হুমায়ূন চত্ত্বর ও পরগণা বাজারে মুজাহিদ কমিটি ওয়াজ মাহফিল

প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল, ২০১৯     আপডেট : ১ বছর আগে  
  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক:

* না দেখে বিশ্বাস করার নামই হলো ঈমান–শায়খে চরমোনাই
* মুসলিম উম্মাহকে ঐক্য ও সংহতি বাড়িয়ে দিতে হবে- পীর সাহেব বরুণা

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর সিনিয়র নায়েবে আমির আল্লামা মুফতি সৈয়দ মো. ফয়জুল করিম শায়েখে চরমোনাই বলেন, না দেখে বিশ্বাস করার নামই হল ঈমান। আমরা আল্লাহ ও তার রাসূল (স.) কে দেখিনি। তবুও আল্লাহর উপর ঈমান এনেছি ও রাসূল (সঃ) কে শেষ নবী বলে স্বীকার করেছি। আমরা রাসূল (সঃ) এর উম্মত হিসেবে সারাজীবন তাঁর আদর্শগুলো মেনে চলছি এবং চলব-ইনশাআল্লাহ। এটাই হলো ঈমান। তিনি আরো বলেন, যারা আল্লাহ ও রাসুল, কিয়ামত, পরকাল এসব দেখেনি বলে বিশ্বাস করেনা। তারা মুসলমান নয়, তারা নাস্তিক। আল্লাহ তাআ’লা এবং তাঁর নাম ও গুণাবলী সম্পর্কে মানুষের জ্ঞান যতই বৃদ্ধি পাবে, নিঃসন্দেহে তার ঈমানও তত বৃদ্ধি পাবে। দুনিয়াতে যারা আল্লাহকে ভয় করবে, আখেরাতে তাদের কোন ভয় নেই। মুমিন বান্দারাই আল্লাহকে ভয় করে। আর বেঈমান হলে তারা কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠীকে ভয় করে।
শায়েখ মুফতি রশিদুর রহমান ফারুক পীর সাহেব বরুণা বলেন, মুসলিম উম্মাহকে ঐক্য ও সংহতি বাড়িয়ে দিতে হবে। মুসলমানরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে কোন শক্তি পরাজিত করতে পারবেনা। আমাদের অনৈক্য থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। ঐক্যতার মূল ভিত্তি হল অহংকার, গর্ব, হিংসা পরিহার করা ও পীর বুঝুর্গ আলেম ওলামাদের সামনে রেখে ইসলামের কাজকে এগিয়ে নেয়া। কিছু নামধারী মুসলমান রয়েছে বর্তমান সময়ে তারা একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ রাখা তো দুরের কথা, তারা ফতোয়াবাজিতে ব্যাস্ত। যেখানে উচিত ছিলো এক মুসলমান অন্য মুসলমানের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দ্বীন প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে আত্মনিয়োগ, সেখানে আজ একে অন্যকে ভ্রান্ত, ফাসেক ও কাফের ফতোয়া দিয়ে অমুসলিমদের বাহবা কুড়াচ্ছে। আমাদের এ থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। তাই মুসলমানদেরকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তিনি শাহজালাল জামেয়া ক্বারিমিয়া মাদ্রাসার উন্নয়ন, উন্নতির জন্য সকলের সার্বিক সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করেছেন।
গতকাল ১৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রাতে বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি সিলেট জেলা শাখার উদ্যোগে শাহপরাণ থানাধীন পরগণাবাজারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুফতি ফয়জুল করিম শায়খে চরমোনাই ও দক্ষিণ সুরমা থানার হুমায়ূন চত্ত্বরে প্রধান মেহমানের বক্তব্যে পীর সাহেব বরুণা উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সুলতানপুর মহিলা মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আনোয়ারুল হক চৌধুরী, সিলেট কাজির বাজার মাদ্রাসার শায়খুল হাদীস আল্লামা আহম্মদ আলী, সুলতানপুর মহিলা মাদ্রাসার ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা রেদওয়ানুল হক চৌধুরী, মুহাদ্দিস মাওলানা সাঈদ আহমদ, বায়তুল আমান হাউজিং এস্টেট আবাসিক প্রকল্প জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা ফয়েজ আহমদ, পরগণা মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা আজিজুর রহমান, জিন্নুরাইন মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা জাহিদ উদ্দিন প্রমুখ।

 

আরও পড়ুন