সিলেট সেনানিবাস ৫টি ইউনিটের পতাকা উত্তোলন

প্রকাশিত : ০৬ মার্চ, ২০১৯     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেছেন, ‌‘বাংলাদেশ সেনাবাহিনী একটি দক্ষ বাহিনী হিসেবে ইতিমধ্যে প্রশংসিত ও স্বীকৃতি লাভ করেছে। সামরিক শক্তি ও দক্ষতা অনেক বেড়েছে। শান্তি রক্ষা মিশনে কাজ করে আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও সুনাম অর্জন করেছে সেনাবাহিনী।’

তিনি বলেন, ‘সেনাবাহিনী দেশের সম্পদ বিশ্বাস ও আস্থার প্রতীক। স্বাধীনতার রক্ষা ও যেকোনো দুর্যোগে সেনাবাহিনী ভূমিকা রেখে চলছে। তারা পেশাগতভাবে দক্ষতা অর্জন করে দেশের সেবায় আত্মনিয়োজিত রয়েছে তারা।’

নবগঠিত সিলেট সেনানিবাসকে পূর্ণাঙ্গ সেনানিবাস হিসেবে প্রতিষ্ঠার আরেকটি ধাপ হিসেবে বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় ১৭ পদাতিক ডিভিশনের অধীনস্থ ৫টি ইউনিটের পতাকা উত্তোলন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, বিএসপি, বিজিবিএম, পিবিজিএম, বিজিবিএমএস, পিএসসি, জি। ১৬১ ফিল্ড ওয়ার্কশপ কোম্পানি ইউনিটের পতাকা উত্তোলন করেন জেনারেল (অব.) মোহাম্মদ আব্দুল মুবিন, ৪২ বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্ট এর পতাকা উত্তোলন করেন লে. জেনারেল (অব.) শাহ আতিকুর রহমান, ৬৫ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট এর পতাকা উত্তোলন করেন সেনা প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, ১২৬ ব্রিগেড সিগন্যাল কোম্পানি পতাকা উত্তোলন করেন লে. জেনারেল (অবঃ) আবু সালেহ মোহাম্মদ নাসিম এবং স্ট্যাটিক সিগন্যাল কোম্পানি এর পতাকা উত্তোলন করেন লে. জেনারেল (অব.) হারুউর রশীদ।
বেলা সোয়া ১১টায় সেনাবাহিনী প্রধান জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্টের ‘এইট সিগন্যাল ব্যাটালিয়ান প্যারেড গ্রাউন্ডে’ পৌঁছলে ১৭ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল এস এম শামিম উজ জামান তাকে অভ্যর্থনা জানান। এরপর প্যারেড কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ আখনুক বিল্লাহ এর নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর একটি চৌকষ দল কুচকাওয়াজ প্রদর্শন করে এবং সেনাবাহিনী প্রধানকে সালাম প্রদান করে। অনুষ্ঠানে উচ্চপদস্থ সামরিক কর্মকর্তাসহ সিলেট সেনানিবাসের সব পদবীর সদস্য উপস্থিত ছিলেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন