User Login | | নীতিমালা | 29 Jun 2017 : Sylhet, Bangladesh :
    সংবাদ : নবীগঞ্জে সিএনজি ও প্রাইভেট মাইক্রোর মুখোমুখি সংঘর্ষে 
মা ছেলেসহ নিহত ৩ আহত ৮  সংবাদ : 
গ্রেনফেল টাওয়ারে  মৌ’বাজারের হোসনা ও তার মায়ের  লাশ শনাক্ত
  সংবাদ : জাতিসংঘে অনুষ্ঠিত সিএমডবি¬উ’র নির্বাচনে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে বাংলাদেশের প্রার্থী নির্বাচিত    সংবাদ : দক্ষিণসুরমা প্রবীণ মুরব্বি  আলহাজ্ব শাহ মনির আলী আর নেই,শুক্রবার জানাযা  সংবাদ : 
এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়  সংবাদ :  মৌলভীবাজার জেলার পর্যটন এলাকায় ভ্রমন পিপাসুদের্ ভীড়  সংবাদ :  মৌলভীবাজার জেলার পর্যটন এলাকায় ভ্রমন পিপাসুদের্ ভীড়  সংবাদ :  মৌলভীবাজার জেলার পর্যটন এলাকায় ভ্রমন পিপাসুদের্ ভীড়  সংবাদ :  মৌলভীবাজার জেলার পর্যটন এলাকায় ভ্রমন পিপাসুদের্ ভীড়  সংবাদ : সূর্য্যদয় এতিম স্কুলের এতিম শিক্ষার্থীদের
মাঝে ঈদের পরিধেয় সামগ্রী বিতরণ  সংবাদ : নগরীতে নেই চিরচেনা যানযট আর পথচারীদের ভীড়  সংবাদ : চুনারুঘাটের চা বাগানে ঈদ আনন্দ ভ্রমনে বাংলাদেশ
সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্টার সৈয়দ দিলজার হোসেন   সংবাদ :  সিএনজি ফিলিং স্টেশনে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ
  সংবাদ : কানাডার শহরে শহরে বিপুল আনন্দ উৎসাহে ঈদুল ফিতর উদযাপিত  সংবাদ : কানাডার শহরে শহরে বিপুল আনন্দ উৎসাহে ঈদুল ফিতর উদযাপিত  সংবাদ : কানাডার শহরে শহরে বিপুল আনন্দ উৎসাহে ঈদুল ফিতর উদযাপিত  সংবাদ : ফটো সাংবাদিক এইচ এম শহীদুল ইসলামের  মেয়ে  সিমু  সংবাদ : বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা  মধ্য দিয়ে সিলেটে পালিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর  সংবাদ : ফটো সাংবাদিক এইচ এম শহীদুল এর মেয়ের 
ইন্তেকাল রাত ২টায় জানাযা  সংবাদ : ইসকন সিলেটের রথযাত্রা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অন্যন্য ঐতিহ্য  সংবাদ : দেখা গেছে শাওয়ালের চাঁদ, সোমবার ঈদ

  সংবাদ : 
কমলগঞ্জে রথযাত্রা উৎসবের শুরু  সংবাদ : ফিনল্যান্ডে উৎসবমুখর পরিবেশে ঈদ পালিত   সংবাদ : নগরবাসীর
প্রতি সিসিক মেয়রের শুভেচ্ছা
sylhetexpress.com এর picture scroll bar এর code. এই কোড যেকোন website এ use করা যাবে।
| সিলেট | মৌলভীবাজার | হবিগঞ্জ | সুনামগঞ্জ | বিশ্ব | লেখালেখি | নারী অঙ্গন | ছবি গ্যালারী | রঙের বাড়ই ব্লগ |

লেখক মেলা
E-mail : syfdianews@gmail.com
সিলেট এক্সপ্রেস এর লেখক মেলা। লেখা পাঠানো ইমেল :- syfdianews@gmail.com

Web Address : www.sylhetexpress.com/lekhalekhiNew.php?writerID=107
লেখক মেলা এর লিখা
.: 29 May 2017 : সাহিত্য-সংস্কৃতি :.

প্রসঙ্গঃ সিলেটী ভাষা ও নাগরী সাহিত্য



সৃজন পাল: পূণ্যভূমি সিলেট সৌন্দর্যের এক অপূর্ব উদাহরণ।বাংলার ভূখন্ডে এই অঞ্চল ভিন্ন নামে পরিচিত। কারো কাছে ৩৬০ আউলিয়ার দেশ আর কারো কাছে দুটি পাতা একটি কুঁড়ির দেশ। এই অঞ্চলের ভৌগোলিক অবস্থানও মনোরম-উত্তরে মেঘালয় রাজ্য, দক্ষিণে ত্রিপুরা, পূর্বে আসাম আর পশ্চিমে নেত্রকোণা ও কিশোরগঞ্জ। পৌরাণিক যুগে এই অঞ্চল কামরূপ রাজ্যের অন্তর্ভূক্ত ছিল।খ্রিস্টীয় ৭ম শতাব্দীর পর জয়ন্তিয়া,গৌড়,লাউড় নামে তিনটি স্বতন্ত্র রাজ্য ছিল। ইতিহাসবিদগণের ধারণা, বর্তমান সিলেট বিভাগীয় শহরই ছিল আদি গৌড় রাজ্য।খ্রিস্টীয় ১৩০৩ সালে হযরত শাহজালাল (রাঃ) যখন এখানে আসেন তখন নাম পরিবর্তিত হয়ে জালালাবাদ নামকরণ করা হয়।১৯৯৫ সালের ১ আগস্ট সিলেট চারটি জেলার(সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভিবাজার ও হবিগঞ্জ) সমন্বয়ে বিভাগে উন্নীত হয়।জেনে রাখা ভালো যে- সমুদ্র পৃষ্ট থেকে সিলেট বিভাগ ৫৫ ফুট উপরে অবস্থিত।ভৌগলিক অবস্থান যেমন উপরে তেমনি সিলেটের হাকডাকও বিশ্বব্যাপী।আলাদা করে এগুলো লিখে কলমের খালি ক্ষয় বৃথা।এই অঞ্চলের বিশেষ বিশেষ খ্যাতি আছে।আছে কিছু বিশেষ বৈশিষ্ট্যও।সিলেট দর্শনে এসে মায়ায় পড়ে কবিগুরু সিলেটকে বলেছেন-"সুন্দরী শ্রীভূমি"।পন্ডিত জহরলাল নেহেরু লিখেছেন-"Sylhet is Bengal with a different ". সিলেট বিভাগের আয়তন ১২,৫৯৬ বর্গকিলোমিটার।এই পুরো আয়তন জুড়েই মনে হয় স্বর্ণশোভিত।তাইতো, সিলেটে ঘুরতে আসা ভিন্নজন সিলেটে এসে জড়িয়ে পড়েন এক অদৃশ্য মায়ায়।বাস্তব অভিজ্ঞতা বলে, সিলেটের সবকিছু ভালো হলেও একটা জিনিস নাকি তাদের কাছে একটু অন্যরকম লাগে এবং সেটি হলো সিলেটের ভাষা।হ্যাঁ, সিলেটের ভাষা একটু ভিন্ন।এই বিষয়টা নিয়ে ভিন্নজনের কাছে পাওয়া যায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া।সিলেট আর চট্টগ্রাম এই দুই অঞ্চলের ভাষা সর্বসাধারণের দূর্বোধ্য।এজন্য লোকমুখে প্রচলিত আছে প্রমথ চৌধুরীর উক্তি-"বাংলা ভাষা আহত হয়েছে সিলেটে আর নিহত হয়েছে চট্টগ্রামে।"এই উক্তির সত্যতা কেবল তারাই জানবে কেবল যারা দুই অঞ্চলের ভাষার স্পর্শ পেয়েছে।
এবার দেখি কিছু বাস্তবতা-

