খানম বীথি। বাবা-মা আর বোন নিয়ে তাদের পরিবার। তিন বোনের মধ্যে সে মেঝো। তার কোনো ভাই নেই। পড়ালেখা শেষ করে সিলেটে প্রথম অনলাইন নিউজ পোর্টালের স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কাজ করছে। সিলেট এক্সপ্রেসের কাজে Details...


.: 4 weeks ago : নারী অঙ্গন :.
যাকে ফুফু বলে ডেকে তৃপ্তি পাই (3224 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

তাসলিমা খানম বীথি: ১. সেই শৈশবেই ফুফুকে হারিয়েছি। তবে এখনো কিছুটা স্মৃতি মনে আছে। ছোটবেলা যখন আব্বা আম্মার সাথে ফুফুর বাড়ি যেতাম। তখন কী যে ব্যস্ত হতেন ফুফু, আমাদের জন্য। কী খাওয়াবেন না খাওয়াবেন। বিকেল হলে আমাদের দুই বোনকে নিয়ে ফুফু গ্রামের ছোট্ট মেঠো পথে দিয়ে হেঁটে নিজের হাতে করা Details...


.: 3 weeks ago : :.
৭১ এ কানাইঘাট (2268 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

আবু বকর সিদ্দিক: বাংলাদেশের উত্তর -পূর্ব সীমান্তের একটি সমৃদ্ধ জনপথ হচ্ছে কানাইঘাট। সিলেট শহর থেকে অদূরে প্রকৃতির লীলাভূমি সমৃদ্ধ ইতিহাস সমৃদ্ধ একটি জায়গা হলো কানাইঘাট।কানাইঘাট এর মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বাংলাদেশের অন্যান্য যেকোন অঞ্চলের চেয়ে কম নয়।এখানে মানুষ রক্ত দিয়েছে।অনে Details...


.: 3 weeks ago : :.
রাজনীতির আয়নায় উজ্জ্বল ফেঞ্চুগঞ্জের রাজনীতিবিদ মরহুম তজমুল অালী চেয়ারম্যান (1056 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

মো. আব্দুল বাছিত: পৃথিবীতে বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন স্থানে সময়ের প্রেক্ষাপটে কিছু মহত এবং আত্মত্যাগী মানুষের আবির্ভাব ঘটে। যারা কোনো সময়ই নিজের কথা ভাবেন না, ভাবেন সমাজ ও দেশের কথা, মানুষের কল্যাণের চিন্তাই যাদের ধ্যান এবং জ্ঞান হয়ে যায়। সমাজ ও রাষ্ট্রের জন্য কিছু করতে পারলে যাদের অন্ Details...


.: 3 weeks ago : নারী অঙ্গন :.
হেমন্তের একটি চমৎকার সন্ধ্যা (745 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

তাসলিমা খানম বীথি: সিলেটের শীতলপাটি বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী একটি শিল্প। এ শিল্প আজ বাংলাদেশের সীমানা ছাড়িয়ে বিশ্ব ঐতিহ্যে রূপ নিয়েছে। বাংলার আবহমান সংস্কৃতি ফুটে ওঠে শীতলপাটির গায়ে, অজানা শিল্পীদের মনোজ্ঞ নকশায়। গ্রামের সাধারণ মানুষের হাতে শীতলপাটির গায়ে আঁকা হয় বাংলার প্রকৃত Details...


.: 2 weeks ago : নারী অঙ্গন :.
ডিবির প্রেমে বিবি (719 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

ইছমত হানিফা চৌধুরী: হাওরের দেশ সিলেট। যেমন পাহাড়, টিলার সমারোহ, তেমনি হাজারও ছোট বড় হাওর, যা বর্ষায় কিংবা আষাঢ়ে মেঘের গর্জনে কাছে ডাকে, তেমনি এই হাওর শীতের কুয়াশার সাথে মায়াবি ঘ্রাণ ছড়ায়। সেই ঘ্রাণে ভেসে আসে শাপলা শালুকের মায়া, আবার সেই ঘ্রাণে ভেসে বেড়ায় নিঝুম দ্বীপের ছায়া, মানুষ প্র Details...


.: 1 week ago : :.
আমার দেখা ৫৫ বছর বয়সের টগবগে এক যুবক শ্রদ্ধেয় সেলিম আউয়াল (681 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

মাহমুদুল হাসান :পৃথিবীতে মানুষ জন্মগ্রহণের পর বিদাতার ইশারায়, শিশু থেকে কিশোর, কিশোর থেকে যুবক, যুবক থেকে বৃদ্ধ হয়। আশা আর ভরসার ভেলা ভেসে-চলা মানুষ কেউ হয় বয়সের ভারে বৃদ্ধ কেউ আবার অনেক বয়স হলেও মনোবলের যোগদানে টগবগে যুবকে পরিণত থাকেন। আমার চোখে দেখা তেমনি একজন টগবগে ৫৫ বছর বয়সের অ Details...


.: 3 weeks ago : :.
জ্বলছে আরাকান, পুড়ছে মানব!প্রশ্নবিদ্ধ মানবতা! (495 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

আবু বকর সিদ্দিক:মনে করুন আপনি প্রতিদিনের মত আজকের দিনেও সব কাজকর্ম শেষ করে বাসার সবার সাথে রাত্রে খেয়েদেয়ে ঘুমিয়ে পড়লেন। মধ্যরাত হঠাৎ শুনতে পেলেন চিৎকার উত্তেজনা দূর থেকে ভেসে আসছে মানুষের কান্না।কখনো বা কানে আসছে বোমার শব্দ আবার কখনো দেখতে পাচ্ছেন দূরে কোথায় ও আগুনের লিলিহান শি Details...


.: 1 week ago : :.
গল্পকারের পঞ্চান্ন ও সেলিম আউয়াল ভাই (481 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

জহীর মুহাম্মদ: বলছিলাম শক্তিমান সাংবাদিক ও জনপ্রিয় গল্পকার সেলিম আউয়ালের কথা। সব বিশেষণ ছাপিয়ে যিনি স্বমহিমায় ভাস্বর। যারাই সান্নিধ্য পেয়েছেন তাদের কাছে খুব বেশী প্রিয় একটি নাম সেলিম আউয়াল। সবার হৃদয়ে সমভাবে বসত করে নেয়া সেলিম আউয়ালকে মিডিয়া ও সাহিত্যের সাথে জড়িত কারো কাছে নতু Details...


.: 3 weeks ago : :.
উপহার (350 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

ছালিক আমীন:
(তাসলিমা খানম বীথি আপুর জন্মদিনে নিবেদিত)
একটা "সভ্য পৃথিবী" তোমার জন্যে। তুমি সেই পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ হয়ে- সুবাস ছড়াও আকাশে-বাতাসে। জনমের পর থেকে- যেই ভাবে ছড়িয়ে যাচ্ছিল- তোমার পূর্বপুরুষ।
. জানি তোমরা অবলা নারী।
পুরুষ- তোদের "নীরব মাটির" সাথে উপমা দেয়। কিন্ত তুমি এই Details...



www.SylhetExpress.com - First Online NEWS Paper in Sylhet, Bangladesh.

Editor: Abdul Baten Foisal Cell : 01711-334641 e-mail : news@SylhetExpress.com
Editorial Manager : Abdul Muhit Didar Cell : 01730-122051 e-mail : syfdianews@gmail.com
Photographer : Abdul Mumin Imran Cell : 01733083999 e-mail : news@sylhetexpress.com
Reporter : Mahmud Parvez Staff Reporter : Taslima Khanom Bithee

Designed and Developed by : A.S.H. Imranul Islam. e-mail : imranul.zyl@gmail.com

Best View on Internet Explore, Mozilla Firefox, Google Chrome
This site is owned by Sylhet Sifdia www.sylhetexpress.com
copyright © 2006-2013 SylhetExpress.com, All Rights Reserved