সুস্থ শ্রমিক, নিরাপদ জীবন নিশ্চিত করে টেকসই উন্নয়ন

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ২৮ এপ্রিল, ২০১৮     আপডেট : ৩ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক : সিলেট জেলা প্রশাসন এবং কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের যৌথ উদ্যোগে গত (২৮ এপ্রিল) জাতীয় পেশাগত স্বাস্থ্য ও সেফটি দিবস-২০১৮ উদযাপিত হয়। এবারে এই দিবসের প্রতিপাদ্য ছিল “সুস্থ শ্রমিক, নিরাপদ জীবন ; নিশ্চিত করে টেকসই উন্নয়ন। দিবসটি উপলক্ষে আয়োজিত র‌্যালী উদ্বোধন করেন উপপরিচালক, স্থানীয় সরকার দেবজিৎ সিনহা।
র‌্যালীতে অংশগ্রহণ করেন কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের উপমহাপরিদর্শক হিমন কুমার সাহা, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি প্রকৌশলী এজাজুল হক, জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম রশিদ চৌধুরী, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট সিলেট জেলার সভাপতি আবু জাফর, চা শ্রমিক ফেডারেশন সিলেট জেলার উপদেষ্টা প্রণব জ্যোতি পাল, জেলা নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি শেখ তোফায়েল আহমেদ শেফুল, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও কারখানার শ্রমিক প্রতিনিধিবৃন্দ।
র‌্যালীটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে নগরীর বন্দর বাজার, বঙ্গবীর শিশু পার্ক, ব্রহ্মময়ী বাজার হয়ে প্রশাসকের কার্যালয়ে এসে শেষ হয়। র‌্যালী শেষে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের উপমহাপরিদর্শক হিমন কুমার সাহার সভাপতিত্বে দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত আলোচনা সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো: আব্দুল্লাহ, ডেপুটি সিভিল সার্জন আবুল কালাম আজাদ, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি প্রকৌশলী এজাজুল হক সহ শ্রমিক, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট সিলেট জেলার সভাপতি আবু জাফর, শেখ তোফায়েল আহমেদ শেকুল সহ শ্রমিক প্রতিনিধিবৃন্দ গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো: আব্দুল্লাহ তার বক্তব্যে বলেন শ্রমিকদের ব্যক্তি পর্যায়ের উন্নয়নের মাঝে দেশের উন্নয়ন নিহিত। শ্রমিকদের কর্মক্ষেত্রের নিরাপত্তা বিষয়ে তিনি বলেন, নিজের নিরাপত্তার ব্যবস্থা নিজেদেরেই করতে হবে। তবে মালিক এবং শ্রমিকদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধিতে সংশ্লিষ্ট সরকারী দপ্তর এই বিষয়ে অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। ডেপুটি সিভিল সার্জন তার বক্তব্যে বলেন, সিলেটে কোন অকুপেশনাল থেরাপিস্ট নেই। বিভিন্ন পেশায় কর্মরত শ্রমিকদের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার জন্য ভবিষ্যতে হাসপাতাল গুলোতে অকুপেশনাল থেরাপিস্ট নিয়োগে সরকার উদ্যোগ গ্রহণ করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
উক্ত সভার সভাপতি কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের উপমহাপরিদর্শক হিমন কুমার সাহা শ্রমিকদের পরিচয়পত্র, কর্মক্ষেত্রের নিরাপত্তা সহ শ্রমিকদের বিভিন্ন অধিকারের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ তহবিল হতে আহত ও নিহত শ্রমিকদের অনুদান প্রাপ্তির বিষয়ে উপস্থিত সকলকে অবগত করেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

মুক্তিযুদ্ধ-বাংলাদেশ ও বাঙালির কথা বেশি করে মানুষের সামনে তোলে ধরতে হবে

         কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের ১০২১তম...

দৈনিক ইত্তেফাক এর ৬৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

15        15Sharesসিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল...

সদর উপজেলায় ১৪ শ ৭২ জন চা- শ্রমিকদে মধ্যে ৭৩ লাখ ৬০ হাজার টাকার অনুদান 

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক : সমাজসেবা অধিদফতর...