দৃশ্যপট-১:বাংলা সংস্কৃতির কোন এক অনুষ্টানে এক বিরাট রম্য বিতর্কের আয়োজন করা হয়েছে।বিতার্কিক হিসেবে আছেন দেশের ভিন্ন অঞ্চলের ভিন্ন প্রতিনিধি।বিতর্কের প্রস্তাবনা-"আমার ভাষাই সবার সেরা"।প্রত্যেকে তাদের অঞ্চলের ভাষা নিয়ে ইতিবাচক এবং অন্যান্য অঞ্চলের ভাষা নিয়ে নেতিবাচক ধারণা দিয়ে বক্তব্য উপস্থাপন করলেন।কোন এক পর্যায়ে সিলেটের ভাষা নিয়ে বলা হয়েছে-"সিলেটিরা তো বাঙ্গালী না এরা ছিলটি!!!"এরপরেও ঘটনা তো পুরো ইতিহাস।কারণ, বিতর্কের মাধ্যমে সিলেটের প্রতিনিধি বুঝাচ্ছিলেন বাঙ্গালী ও বাংলাদেশী'র তফাৎ।এজন্য বলি, বিতর্কগুলো আমাদের ভিন্ন জ্ঞান দেয়।
যাকগে, এটা স্রেফ রম্য বিতর্ক ছিল।কিন্তু এর মাধ্যমে কিছু প্রশ্ন উঠে এসেছিল।

দৃশ্যপট-২:গুরুত্বপূর্ণ ফরমে জাতীয়তা লিখার একটা অংশ থাকে।সে অংশে যে যে জাতীয় সে দেশের জাতীয়তা লিখতে হয় (যেমন-বাংলাদেশি,ব্রিটিশ,আমেরিকান ইত্যাদি।) আমাদের দেশে তেমনি এক ফরম পূরণ করতে প্রার্থী দের প্রতি এক গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তার পরামর্শ - "তোমরা জাতীয়তা লিখার অংশে বাংলাদেশি লিখবা। সিলেটিদের মতো সিলেটি লিখলে হবে না!!!
উনাকে প্রশ্ন করা হলো-"সিলেটিরা কেন বাংলাদেশি না?"এর উত্তর তিনি না দিয়ে বললেন তোমাদের সাথে আমি মজা করলাম আরকি!
অবশ্য উনার মজার মাধ্যমে কিছু শিক্ষনীয় বার্তা ছিল।পরে অবশ্য গল্পের ছলে এ বিষয়ে কিছু কথা বলেছিলেন।

দৃশ্যপট-৩:আমার প্রতিষ্টানের এক শিক্ষকের সাথে আড্ডা হচ্ছিল আঞ্চলিক ভাষা নিয়ে। তিনি এ সম্পর্কিত নানা তথ্য উপস্থাপন করলেন।সিলেট প্রসঙ্গে তিনি আমাদেরকে একটা পরামর্শ দিলেন-"তোমরা সিলেট গিয়ে পুরী খাওয়ার চেষ্টা করবা না!সিলেটিরা মেয়েদেরকে পুরী বলে!!"কথা প্রসঙ্গে তিনি আমার কাছে আমার অঞ্চলের ভাষা শুনতে চাইলেন।আমিও শুনালাম পুরি আর ফুরি সম্পর্কিত তথ্য।এরপর তিনি বললেন-তুমি যে সিলেটি সেটা আমি জানতাম না। তবে তোমার কথার মধ্যে সাধারণত সিলেটি টানটা আসে না!

দৃশ্যপট পড়ে বুদ্ধিমান পাঠক ইতিমধ্যে বুঝে গেছেন এখানে কি আলোচনা হবে।তবে এখান থেকে চলে গেলেই মজার কিছু তথ্য হয়তো আপনার না জানই থেকে যাবে এটা বলতেই হবে।
হ্যাঁ, বলছিলাম সিলেটের ভাষা নিয়ে।একটা নির্দিষ্ট অঞ্চলের ভাষার নির্দিষ্ট ইতিহাস থাকে।ভাষা পরিবর্তনশীল। একটা নির্দিষ্ট অংশ থেকে বিকৃত হতে হতে কোথায় যে এসে পড়ে তার কোন ইয়ত্তা নেই।এগুলো নিয়ে ভিন্ন মতবাদ কিংবা বিতর্কও থাকে।যেমনটা পাওয়া যায় বাংলা ভাষার উৎপত্তিগত ইতিহাসের তথ্য থেকে।আপনাকে যদি বলা হয় বহু ভাষাভাষীদের একটা দেশের নাম বলুন-আপনি চোখের পলক পড়ার আগেই আমাদের পাশের দেশ ভারতের নাম উল্ল্যেখ করবেন নির্দিদ্বায়।এখন আপনাকে যদি বলা হয় বাংলাদেশ কেন বহুভাষার দেশ নয়?বাংলাদেশে তো বিভিন্ন অঞ্চলে বিভিন্ন ভাষার প্রচলন আছে।এক্ষেত্রে আপনি হয়তো বলবেন বাংলা ভাষা ছাড়া বাংলাদেশে প্রচলিত বাকি সব ভাষাই আঞ্চলিক ভাষা।হ্যাঁ, আপনার কথাগুলো সত্য।কিন্তু আপনি ছাড়া বাকি সবাই জানে যে, "বাংলাদেশে দুইটি স্বতন্ত্র ভাষার প্রচলন আছে।" একথা আমার একার নয় এটি বলছে সারাবিশ্ব।ফ্রান্সের বিখ্যাত ভাষা জাদুঘরে বিশ্বের সব ভাষার উদৃতি আছে।সেখানে বাংলাদেশের ভাষার বিবরণে উল্লেখ আছে- "বাংলাদেশে দুটি ভাষা প্রচলিত আছে।এর একটি বাংলা অপরটি ছিলেটী।" একটু অবাক লাগলেও এটাই সত্য।পৃথিবীতে প্রায় প্রায় আট হাজারের মতো ভাষা আছে যার ৩০০০ স্বয়ংসম্পূর্ণ।তাহলে ভাষার স্বয়ংসম্পূর্ণতা বলতে কি বুঝায়?যে ভাষার পূর্ণাঙ্গ লিপিসহ ইতিহাস জানা যাবে এবং এর ব্যুৎপত্তিগত দলিল-দস্তাবেজ আছে সেগুলোই স্বয়ংসম্পূর্ণ বা পূর্ণাঙ্গ ভাষা।

