দক্ষিণ সুরমায় শ্রমিকদের `দু’পক্ষে সংঘর্ষ : আহত ৫০

প্রকাশিত : ০২ জুন, ২০২০     আপডেট : ১ মাস আগে

ফলিকের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পরিবহন শ্রমিকদের। এ নিয়ে শ্রমিকদের একটি পক্ষ বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১ টায় ফলিক বিরোধী বিভিন্ন শ্লোগান দিতে থাকে। এর জের ধরে শুরু হয় দু’পক্ষের সংঘর্ষ। সংঘর্ষে গোটা দক্ষিণ সুরমা এলাকা অশান্ত হয়ে উঠে। উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে সর্বত্র। এ ঘটনায় আহত হয় কমপক্ষে ৪০ থেকে ৪৫ জন শ্রমিক।

মঙ্গলবার বিকাল ৪টা থেকে প্রায় ঘন্টাব্যাপী এই সংঘর্ষ চলতে থাকে। সংঘর্ষে আহতদের দ্রুত সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ গুলি ও র‌্যাব টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে।

শ্রমিকদের অভিযোগ,সিলেট জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. রুনু মিয়া রেজি : নং –বি-১৪১৮) বলেন, শ্রমিকদের কল্যাণ তহবিলের প্রায় দুই কোটি টাকা সেলিম আহমদ ফলিক আত্মসাৎ করেছেন। এ টাকার কোনো হিসাবও তিনি দিতে পারছেননা। এরই প্রতিবাদে মঙ্গলবার বেলা ১টার দিকে দক্ষিণ সুরমার বাবনা পয়েন্টে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন কার্যালয়ের বাইরে শ্রমিকরা অবস্থান গ্রহণ করে।

বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা জানান, ঈদের আগে কল্যাণ তহবিলের টাকা থেকে পরিবহন শ্রমিকদের ঈদ উপহার হিসেবে খাদ্যসামগ্রী প্রেরণের দাবি জানিয়েছিলেন কয়েকজন শ্রমিক নেতা। কিন্তু সেলিম আহমদ ফলিক এতে রাজি হননি। পরে তার কাছে তহবিলের প্রায় আড়াই কোটি টাকার হিসাব চাওয়া হলে তিনি ৪১ লাখ টাকার হিসাব দেন।

সংঘর্ষ থামাতে র‌্যাব ও পুলিশ ব্যাপক চেষ্টা চালিয়ে ও ফাঁকা গুলি করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বিকাল প্রায় ৫টার দিকে থামে সংঘর্ষ।
দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি খায়রুল ফজল সিলেট প্রতিদিনকে বলেন, ‘সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ ১০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে। এছাড়া র‌্যাব ৩ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। উভয়পক্ষের প্রায় ৫০ জন আহত হয়েছেন সংঘর্ষে।’

আরও পড়ুন

সিলেটয কল্যাণ পরিষদ নেতৃবৃন্দের বাজার মনিটরিং

সিলেট জেলা ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ...

পুত্র হত্যা মামলায় মা ও প্রেমিকের মৃত্যুদন্ড

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সুনামগঞ্জে শিশু...