সিলেট বিহারে বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপিত

প্রকাশিত : ২৯ এপ্রিল, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে  
  

সিলেট বৌদ্ধ বিহারেও পালিত হয়েছে শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা। রোববার সিলেট বৌদ্ধ সমিতির উদ্যোগে নগরীর আখালিয়া নয়াবাজারস্থ “সিলেট বৌদ্ধ বিহারে” ধর্মীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বুদ্ধপূজা উৎসর্গ, সংঘাদান, অট্্টপরিক্্খার দান, বিশ^ শান্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা ও ধর্মদেশনা, ভিক্ষ সংঘের পিন্ডদান, আলোচনা সভা ও প্রদীপ প্রজ্জলন এর মধ্যদিয়ে উদযাপিত হয়। শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি বলেন, সিলেট শান্তি প্রীতির নগরী। এখানে সব ধর্মের মানুষের বসবাস রয়েছে। একে অপরের প্রতি রয়েছে সহানুভুতি, মায়া, মমতা, ভালবাসা নিয়েই গড়ে উঠেছে স্মৃতিময় নগরী সিলেট। ধর্মীয় অনুসূচনা মেনে চললে অনেক অপরাধ মুক্ত হতে পারে সমাজ। তাই প্রতি ধর্মের রীতি অনুযায়ী তাদের পরিবারের সন্তানদের সূশিক্ষায় শিক্ষিত করে আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার আহবান জানান মেয়র। আলোচনা সভায় সিলেট বৌদ্ধ বিহারের অধ্যাক্ষ শ্রীমৎ সংঘানন্দ থের এর সভাপতিত্বে ও সিলেট বৌদ্ধ সমিতির সাধারণ সম্পাদক উৎপল বড়–য়ার সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, কাউন্সিলর ইলিয়াসুর রহমান, সমিতির উপদেষ্টা রামেন্দ্র কুমার বড়–য়া, প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ধর্মপাল বড়–য়া। পূজনীয় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, স্বামী চন্দ্রনাথানন্দ মহারাজ, শ্রীমৎ সুজানানন্দ থের, শ্রীমৎ প্রজ্ঞাষ্যি ভিক্ষু, শ্রীমৎ শ্রদ্ধানন্দ ভিক্ষু। সভায় উদ্বোধনী ভাষন প্রদান করেন, সমিতির সভাপতি অরুন বিকাশ চাকমা, সম্পাদকী প্রতিবেদন পেশ করেন সাধারণ সম্পাদক উৎপল বড়–য়া। উল্লেখ্য যে সিলেট বৌদ্ধ বিহার নির্মাণের জন্য বিহারের প্রাক্তন সভাপতি ধর্মপাল বড়–য়ার নামে দেওয়া ভূমির নামজারী/দলিলপত্র ইত্যাদি তিনি বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে হস্তান্তর করেন। বিজ্ঞপ্তি।

আরও পড়ুন