★সিলেটী নাগরী এক অনন্য ধারার লিপি ও সাহিত্যঃ

সিলেটীদের ভাষা নিয়ে আপনার হয়তো কিছু ভাবনা তৈরী হয়েছে, জানতে ইচ্ছে হচ্ছে কিছু প্রশ্ন।কেন সিলেটীদের ভাষা ভিন্ন?এই ভাষার কেন আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আছে?সিলেটীরা কি আসলেই বাঙ্গালী না? ইত্যাদি ইত্যাদি।
প্রথমেই জেনে নেওয়া প্রয়োজন বাঙ্গালী আর বাংলাদেশী এই দুই শব্দের ব্যাখা।
বাঙ্গালী-বাংলা ভাষাভাষী সকল লোকজনকে বাঙ্গালী বলা যাবে।
বাংলাদেশী-বাংলাদেশের নাগরিকতা প্রাপ্ত সকলকে বাংলাদেশী বলা যাবে।

সিলেটীদের ভাষা বাংলা ভাষা থেকে একটু ভিন্ন।তাই সিলেটী ভাষার উৎপত্তি আর বাংলা ভাষার উৎপত্তির ইতিহাস এক নয়।সিলেটী লোকজন একই সাথে বাংলা আর সিলেটী ভাষা বুঝতে পারেন।বাংলা বা অন্য আঞ্চলিক ভাষাভাষী লোকজনের সিলেটী ভাষার প্রতি একটু দুর্বোধ্যতা আছে। বাংলা ভাষার উৎপত্তিতে যেমন ব্রাহ্মী লিপির উল্লেখ আছে।সিলেটি ভাষার ক্ষেত্রে উল্লেখ আছে নাগরী লিপির।নাগরী লিপি একটি স্বতন্ত্র লিপি যার কারণে সৃষ্ট সিলেটী/ছিলটী ভাষা।এই লিপির অন্য নাম- সিলেটী নাগরী,জালালাবাদী নাগরী,ফুল নাগরী,মুসলমানি নাগরী,মোহাম্মদী নাগরী কিংবা ছিলটী নাগরী। জাতিসংঘ স্বীকৃত ৩০০০টি পূর্ণাঙ্গ ভাষার মধ্যে নাগরী লিপি তথা ছিলটী ভাষা একটি।এই লিপির মোট বর্ণ সংখ্যা ৩২ যার মধ্যে ৫ টি স্বরবর্ণ।(মতান্তরে বর্ণ সংখ্যা ৩৩ এবং স্বরবর্ণ ৬)।তাহলে এই ভাষার উৎপত্তি কোথায়?এই প্রশ্নের উত্তরটা ভিন্ন জনের কাছে ভিন্ন ধরণের।নাগরী লিপি নিয়ে একটা পূর্ণাঙ্গ সাহিত্যের আছে এমনটা উল্ল্যেখ আছে।প্রাচীন হরিকেল রাজ্যের লোকজন এই ভাষায় কথা বলতো,রচনা করতো ভিন্ন সাহিত্য কর্ম।এই লিপি বা ভাষায় রচিত ৮৮ টি গ্রন্থ পাওয়া গেছে।এসব গ্রন্থকে বলা হতো নাগরী পুঁথি।পুঁথিগুলো "বর্ণনামূলক গীতিকবিতা" বা "বয়ান" নামে পরিচিত ছিল এবং এগুলো পয়ার ছন্দ,ত্রিপদী বা রাগ সমন্বয়ে গঠিত।অধিকাংশ পুঁথিতে সৃষ্টিকর্তাকে আরাধনার উপায় লিখার প্রমাণ আছে। গবেষকদের সংগৃহিত তথ্যমতে, নাগরী হরফে রচিত প্রথম গ্রন্থ-"তালিব হুসন(১৫৪৯)"রচয়িতা-গোলাম হুসন। আর জনপ্রিয় গ্রন্থ-"কিতাব হালাতুন্নবী"রচয়িতা-মুন্সী সাদেক আলী। উল্লিখিত দুই গুণীজন ছাড়াও নাগরী পুঁথি রচয়িতাদের মধ্যে- মুন্সী ইরপান আলী,দৈখুরা মুন্সী,আব্দুল ওহাব চৌধুরী,আমান উল্ল্যা,ওয়াজিউল্ল্যা,শাহ হরমুজ আলী,শিতালং শাহ,হাজী ইয়াসিনসহ মোট ৫৬ জনের নাম পাওয়া গেছে।
গবেষকদের মতে, এই ভাষার উৎপত্তি গঠেছে প্রায় ত্রয়োদশ-চতূর্দশ শতাব্দীতে। তাই নাগরী লিপি ছয়শত বছরের পুরনো।সুফি-দরবেশদের আগমনে এই ভাষায় উৎপত্তি,আগমন কিংবা প্রচলন। আরবি+সংস্কৃত+বাংলা=নাগরী এটা বলেছেন অনেকে।
নাগরী গবেষক ড. মোহাম্মদ সাদিক বলেছেন-"সুফি-ফকির,দরবেশদের আগমনে ধর্ম প্রচারের উদ্দ্যেশে ছয়শ বছর আগে এই নাগরী লিপির সৃষ্টি হয়েছিল।এই লিপি সে সময়কার সমাজ ও সংস্কৃতির অনবদ্য দলিল,অতিত ও ঐতিহ্য।"

গবেষক অধ্যাপক মোঃ আসাদ্দর আলীর মতে-"হযরত শাহজালাল (রাঃ) তাঁর ৩৬০ আউলিয়া নিয়ে শ্রীহট্ট(সিলেট) বিজয় করে ইসলামি রাষ্ট্র তথা খেলাফত রাষ্ট্র ব্যবস্থা কায়েমের পর নতুন ভাষা সংস্কৃতি চালু করেন মুসলমানদের মধ্যে তখন এটি ব্যাপক প্রচার ও প্রসার লাভ করে।বেশিরভাগ গবেষক এই মতবাদটিকেই সত্য মনে করেন।"

