হাদিসে মহিমান্বিত শবে মেরাজ

প্রকাশিত : ১৪ এপ্রিল, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে

ইসলাম ও জীবন ডেস্ক: আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, আমি নিজেকে কাবা ঘরের হাতিমে দ-ায়মান দেখলাম। কোরাইশের লোকরা আমাকে মেরাজের ঘটনা সম্পর্কে জিজ্ঞেস করছিল। তারা আমাকে বাইতুল মুকাদ্দাস সম্পর্কে এমন কিছু প্রশ্ন করল, যা আমার স্মরণে ছিল না। এতে আমি অস্থির হয়ে পড়লাম, এর আগে কখনও এত অস্থির হইনি।

তখন আল্লাহ তায়ালা বাইতুল মুকাদ্দাসকে আমার সম্মুখে উপস্থিত করে দিলেন, ফলে আমি তার দিকে চেয়ে রইলাম এবং তারা আমাকে যে-কোনো বিষয়ে প্রশ্ন করত আমি তা দেখে উত্তর দিতে থাকলাম। আমি মেরাজের রাতে নিজেকে নবীদের এক জামাতের মধ্যে দেখতে পেলাম। তখন দেখি মুসা (আ.) দাঁড়িয়ে নামাজ পড়ছেন। তিনি একজন মধ্যম গঠনের সামান্য লম্বা, মনে হলো যেন (ইয়েমেন দেশের) শানুয়া গোত্রের লোক। আর ঈসা (আ.) কে দাঁড়িয়ে নামাজ পড়তে দেখলাম। লোকদের মধ্যে উরওয়া ইবনে মাসউদ সাকাফি হলেন তার অধিক সদৃশ।

আবার ইবরাহিম (আ.) কেও দাঁড়ানো অবস্থায় নামাজ পড়তে দেখলাম। লোকদের মধ্যে তোমাদের সঙ্গী অর্থাৎ রাসুল (সা.) নিজেই তাঁর নিকটতম সদৃশ। ইত্যবসরে নামাজের সময় হলো এবং আমিই নামাজে তাদের ইমামতি করলাম। অতঃপর যখন আমি নামাজ শেষ করলাম, তখন কেউ আমাকে বললেন, হে মুহাম্মদ! ইনি হলেন দোজখের দ্বাররক্ষী মালেক, তাকে সালাম করুন। নবী করিম (সা.) বলেন, আমি তার দিকে ফিরে তাকাতেই তিনি আমাকে আগেই সালাম দিলেন। (মুসলিম : ৪৪৮)।

সিলেট এক্সপ্রেস/ইসলাম ও জীবন/সোলেমান ইসলাম তাওহীদ

আরও পড়ুন

সিলেটে বাংলা টিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

সিলেটে বাংলা টিভির ৩য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী...

প্লানেট আরাফ কম্পিউটার সিটি’র চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা

সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির...