হাজী সাইফুল আলম দক্ষিণ সুরমা আ’লীগের সভাপতি পদে এগিয়ে

প্রকাশিত : 04 November, 2019     আপডেট : ১ মাস আগে  
  

দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন আগামী ১৬  নভেম্বর। এ সম্মেলনকে সামনে রেখে উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রাণচাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। কে হচ্ছেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এ নিয়ে চলছে চুল চেরা বিশ্লেষণ। উপজেলার আওয়ামীলীগের পছন্দের শীর্ষে আছেন বর্তমান সভাপতি হাজী সাইফুল আলম। তিনি বর্তমান সভাপতি হওয়ায় সর্বক্ষেত্রে উপজেলা আওয়ামীলীগে তার গ্রহণযোগ্যতা ব্যাপক। তিনি স্বচ্ছ রাজনীতিবিদ হিসেবে ব্যাপক সুনাম রয়েছে।

হাজী সাইফুল আলম ১৯৫২ সালের ৩০ জুন লাউয়াই গ্রামের মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। ৭ম শ্রেণীর ছাত্র থাকাবস্থায় তিনি ১৯৬৫ সালে পাকিস্তান-ভারত যুুদ্ধে সিভিল ডিফেন্স টেনিং এর অংশ গ্রহণ করেন। ১৯৬৮ সালে মাধ্যমিক পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হন। ১৯৬৯ সালে ছাত্র সমাজের ১১ দফার আন্দোলনে সিলেটে সক্রিয় ভাবে অংশ গ্রহণ করেন। মদনমোহন মহাবিদ্যালয় থেকে ছাত্র সংসদে ছাত্রলীগের হয়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন এবং বঙ্গবন্ধুর আহবানে বৃহত্তর সিলেট জেলা ছাত্রলীগের রিফিল কমিটির সমাজ কল্যাণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭০ সালে জলোচ্ছাসের সময় বঙ্গবন্ধুর আহবানে সিলেটবাসীর নিকট হতে ৪০হাজার টাকার মালামাল সংগ্রহ করে নোয়াখলী জেলার চরজব্বার, চর আখালিয়া প্রভৃতি স্থানে রিলিফ বিতরণ করেন। একই সালে নির্বাচনে আওয়ামীলীগের হয়ে প্রচারভিযানে সক্রিয় অংশ গ্রহণ করেন। স্বাধীনতা যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর ভারত গমন করেন এবং প্রত্যেক ভাবে যুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেন। ভারতের শিলচর মাছিমপুর ক্যান্টনমেন্টে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কমিশন র‌্যাংকে যোগদান করার লক্ষ্যে ইন্টারভিউ দিয়ে প্যানেলভুক্ত হন। পরবর্তীতে ছাত্র জীবনে ১৯৭২-৭৩ সালে বৃহত্তর সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।
বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালে আয়কর প্রদান করেন এবং ২০১৬-১৭ সালে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম করদাতা হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয় । ১৯৯১ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট ৩ আসনের মনোনয়নের জন্য আবেদন করেন। কিন্তু জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে নৌকার পক্ষে কাজ করেন এবং ২০১২ সাল থেকে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে সততা ও নিষ্টার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

সামাজিক উন্নয়ন ও শিক্ষাক্ষেত্রে সুনামের সহিত বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৮৮ সালে দক্ষিণ সুরমা কলেজে প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদ, সাউথ সুরমা উচ্চ বিদ্যালয়ে পরিচালনা কমিটির সভাপতি, দক্ষিণ সুরমা উন্নয়ন পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক, জালালাবাদ রোটারী ক্লাব সিলেট এর যুগ্ম সম্পাদক, ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে সিলেটের দীর্ঘমেয়াদী করদাতা হিসেবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কর্তৃক পুরস্কৃত হন এবং স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম করদাতা হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেন ও সদর দক্ষিণ নাগরিক কমিটির যুগ্ম আহবায়কের দায়িত্ব পালন করেন।

বর্তমানে হাজী সাইফুল আলম দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ১০ ইউনিয়নের আওয়ামী নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় ও প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন।

আরও পড়ুন



চিকিৎসকদের কাজ মানুষের জীবন রক্ষা করা

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: চিকিৎসকদের কাজ...

ভ্যাট ও আয়কর আইন বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত

সিলেট জেলা ক্যাটারার্স গ্রুপ (সি.জি....