ভাষাবিদ সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়ের মতে এই ভাষা চতূর্দশ শতাব্দীতে প্রচলিত হয়।আবার কেউ কেউ বলেন, ষোড়শ শতাব্দীর শেষের দিকে মোঘলদের দ্বারা তাড়িত হয়ে সিলেটে আগত আফগান পাঠানরা এই ভাষার প্রচলন শুরু করে।
আরেক গবেষণা মতে, ফোর্ট উইলিয়াম কলেজ সৃষ্ট সংস্কৃতবহুল বাংলার বিকল্ল রূপে সিলেটীরা এই লিপির জন্ম দেন।

সকল বিষয় পর্যালোচনা করে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. জফির সেতু বলেন-"নাগরী কোন আঞ্চলিক কিংবা উপভাষা নয়।এটি স্বতন্ত্র ভাষা।তবে বাংলা ভাষার সাথে এর মিল আছে।"

সুতরাং সিলেটীদের ভাষা যে আলাদা আরেকটি ভাষা এটি নিয়ে কারো দ্বিমত পোষণ করার কোন কারণ থাকার কথা না।
বৃহত্তর সিলেট,কাছাড়,করিমগঞ্জ, ময়মনসিংহ, কিশোরগঞ্জ প্রভৃতি এলাকায় নাগরী লিপি সমাদৃত ছিল।নাগরী লিপির জনপ্রিয়তা পাওয়া যায় ভারতের শিলচর,কলকাতা,আসামের কিছু এলাকায় কিংবা যুক্তরাজ্যের কিছু অংশে।বর্তমানেও ঐসব এলাকায় ছিলটী ভাষার প্রচলন আছে।বাংলা লিপি থেকে তুলনামূলক সহজ পাঠ্য নাগরী লিপি।এ লিপির একটি অনন্য বৈশিষ্ট্য ছিল যে নাগরী লিপি সম্পূর্ণ যুক্তাক্ষর বিবর্জিত। সিলেটের প্রবীণ লোকদের মতে, এই ভাষা পূঙ্খানুপুঙ্খভাবে আয়ত্তে আনতে সময় লাগতো মাত্র আড়াইদিন।
নাগরী লিপি সৃষ্টির পর সিলেটে এর মুদ্রণের প্রমাণ পাওয়া যায়।বর্তমান সিলেট শহরের হাওয়াপাড়া নিবাসী মৌলভী আব্দুল করিম বন্দর বাজারে ১৮৭০ সালে "ইসলামিয়া প্রেস" এ নাগরী ভাষার মুদ্রণ শুরু করেন।১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে সেটি উড়িয়ে দেয়া হয়।এরপর মুদ্রণ হয় সিলেটের নাইওরপুলের "সারদা প্রিন্টিং পাবলিশিং"এ।১৯৪৭ পূর্ববর্তীকালে কলকাতা ও শিলাইদহে নাগরী লিপির প্রেস ছিল।এরপর সিলেটের কয়েকজন লন্ডনে গিয়ে নাগরী লিপির সফ্টওয়্যার নিয়েও কাজ করেন।দুইজন বিদেশী নাগরী গবেষক নাগরী লিপির সুরমা ফন্টের কথা উল্ল্যেখ করেন তাদের গবেষণায়।তাদের গবেষণা এবং বহির্বিশ্বে নাগরী লিপির প্রচারের জন্য তাঁরা এই লিপি বা সাহিত্যের জন্য 'সুরমা ফন্টের' উন্নয়ন করেন।
নাগরী লিপি নিয়ে মুক্তিযুদ্ধের আগে ও পরে অনেক গবেষণা হয়েছে।উদ্ধার ও সংগ্রহ করা হয়েছে নান তথ্য।এগুলোর পেছনে ছিলেন দেশী-বিদেশী নানা গুণীজন,নান প্রতিষ্ঠান।এজন্য আমরা নাগরী নিয়ে কিছু তথ্য পাচ্ছি,হারিয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করতে পেরেছি আরেকটি ভিন্ন ভাষাগত সংস্কৃতিকে।নাগরী লিপি একটি আন্তর্জাতিক গবেষণাধর্মী ইস্যু।কারণ এই লিপি থেকেই পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেছেন দেশী-বিদেশী ভাষা গবেষক।

নাগরী লিপির উপর প্রথম যিনি পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন তিনি হলেন ড. গোলাম কাদির।তার গবেষণা শিরোনাম ছিল-"সিলেটী নাগরী লিপি ভাষা ও সাহিত্য " এবং তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক এই ডিগ্রী অর্জন করেন।এরপর নাগরী লিপির উপর ভারতের গৌহাটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রী নেন ড. মোঃ আব্দুল মোসাব্বির ভূঁইয়া এবং পরে একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন ড. মোহাম্মদ সাদিক।
এরপর নাগরীর উপর লন্ডনের সোয়াম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি নেন এক ব্রিটিশ দম্পতী ড. জেমস লয়েড উইলিয়াম ও ড. সু লয়েড উইলিয়াম।এরপর সম্মানসূচক পিএইচডি অর্জন করেন সাংবাদিক ড. মতিয়ার চৌধুরী, কলকাতার ড. রূপা চক্রবর্তী।এছাড়া বর্তমানে এই নাগরী নিয়ে গবেষনা করছেন আরও অনেকে।গবেষকরা নতুন করে তৈরী করছেন নাগরী সমৃদ্ধ সাহিত্যকর্ম।

আগে নাগরী শিক্ষার নানা প্রতিষ্ঠান ছিল কিন্তু এখন আর সেগুলো চোখে পড়ে না দেশের কোথাও।দেশের একমাত্র নাগরী প্রতিষ্ঠানটি হলো-"রাগীব-রাবেয়া নাগরী ইনস্টিটিউট।তবে বিদেশের মাটিতে রয়েছে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান।
১)সিলেট একাডেমী ইউকে এন্ড ইউরোপ,২)সিলেটী ভাষা শিক্ষা কেন্দ্র,বার্নিংহাম ৩)শ্রীহট্ট সম্মিলনী, কলকাতা,ভারত।
সিলেটী এই লিপির সংগ্রহ ও উদ্ধারকাজে বর্তামান প্রজন্মের একজন যিনি ওতোপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছেন তিনি লেখক ও গবেষক মোস্তফা সেলিম এবং তাঁর সাথে আছেন মোঃ আব্দুল মান্নান। যিনি তার সংগ্রহের নাগরী লিপির তথ্য নিয়ে ২৫ খন্ডের একটা সিরিজ বের করেছেন।
এছাড়া তাঁর নিজস্ব প্রতিষ্ঠান "উৎস প্রকাশনী" থেকে নতুন করে বের করেছেন নাগরী বিষয়ক ভিন্ন ও ঐতিহ্যবাহী বইসমূহ।তিনি আরও যা করতে চান সেগুলোর মধ্যে- *অনলাইনে নাগরী লিপির একটা সংগ্রহশালা বা যাদুঘর করতে চান,*দুষ্পাপ্য সকল পান্ডুলিপি পূর্ণাঙ্গরূপে সংগ্রহ করতে চান,*দেশী-বিদেশী সকল গবেষক তাদের গবেষণাকর্মকে একই প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসতে চান।
অনেক পাঠক হয়তো এতো প্রবন্ধ পড়ার ধের্য্য হারিয়ে ফেলতে পারেন।তবে সিলেটী ভাষা-সংস্কৃতি নিয়ে বলার জন্য এগুলো নতুন কিছু নয়।এগুলো জানা আমাদের প্রয়োজন;জানাতে হবে নতুন প্রজন্মকে, রক্ষা করতে হবে সিলেটের ভাষাগত ঐতিহ্য।

