৬ মাস পর বিয়ানীবাজারে মনির হত্যা মামলার রহস্য উদ্ঘাটিত

প্রকাশিত : ১৭ আগস্ট, ২০১৯     আপডেট : ৫ মাস আগে  
  

সিলেট জেলার পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম এর নির্দেশনায় বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব অবনী শংকর কর এর তত্বাবধানে পিএসআই সুরঞ্জিত কুমার দাস এর নেতৃত্বে বিয়ানীবাজার থানায় গত ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রিঃ রুজুকৃত হত্যা মামলা নং-০৮ এর এজাহারনামীয় আসামী মো: নাসির মিয়া @ নাসির উদ্দিন মন্ডল (৩৫), পিতা-মৃত মো: মোক্তার মিয়া @ মোক্তার মন্ডল, সাং-ঈশ^রপুর, থানা-কোতয়ালী, জেলা-রংপুরকে গত ১১-০৮-২০১৯ খ্রিঃ রংপুর পুলিশের সহায়তায় রংপুরের পানিছড়া বাজার হতে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতার আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে ১০/১২ বছর বয়সে বাড়ি হতে সিলেট রেলস্টেশনে চলে আসে। রেলস্টেশন হতে মামলার ভিকটিমের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। আসামী নাসির মিয়া দৈনিক ৪০০/- টাকা বেতনে ভিকটিমের বাড়িতে চাকুরী করতঃ। ভিকটিমের বাড়িতে প্রায় দুই মাস অতিবাহিত হওয়ার পর আসামী বেতনের টাকা চাইলে ভিকটিম মনির উদ্দিন আসামীকে ২,০০০/- (দুই হাজার) টাকা দেন এবং পরে বাকী টাকা দিবে বলে জানায়। এতে ভিকটিম মনিরের উপর নাসিরের রাগ হয় এবং মনে মনে বিভিন্ন পরিকল্পনা তৈরী করে কিভাবে বাড়ি থেকে মালামাল চুরি করে নিয়ে যাওয়া যায়। আসামীর পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক ঘটনার তারিখ গত ০৯/০২/২০১৯ইং তারিখ ভিকটিমের স্ত্রী মেয়ে সহ তার বড় বোনের বাড়িতে বেড়াতে যায়। সেই সুযোগে আসামী নাসির মিয়া ভিকটিম মনির উদ্দিনকে রাত অনুমান ০৯.৩০ ঘটিকায় সময় রাতের খাবার শেষে ০৬ পিস এভিল ট্যাবলেট গুড়া করে গরম দুধের সাথে মিশিয়ে পান করায় । এতে মনির উদ্দিন গভীর ঘুমে পড়ে। আসামী নাসির মিয়া সেই সুযোগে রাত অনুমান ০৩.৩০ ঘটিকায় বাসা হতে ১টি গ্যাসের চুলা, ১ টি কারেন্টের চুলা, ১টি ম্যাগনেট র্টচ লাইট, ১ টি টিভির মনিটর ৩২ ইঞ্চি ও ১,৫৩,০০০/- (এক লক্ষ তেপান্ন হাজার) টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় পরবর্তীতে ভিকটিমের মৃত্যু হয়।
আসামীকে গ্রেফতারপূর্বক বিজ্ঞ আদালতে সোর্পদ করা হলে অদ্য ১৩/০৮/২০১৯ খ্রিঃ বিজ্ঞ আদালত আসামীর ১৬৪ ধারার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণ করে আসামীকে জেল হাজতে প্রেরণের নিদের্শ প্রদান করেন।

আরও পড়ুন



কনজারভেটিভ ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশ’র প্রতিনিধিদল সংবর্ধিত

সিলেট সফররত ইংল্যান্ডের কনজারভেটিভ ফ্রেন্ডস...

চাকায় সমস্যা ওসমানীতে বিমানের জরুরী অবতরণ

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেটে বিমানবন্দরে...

অশান্ত সমাজ

কবির মাহমুদ: মানুষগুলো বদলে গেছে...