হবিগঞ্জেও প্লাবিত বিস্তির্ণ এলাকা

,
প্রকাশিত : ০১ জুলাই, ২০১৮     আপডেট : ৩ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: মৌলভীবাজার ও সিলেটের পর হবিগেঞ্জর নবীগঞ্জ উপজেলাসহ বিভিন্ন উপজেলাতেও বন্যা দেখা দিয়েছে। অব্যাহত বর্ষণ আর উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলের পানিতে কুশিয়ারা নদীর তীরবর্তী জনপদ বন্যা কবলিত হয়ে পড়েছে। গত তিন দিন ধরে অব্যাহত পানি বৃদ্ধি পাওয়া হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন প্লাবিত হয়েছে। এসব এলাকার অধিকাংশ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। উপজেলার অধিকাংশ রাস্তাঘাট পানিতে তলিয়ে গেছে। এরই মধ্যে দীঘলবাক ইউনিয়নের দীঘলবাক, জামারগাঁও, রাধাপুর, ফাদুল্লা, কুমারকাদা, কসবা, চরগাঁওসহ বেশ কয়েকটি গ্রাম বন্যার পানি গ্রাস করেছে। নদীর পানি প্রবেশ করে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে সামান্য ত্রাণের ব্যবস্থা করা হলেও প্রতিনিয়ত বাড়ছে বন্যাক্রান্তের সংখ্যা। বরাদ্দকৃত ত্রাণ যথেষ্ট নয় বলে জানিয়েছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। বিভিন্ন এলাকায় বন্যাক্রান্তদের জন্য আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে।
রবিবার দীঘলবাগ স্কুল এন্ড কলেজের আশ্রয় কেন্দ্র ও বন্যা কবলিত দুর্গত এলাকা পরিদর্শন করেন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহীদ বিন হাসান, উপজেলা চেয়ারম্যান এডঃ আলমগীর চৌধুরী, ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাঈদ এওলা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী, ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলজার হোসন, সাধারন সম্পাদক সুজাত চেী: দীঘলবাগ স্কুল এন্ড কলেজের সভাপতি আজিজুল হক শিবলী, এডভোকেট আনছার খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডঃ মুজিবুর রহমান কাজল, উপজেলা আওয়ামীলীগের মহিলা সম্পাদক নিলুপা ইসলাম নিলু, ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাঈদ এওলা, ওয়ার্ড সদস্য ফকরুল ইসলাম(ফকরু) সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দরা।
পরিদর্শন শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, প্রয়োজনে আরো আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হবে। ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত থাকবে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

করোনা আক্রান্ত পালিয়ে যাওয়া যুবক আইসোলেশনে

         করোনাভাইরাসে আক্রান্ত পালিয়ে যাওয়া সিলেট...

ড. কামাল হোসেন ও ড. রেজা কিবরিয়ার যৌথ বিবৃতি

1        1Shareসিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক গণফোরামের নামে...

ইসলামপুর থেকে রিভলবার ও ছোরাসহ দুই যুবক আটক

         সিলেট নগরীর উপকণ্ঠ ইসলামপুর পোড়াবাড়ী...