একবার চট্টগ্রামের এক ছোট বোনের সাথে কথা হচ্ছিল।কথা প্রসঙ্গে সে আমাকে প্রশ্ন করলো-"আমার কথায় কি চট্টগ্রামের টান আসে?"আমার প্রতুত্ত্যর ইতিবাচক শুনে সে একটু প্রশান্তি পেল।আমার ইতিবাচক উত্তরটা মেকি ছিল বটে তবে তাকে খুশি করার জন্য যথেষ্ট ছিল।বাংলাদেশের যে অঞ্চলের মানুষই হোক না কেন তার কথাবার্তার ধরনে আপনি কিছুটা হলেও তার আঞ্চলিকতার আন্দাজ করতে পারবেন।শুধু চট্টগ্রাম আর সিলেট নয় বাংলার ভিন্ন অঞ্চলে ভিন্ন ভাষার প্রচলন আছে।এগুলো লোকমুখে বিকৃত বাংলা রূপ।এগুলো একেকটা অঞ্চলের প্রাণ।ভাষা ও সংস্কৃতির ইতিহাস পর্যবেক্ষণ করলে এখান থেকে পাওয়া যাবে অমূল্য রতন।যেমনটা বাংলা ভাষার ক্ষেত্রে দেখা যায়।তাই কোন ভাষাকে ছোট করে দেখা কিংবা অবজ্ঞা করা নিজেকে অবজ্ঞা করার সামিল।তাই, আসুন আমরা আমাদের সংস্কৃতি,ঐতিহ্য ধরে রাখার নিমিত্তে এগিয়ে চলি।

-সৃজন পাল,
শিক্ষার্থী,
ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্স এন্ড ফিসারীজ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।

তথ্যকণিকা-
১।সারোয়ার তমিজউদ্দিন পরিচালিত ও সেলিম হোসেন সম্পাদিত "Documentary about Sylheti language "চিত্রনাট্য।
২।www.wikipedia.org
৩।www.banglapedia.org




.: 25 June 2017 : সমসাময়ীক লেখা :. (220 বার পঠিত)
একটি ছেলে ও ঈদ


SylhetExpress.com

বদরুজ্জামান জামান :
স্বদেশ ছেড়ে একটি
ছেলের প্রবাস যাপন
ঈদের খুশি অপূর্ণ তার,
নেই কেউ আপন।
' প্রবাস যাপন আজকে
তার যুগের কাছে
স্বদেশ স্বজন অনুরণিত
চিত্ত নিয়ে বাঁচে ।
' একটি ছেলে ভাবে
ঈদ মানে সুখ বিলাস
সর্বজনীন ঈদ চাওয়া কি
শুধূই অভিলাষ ।
...Details...


.: 20 June 2017 : সাহিত্য-সংস্কৃতি :. (824 বার পঠিত)
ঈদ নিয়ে একটু কথা


SylhetExpress.com

অধ্যক্ষ মুজম্মিল আলী:এক সময় বেসরকারি শিক্ষকদের কোন ঈদ বোনাস ছিল না । সে এক অন্য রকম ভালই ছিল । দোকানী জানতো , পাড়া-পড়শী জানতো , পরিবার-পরিজন ও ছেলেমেয়ে সকলে জানতো বেসরকারি শিক্ষকের কোন বোনাস নেই । শিক্ষকের নিজের ও আলাদা একটা কষ্টের তৃপ্তি ছিল । সে রকম একটা সংকীর্ণ ঈদ বাজেটও ছিল । দিন ব ...Details...


.: 20 June 2017 : সাহিত্য-সংস্কৃতি :. (131 বার পঠিত)
পরামর্শ হিসেবে নিও...


রাজু আহমেদ :এ লেখা শুধুমাত্র আমার সেই সব আদরের ছোট ভাই-বোনদের জন্য যারা বয়সসীমায় ১২ থেকে ২২ অতিক্রম করতেছো । বয়সের এই স্তরটি ভালোলাগার । এই বয়সের চোখগুলো যা দেখে তাই ভালোলাগে । কেননা এই সময়ের তরুণ-তরুণীদের মন পবিত্র থাকে এবং জীবন বাস্তবতার তেমন কোন আঘাতের মোকাবেলা করতে হয়না । চারদ ...Details...


.: 18 June 2017 : দিবস :. (311 বার পঠিত)
বাবারা বড্ড বোকা...!


SylhetExpress.com

রাজু আহমেদ: হাঁটতে শেখা, বলতে শেখা.. মানুষ হওয়ার যাত্রায়... বাবা দিলেন সেরা দীক্ষা.. বন্ধন গেঁথে আত্মায়... বাবা কেমন সত্ত্বা তা বুঝতে হলে তাদের উপলব্ধিকে উপলব্ধি করুণ, যাদের বাবা গত হয়েছে । ধরণীর বুকে তারাই তো সৌভাগ্যবানদের অন্তর্ভূক্ত যাদের বাবা জীবিত । বাবা যে সন্তানের জন্য কত বড় বট ...Details...


.: 17 June 2017 : সাহিত্য-সংস্কৃতি :. (510 বার পঠিত)
'মরা গাঙের জল' সাধারণ মানুষের জীবন্ত কথা


SylhetExpress.com

তারেক মুনাওয়ার: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন- "ছোট প্রাণ ছোট ব্যথা, ছোট দুঃখ ছোট কথা নিতান্ত সহজ সরল, সহস্র বিস্মৃতিরাশি প্রত্যহ যেতেছে ভাসি তারি দু-চারটি অশ্রু জল। নাহি বর্ণনার ছটা ঘটনার ঘনঘটা, নাহি তত্ত্ব নাহি উপদেশ। অন্তরে অতৃপ্তি রবে সাঙ্গ করি মনে হবে শেষ হয়ে হইল না শেষ। জগতে ...Details...


