১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ৫০ শয্যায় উন্নীত

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ০৩ নভেম্বর, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট-৩ আসনের এম.পি, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মাহমুদ উস-সামাদ চৌধুরী বলেছেন, বর্তমান প্রধান জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে দিয়েছে। ফলে দেশের জনগণ স্বাস্থ্য সেবার সুযোগ গ্রহণ করতে সক্ষম হয়েছেন। উপজেলা পর্যায়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পাশাপাশি প্রতি ৫ হাজার লোকের জন্য কমিউনিটি ক্লিনিক চালু রয়েছে। হাসপাতালের চিকিৎসক স্বল্পতা দূর করার পাশাপাশি বিনামূল্যে ঔষধ দেয়া হচ্ছে। আমার প্রচেষ্টায় দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করা সম্ভব হয়েছে। এ নির্বাচনী এলাকার ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় ও বালাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ৫০ শয্যায় উন্নীত করা হয়েছে। দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি বিশাল জনগোষ্ঠি মধ্যস্থলে ও আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে থাকায় এই হাসপাতারের গুরুত্ব অনেক বেশি। তাই আমি যদি আবরো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে পারি তবে এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ২৫০ শয্যায় উন্নীত করা হবে এবং ভবিষ্যতে এই হাসপাতালটিকে মেডেকেল কলেজ হাসপাতালে রূপন্তর করতে আমার পক্ষ থেকে সব ধরনের চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।
এম.পি মাহমুদ উস-সামাদ চৌধুরী ৩ নভেম্বর শনিবার সকালে ১৪ কোটি টাকা ৭১ লক্ষ ৮ হাজার টাকা ব্যয়ে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করার লক্ষ্যে সম্প্রসারণ ভবনের কাজে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইদ এনাম এর সভাপতিত্বে ও সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শন আতিকুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দক্ষিণ সুরমা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিন্টু চৌধুরী, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ ইমাদ উদ্দিন নাসিরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম করদাতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ সাইফুল আলম, মোগলাবাজার থানার ওসি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, স্বাস্থ্য প্রকৌশলী অধিদপ্তর সিলেটের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মনিরুল হক, সহকারী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক রাজ্জাক হোসেন, সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ¦ চুনু মিয়া। স্বাগত বক্তব্য রাখেন হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মাহবুবুল আলম। বক্তব্য রাখেন দক্ষিণ সুরমা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য জাহাঙ্গীর আলম মুসিক, এমপি’র দক্ষিণ সুরমা উপজেলা সমন্বয়কারী শাহ ছমির উদ্দিন, ডাঃ দেলোয়ার হোসেন, স্বাস্থ্য পরিদর্শক সায়েকুল ইসলাম, আছিয়া আখতার। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা কৃষকলীগের সহ সভাপতি হাজী দুদু মিয়া, দাউদপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম আলম, দাউদপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আহমদ হোসেন খোকন, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা শাহ আলী রাজা, পংকী মিয়া, জালালপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বাবুল মিয়া, সাধারণ সম্পাদক ওয়েছ আহমদ, কুচাই ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আখতার হোসেন, কামালবাজার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার আলী, সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আক্তার হোসেন, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক নুরুল ইসলাম, যুগ্ম আহবায়ক আশিক আলী, মোগলাবাজার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেলিম আহমদ মেম্বার, আইয়ুব হোসেন মেম্বার, যুবলীগ নেতা নিজাম উদ্দিন, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা হেলাল আহমদ ও মঈন উদ্দিন প্রমুখ।
হাসপাতালটি সম্প্রসারণের পাশাপাশি সীমান প্রচারী নির্মাণ করা হবে। স্বাস্থ্য ও প্রকৌশল অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে এ প্রকল্পের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এমবি এন্ড এসএল (জেভি), কলাবাগান ধানমন্ডি, ঢাকা ইতিমধ্যে সম্প্রসারণ কাজ শুরু করেছে। এই নতুন ভবনের পাশেই ডাক্টর ডরমেটরি ভবন, নার্স ডরমেটরি ভবন ও বর্তমান হাসপাতাল ভবনটি ঊধ্বমুখী আরো এক তলা নির্মাণ করা হবে এবং হাসপাতালের সীমানা প্রাচীর ও গেইট নির্মাণ করা হবে।
উল্লেখ্য, দক্ষিণ সুরমার নৈখাইস্থ উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সের পাশে ২০১০ সালে ৪ জুলাই ৩১ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন সিলেট-৩ আসনের এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী। ১১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি বিগত ২০১৩ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গোলাপগঞ্জের এক জনসভায় আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করেন। ইতিমধ্যে এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর প্রচেষ্টায় একটি এ্যাম্বুলেন্স হাসপাতালকে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

তাং- ০৩/১১/১৮ইং জাহাঙ্গীর আলম মুসিক


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন