৬ মাসের ভাড়া মওকুফের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান

প্রকাশিত : ০৬ জুন, ২০২০     আপডেট : ২ মাস আগে

দেশে করোনা পরিস্থিতিতে অসহায় ভাড়াটিয়াদের ০৬ মাসের বাসা, দোকান,
ছাত্রাবাস ভাড়া সহ বাড়ী মালিকদের হোল্ডিং ট্যাক্স এবং যাবতীয় ইউটিলিটি
বিল মওকুফের জন্য প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেছে ভাড়াটিয়া
স্বার্থ-সংরক্ষণ পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি। ৬ জুন শনিবার সিলেট জেলা
প্রশাসকের মাধ্যমে এই স্বারকলিপি দেন কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দরা।

স্মারকলিপিতে তারা উল্লেখ করেন, বিশ^ তথা দেশের করোনার এই পরিপ্রেক্ষিতে
আপনার অবস্থান থেকে দেশের মানুষের পাশে যেভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন,
তার জন্য বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের পক্ষ থেকে প্রাণঢালা অভিনন্দন ও
কৃতজ্ঞ। বিশে^ আজ করোনা মহামারী অবস্থাতে বাংলাদেশের ভাড়াটিয়া জনগন এক
দুর্বিসহ জীবন যাপন করছেন। বাড়ী মালিকরা ভাড়াটিয়াদের বাড়ী, দোকান ভাড়া ও
ছাত্র-ছাত্রীদের ছাত্রাবাসের ভাড়ার জন্য চাপ দিয়ে নানা হয়রানি করছে এবং
বাড়ী ও দোকান ছেড়ে দেয়ার হুমকি দিচ্ছে। যা অমানবিক এবং মাননীয়
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশকে অমান্য করার সামিল। আপনার নির্দেশ মোতাবেক এরই
মধ্যে বাণিজ্যমন্ত্রী, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম,
সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, চট্টগ্রাম সিটি
কর্পোরেশনের মেয়র নাসির উদ্দিন, চট্টগ্রামের ডিসি, নারায়ণগঞ্জের সংসদ
সদস্য শামিম ওসমান এমনকি দেশের খ্যাতিমান বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গ
বাড়ীওয়ালাদের বাড়ী ভাড়া না নেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন। অনেক বাড়ীওয়ালা
ইতিমধ্যে সীমিত হাড়ে বাড়ী ভাড়া মওকুফও করেছেন। যাহা অনেক অপ্রতুল। আমরা
তাদের স্বাগত জানাই।

দেশের তথা বিশে^র এই পরিপ্রেক্ষিতে দেশ এবং মানুষের কল্যাণে করোনাজনীত
কারণে দেশ-ব্যাপী লকডাউন হওয়ায় সাধারণ মানুষ কোন কাজ কর্ম করতে পারছে না,
বাহিরে কোথাও যেতেও পারছে না, এ অবস্থায় সারাদেশে ব্যবসা-বাণিজ্য স্থবির
হয়ে পড়েছে। যে শ্রমিকরা কাজ করতেন তাদের মধ্যে গার্মেন্ট্স, নির্মাণ
শ্রমিক, আর্ট শিল্প, দোকান কর্মচারী, প্রেস শিল্প, কৃষক, সাংবাদিক সহ
নানা পেশার কর্মজীবি মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। এ অবস্থায় দেখা দিয়েছে
নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দামের উর্ধ্বগতি। একদিকে করোনা ভাইরাসের আতংক
অন্য দিকে অর্থাভাব। সাধারণ মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। এমতাবস্থায়,
মহামারী মোকাবেলায় সাহায্য চাইনা, সহযোগিতা চাই এবং মানবতা চাই। আমরা
বিগত ৩০/০৫/২০২০ইং তারিখে ভাড়া মওকুফের দাবীতে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ
মিনারের সম্মুখে একটি মানববন্ধন করেছিলাম। সেখানে সর্বস্তরের ভাড়াটিয়া
কর্তৃক নিম্ন উল্লেখিত দাবী-দাওয়া উপস্থাপন করি।

দাবিগুলো হলো (১) এই বৈশি^ক মহামারী মোকাবেলায় দোকান, বাসা, ছাত্রাবাস সহ
সকল প্রকার ভাড়া আগামী ৬ মাস পর্যন্ত ৫০% করা হোক। (২) চলতি বছর এবং
আগামী বছরের জুন মাস পর্যন্ত সকল হোল্ডিং ট্যাক্স ও ট্রেড লাইসেন্স ফি সহ
অন্যান্য সকল প্রকার ট্যাক্স ৫০% মওকুফ করা হোক। (৩) গ্যাস বিল, বিদ্যুৎ
বিল ও পানি বিল সহ সকল প্রকার ইউটিলিটি বিল এর ৫০% মওকুফ করা হোক।
বিশ^-ব্যাপী বৈশি^ক এই করোনা পরিস্থিতি থেকে জনগণকে রেহাই দেয়ার জন্য
আগামী জুন হইতে ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত ৬ মাসের ভাড়া সহ বিদ্যুৎ, পানি,
গ্যাস ও সকল প্রকার ট্যাক্স এর ৫০% মওকুফ করার জন্য মাননীয়
প্রধানমন্ত্রীর নিকট আকুল আবেদন করছি।

স্মারকলিপিতে প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি
এডভোকেট এম. এ. সালেহ চৌধুরী, মহাসচিব দেলোয়ার হোসেন, সিলেটের সমন্বয়ক
তৌহিদুল ইসলাম, সিলেট মহানগরীর আহ্বায়ক শাহজাহান চৌধুরী, সিলেট মহানগরীর
সদস্য সচিব রোটারিয়ান আব্দুর রহমান, আব্দুল আউয়াল মিসবাহ, মানবাধিকার
কর্মী আবু তাহের চৌধুরী, মারুফ আহমদ অনিক, মানবাধিকার কর্মী আরমান হোসেন,
সমাজকর্মী আকবর আলী, ডাক্তার আখতার হোসেন প্রমুখ।

আরও পড়ুন

শাবিতে ধর্মঘটের ডাক

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে...

করের আওতায় আসছে ফেসবুক-ইউটিউব-গুগল

করের আওতায় আসছে সামাজিক যোগাযোগ...