.: 6 June 2017 : শিক্ষা :. (857 বার পঠিত)
আমার একটি স্বপ্নের শ্রেণিকক্ষ


SylhetExpress.com

অধ্যক্ষ মুজম্মিল আলী:এক সময় স্কুল-কলেজে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বর্তমানের তুলনায় অনেকটা নগন্য ছিল । আজকাল এর বিপরীত অবস্থা । স্কুল-কলেজে শিক্ষার্থীদের যেমন উপচে পড়া ভীড় , তেমনি কোন কোন সময় শ্রেণিকক্ষে এতটুকু বসার জায়গা বাকি থাকেনা । প্রয়োজনীয় সংখ্যক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষার্থী ...Details...


.: 6 June 2017 : শিক্ষা :. (570 বার পঠিত)
স্বাধীনতা পেয়েছি- মুক্তি আজো অধরা


SylhetExpress.com

অধ্যক্ষ মুজম্মিল আলী:আমাদের জাতির জনকের রাজনৈতিক প্রজ্ঞা , বুদ্ধিমত্তা ও দূরদর্শিতা সমসাময়িক বিশ্ব নেতাদের ছাড়িয়ে গিয়েছিল । তিনি স্বমহিমায় রাজনীতির উজ্জ্বল এক মহা জ্যোতিষ্ক । রাজনীতির মহাকবি । A great poet of politics . রাজনীতির বিশ্ব কবি বলা যায় তাকে । ‘এবারের সংগ্রাম- স্বাধীনতার সংগ্রাম, এব ...Details...


.: 6 June 2017 : শিক্ষা :. (1218 বার পঠিত)
শিক্ষকের মর্যাদা ও দৈনিক শিক্ষা সম্পাদকের সাহসী উচ্চারণ


SylhetExpress.com

অধ্যক্ষ মুজম্মিল আলী: শিক্ষক মানব সভ্যতার কেবল অগ্রনায়ক নন, মহানায়কও বটে। জাতি গঠনের সত্যিকারের কারিগর। পৃথিবীর অনেক দেশে শিক্ষকই প্রথম ভিআইপি। কোন কোন দেশের আদালতে পর্যন্ত শিক্ষকের জন্য আলাদা আসন চিহ্নিত থাকে। আর আমাদের দেশে? এখানে কেবল বক্তৃতা, ভাষণ আর কথনে শিক্ষকের যত সম্মান! ...Details...


.: 3 June 2017 : সাহিত্য-সংস্কৃতি :. (388 বার পঠিত)
পরিত্যক্ত বগিতে একঝাঁক পাখি


বদরুজ্জামান জামান:
ইষ্টিশনের পরিত্যক্ত ট্রেনের বগিতে
একঝাঁক পাখি আবাস গড়ে।
ক্লান্ত ডানাগুলোতে বারমাস দিগন্তের গন্ধ বয়,
আকাশের নীলিমা ঝড় ঝঞ্জা
রৌদ্রের উত্তাপ আক্রান্ত পাখিরা।
তারা বসে আছে বসে থাকে জংধরা স্লিপারে, পরিত্যক্ত বগির আশেপাশে।
বগির পাশে ফুটপাত স্যাঁতস্য ...Details...


Next Page»: লেখক মেলা এর আরো লিখা »

লেখক মেলা এর সর্বাধিক পঠিত লিখা

.: : সাহিত্য-সংস্কৃতি :. (106636 বার পঠিত)
কবি শফিকুল ইসলাম যাকে সব সময় মনের ফ্রেমে বেঁধে রাখা যায়...


SylhetExpress.com

আউলিয়া বেগম আলো (সম্পাদক, জাতির আলো)ঃ মহান সাধক ব্যক্তিরা বলে গেছেন পৃথিবীতে এসেছিস একটি দাগ রেখে যা। আসলি আর গেলি এমনটি যেন না হয়। তাই তো বিজ্ঞ জ্ঞানী গুণী ও সচেতন ব্যক্তিবর্গ আসা-যাওয়ার এই দুনিয়ায় কিছু না কিছু রেখে যতে চান। তবে কর্মে একনিষ্ঠ, দায়িত্ববোধ, সঠিক সাধনা ও সাফল্য থাকলে অগ্র ...Details...


.: 15 February 2016 : সাহিত্য-সংস্কৃতি :. (11840 বার পঠিত)
ভোরের শিশির


SylhetExpress.com

মজিবুল হক হিরণ:
আমরা যে ভাই ভোরের শিশির ঘাসের উপর বসি
দিনের আলোয় লুকিয়ে থেকে রাত্রি ভোরে আসি,
ঘাসের বুকে শীতের ভোরে মোদের বসবাস
শীত -শরতে আছি মোরা অত:পর পরবাস।।
প্রকৃতিতে মিশে মোরা প্রকৃতিকেই ধুই
শ্রান্ত পথিকের ক্লান্ত হৃদয় আলতো করে ছুঁই।
মোদের ছোঁয়াতে প্রাণ ফিরে পায় ...Details...


.: 12 November 2015 : সাহিত্য-সংস্কৃতি :. (7930 বার পঠিত)
জ্বিনের পাহাড়


SylhetExpress.com

নাদিম নেওয়াজ আহমেদ: ভয়। আশ্চর্য্য! মাথা গোলমেলে। ঠিক তাই। আমার দেয়া ছবিটি ভাল করে লক্ষ্যে করুন। এটি আমি যে গাড়িতে করে গিয়েছিলাম সেটার মিটার বোর্ড এর চিত্র উপরে এবং নিচে গুগোল থেকে নেয়া সেই রাস্তাটির চিত্র। আমরা সবাই জানি যে গাড়ি চালাতে হলে ইঞ্জিন চালু করে নিউট্রল অবস্থা হতে গিয়ার ...Details...


.: 25 April 2015 : সাহিত্য-সংস্কৃতি :. (7927 বার পঠিত)
প্রকৃতির বিছানায়


SylhetExpress.com

নাদিম নেওয়াজ আহমেদ: মুষলধারে বৃষ্টি। ঘুম ভাঙতেই এমন অবস্থা দেখে মনে মনে ভাবলাম আজ আর মনে হয় যাওয়া হচ্ছে না। কিন্তু সকাল ৯টা বাজতেই আমার ফোনটি বেজে উঠলো। ওপার থেকে তাহমিম দেওয়ান জানতে চাইলো আমার অবস্থান কোথায়। বৃষ্টির এমন রসিকতা দেখে আমার মেজেট টা বিগড়ে গেল, সিন্ধান্ত নিলাম আমি যাব ...Details...


.: 8 March 2015 : সাহিত্য-সংস্কৃতি :. (7717 বার পঠিত)
ক্রমাগত হত্যার সেরেনাদে : রক্তাক্ত সময়ের ডায়েরি


SylhetExpress.com

বাশিরুল আমিন; প্রচলিত ধারণা ; ঈদ সংখ্যায় প্রকাশিত উপন্যাস সমুহের চেহারা চাকচিক্যময় হলেও ব্যাকরণে, প্রকরণে ও বয়ানে থাকে অন্তঃসারশূন্যতা। বিশেষ সংখ্যার লেখাগুলি যেহেতু ফরমায়েশি আর লেখা হয় স্বল্পসময়ে স্বল্পকায় ফলে আবেদনময়ী হয় যৎসামান্যই। ধারাণাটা যে ভুল আবারো প্রমাণিত হলো। এবা ...Details...


পাঠকের মতামত
তোমার দুচোখ
পাঠকের মতামতঃ (1)

13 June 2016 তারিখে তারেক লিমন তেবাখো কক,ক্লাব ২০০০ কিম্বালি সাউথ আফ্রিকা লিখেছেনঃ আমাদের সিলেটের অনেক পত্রিকা পড়েছি, কিন্তু এই প্রতম সিলেট এক্সপ্রেস পড়লাম, প্রতিটি বিভাগ দারুণ ভাবে সাজানে হয়েছে পড়ে খুবই উপভোগ করেছি আরো বেশি ভাল লেগেছে, কারণ আমার অনেক প্রিয় কবিগনদের লেখা ও থাতে রয়েছে, আমার অনেক পরিচিত সাংবাদিকগন ও তার সাথে জড়িত এক কথায়, আজ থেকে আমিও সিলেট এক্সপ্রেস এর একজন পাঠক হয়ে গেলাম, সিলেট এক্সপ্রেস, সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে যাক,।। ..... তারেক লিমন তেবাখো কল,ক্লাব ২০০০ কিমবালি, সাউথ আফ্রিকা

নষ্ট পৃথিবীতে আমি ভালো নেই
পাঠকের মতামতঃ (1)

6 October 2015 তারিখে মোঃগোলাম মোস্তফা তুহিন সিলেট লিখেছেনঃ sylhetexpress.com এ প্রকাশিত আমার প্রথম কোন লেখা।কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ আমার কবিতাটি প্রকাশ করার জন্য।

ভালবাসার এপিঠ ওপিঠ
পাঠকের মতামতঃ (1)

1 September 2015 তারিখে মো: মশিয়ার রহমান rangpur লিখেছেনঃ

Other Pages :

 
 অন্য পত্রিকার সংবাদ
 অভিজ্ঞতা
 আইন-অপরাধ
 আত্মজীবনি
 আলোকিত মুখ
 ইসলাম ও জীবন
 ঈদ কেনাকাটা
 উপন্যাস
 এক্সপ্রেস লাইফ স্টাইল
 কবিতা
 খেলাধুলা
 গল্প
 ছড়া
 দিবস
 দূর্ঘটনা
 নির্বাচন
 প্রকৃতি পরিবেশ
 প্রবাস
 প্রশাসন
 বিবিধ
 বিশ্ববিদ্যালয়
 ব্যক্তিত্ব
 ব্যবসা-বাণিজ্য
 মনের জানালা
 মিডিয়া ওয়াচ
 মুক্তিযুদ্ধ
 যে কথা হয়নি বলা
 রাজনীতি
 শিক্ষা
 সমসাময়ীক বিষয়
 সমসাময়ীক লেখা
 সমৃদ্ধ বাংলাদেশ
 সাইক্লিং
 সাক্ষাৎকার
 সাফল্য
 সার্ভিস ক্লাব
 সাহিত্য-সংস্কৃতি
 সিটি কর্পোরেশন
 স্বাস্থ্য
 স্মৃতি
 হ য ব র ল
 হরতাল-অবরোধ

লেখালেখি
ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকী (অবঃ)
আব্দুল হামিদ মানিক
শফিকুল ইসলাম
প্রা. মেট্রোপলিটান ম্যাজিষ্ট্রেট
ইকবাল বাহার সুহেল
হারান কান্তি সেন
সেলিম আউয়াল
বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল
এ.এইচ.এস ইমরানুল ইসলাম
জসীম আল ফাহিম
সৌমেন রায় নীল
সাকিব আহমদ মিঠু
রাহিকুল ইসলাম চৌধুরী
সালাহ্‌ আদ-দীন
ছাদিকুর রহমান
সাঈদ নোমান
জালাল আহমেদ জয়
আজিম হিয়া
মিহির রঞ্জন তালুকদার
পহিল হাওড়ী (মোঃ আবু হেনা পহিল)
শাহ মিজান
নারী অঙ্গন
নূরুন্নেছা চৌধুরী রুনী
মাহবুবা সামসুদ
আমেনা আফতাব
ইছমত হানিফা চৌধুরী
মাছুমা আক্তার চৌধুরী রেহানা
নীলিমা আক্তার
সুফিয়া জমির ডেইজী
আমিনা শহীদ চৌধুরী মান্না
রওশন আরা চৌধুরী
রিমা বেগম পপি
সালমা বখ্ত্ চৌধুরী
জান্নাতুল শুভ্রা মনি
মাসুদা সিদ্দিকা রুহী
আলেয়া রহমান
মাজেদা বেগম মাজু
নাঈমা চৌধুরী
অয়েকপম অঞ্জু
শামসাদ হুসাম
নাদিরা নুসরাত মাশিয়াত
তাসলিমা খানম বীথি

সাহিত্য-সংস্কৃতি পাতার আলোচিত লিখা
.: 3 weeks ago : :.
শিক্ষকের মর্যাদা ও দৈনিক শিক্ষা সম্পাদকের সাহসী উচ্চারণ (1218 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

অধ্যক্ষ মুজম্মিল আলী: শিক্ষক মানব সভ্যতার কেবল অগ্রনায়ক নন, মহানায়কও বটে। জাতি গঠনের সত্যিকারের কারিগর। পৃথিবীর অনেক দেশে শিক্ষকই প্রথম ভিআইপি। কোন কোন দেশের আদালতে পর্যন্ত শিক্ষকের জন্য আলাদা আসন চিহ্নিত থাকে। আর আমাদের দেশে? এখানে কেবল বক্তৃতা, ভাষণ আর কথনে শিক্ষকের যত সম্মান! Details...


.: 3 weeks ago : :.
আমার একটি স্বপ্নের শ্রেণিকক্ষ (857 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

অধ্যক্ষ মুজম্মিল আলী:এক সময় স্কুল-কলেজে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বর্তমানের তুলনায় অনেকটা নগন্য ছিল । আজকাল এর বিপরীত অবস্থা । স্কুল-কলেজে শিক্ষার্থীদের যেমন উপচে পড়া ভীড় , তেমনি কোন কোন সময় শ্রেণিকক্ষে এতটুকু বসার জায়গা বাকি থাকেনা । প্রয়োজনীয় সংখ্যক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষার্থী Details...


.: 1 week ago : :.
ঈদ নিয়ে একটু কথা (824 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

অধ্যক্ষ মুজম্মিল আলী:এক সময় বেসরকারি শিক্ষকদের কোন ঈদ বোনাস ছিল না । সে এক অন্য রকম ভালই ছিল । দোকানী জানতো , পাড়া-পড়শী জানতো , পরিবার-পরিজন ও ছেলেমেয়ে সকলে জানতো বেসরকারি শিক্ষকের কোন বোনাস নেই । শিক্ষকের নিজের ও আলাদা একটা কষ্টের তৃপ্তি ছিল । সে রকম একটা সংকীর্ণ ঈদ বাজেটও ছিল । দিন ব Details...


.: 7 days ago : :.
আশিক ভাইয়ের বিয়ের বরযাত্রী হয়েছিলাম আমরা (756 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

সেলিম আউয়াল:: মনে হচ্ছে এই সেদিন আমরা বরযাত্রী হয়ে আশিক ভাইয়ের শ্বশুর বাড়িতে গেলাম, সেই মাধবপুর। আশিক ভাই বরের সাজে বসেছেন। কোথাও খানিকটা অনিয়ম দেখলেই রাগ করেন। চেহারাটা রাগী রাগী হয়ে যায়। তখন তার ছোট বোনেরা তাকে মিনতি করছিলেন, ভাই তুমি রাগ করো না, তোমার চেহারাটা খারাপ হয়ে যায়। সেই আ Details...


.: 3 weeks ago : :.
স্বাধীনতা পেয়েছি- মুক্তি আজো অধরা (570 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

অধ্যক্ষ মুজম্মিল আলী:আমাদের জাতির জনকের রাজনৈতিক প্রজ্ঞা , বুদ্ধিমত্তা ও দূরদর্শিতা সমসাময়িক বিশ্ব নেতাদের ছাড়িয়ে গিয়েছিল । তিনি স্বমহিমায় রাজনীতির উজ্জ্বল এক মহা জ্যোতিষ্ক । রাজনীতির মহাকবি । A great poet of politics . রাজনীতির বিশ্ব কবি বলা যায় তাকে । ‘এবারের সংগ্রাম- স্বাধীনতার সংগ্রাম, এব Details...


.: 2 weeks ago : :.
যুদ্ধের সমাধিতে আজাদির যোদ্ধা নেই (566 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

সেলিম আউয়াল: পুলিশের কনস্টেবল পারলেন না। ভাবলাম সাব-ইন্সপেক্টর পারবেন, তিনিও বলতে পারলেন না চিটাগাং ওয়ার সেমিট্রির লকেসনটা। আন্দরকিল্লা শাহি জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেছি। গেটে অনেক পুলিশ দাঁড়িয়ে মুসলিøদের নিরাপত্তার জন্যে অথবা মিছিল বের হলে ঠেঙ্গাবার জন্যে। সাব ইন্সপেক্ Details...


.: 3 weeks ago : :.
আবাবিল পাখি হয়ে দিয়ে যাই চুম (553 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

হারান কান্তি সেন: এটি গল্পকার সেলিম আউয়ালের ৮ম গ্রন্হ।লেখক মাতা ও স্ত্রী-কে নিয়ে ২০১১ খ্রি: পবিত্র মক্কা-মদিনা সফরের টুকরো স্মৃতি নিয়েই এই ভ্রমণ কাহিনী লিখেছেন। বইয়ের নামকরণেই যেন লেখকের সব আবেগ উছ্লে উঠেছে।পবিত্র কাবা ঘরে নিজে তো চুমু দিয়ে এসেছেন তারপরও যেন স্বাদ মিটেনী তাঁর।তা Details...


.: 2 weeks ago : :.
'মরা গাঙের জল' সাধারণ মানুষের জীবন্ত কথা (510 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

তারেক মুনাওয়ার: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন- "ছোট প্রাণ ছোট ব্যথা, ছোট দুঃখ ছোট কথা নিতান্ত সহজ সরল, সহস্র বিস্মৃতিরাশি প্রত্যহ যেতেছে ভাসি তারি দু-চারটি অশ্রু জল। নাহি বর্ণনার ছটা ঘটনার ঘনঘটা, নাহি তত্ত্ব নাহি উপদেশ। অন্তরে অতৃপ্তি রবে সাঙ্গ করি মনে হবে শেষ হয়ে হইল না শেষ। জগতে Details...


.: 4 weeks ago : :.
পরিত্যক্ত বগিতে একঝাঁক পাখি (388 বার পঠিত)

বদরুজ্জামান জামান:
ইষ্টিশনের পরিত্যক্ত ট্রেনের বগিতে
একঝাঁক পাখি আবাস গড়ে।
ক্লান্ত ডানাগুলোতে বারমাস দিগন্তের গন্ধ বয়,
আকাশের নীলিমা ঝড় ঝঞ্জা
রৌদ্রের উত্তাপ আক্রান্ত পাখিরা।
তারা বসে আছে বসে থাকে জংধরা স্লিপারে, পরিত্যক্ত বগির আশেপাশে।
বগির পাশে ফুটপাত স্যাঁতস্য Details...


.: 4 days ago : :.
ঈদের গান (367 বার পঠিত)
SylhetExpress.com

মোঃ আব্দুল হক:
ঈদ মানে হাসি হাসি
ঈদ মানে খুশি খুশি
হাঁটা হাঁটি পাশাপাশি
ঈদ মানে ভালোবাসি
ছোট বড় সবার হাসি।
ঈদ মানে কোলাকোলি
কথা বলি খোলাখুলি
ঈদ মানে হাতে তালি
ঈদ মানে পিঠা পুলি
এসো খাই সবাই মিলি
ঈদ মানে ঘোরাঘুরি
ঘুম ভাঙে তাড়াতাড়ি
লাল জামা লাল শাড়ি
শিশু আর ন Details...



www.SylhetExpress.com - First Online NEWS Paper in Sylhet, Bangladesh.

Editor: Abdul Baten Foisal Cell : 01711-334641 e-mail : news@SylhetExpress.com
Editorial Manager : Abdul Muhit Didar Cell : 01730-122051 e-mail : syfdianews@gmail.com
Photographer : Abdul Mumin Imran Cell : 01733083999 e-mail : news@sylhetexpress.com
Reporter : Mahmud Parvez Staff Reporter : Taslima Khanom Bithee

Designed and Developed by : A.S.H. Imranul Islam. e-mail : imranul.zyl@gmail.com

Best View on Internet Explore, Mozilla Firefox, Google Chrome
This site is owned by Sylhet Sifdia www.sylhetexpress.com
copyright © 2006-2013 SylhetExpress.com, All Rights Reserved