সিলেট নগরীতে প্রশাসনের ১ লাখ ৪৮ হাজার জরিমানা

,
প্রকাশিত : ১২ জুলাই, ২০২১     আপডেট : ১০ মাস আগে

কঠোর লকডাউনের ১১তম দিন গতকাল রোববারও সিলেট নগরীতে ব্যাপক তৎপরতা চালিয়েছে প্রশাসন। তবে, আগের দিনের তুলনায় গতকাল রোববার মানুষের আনাগোনা ছিল বেশী। পুলিশের টহল এড়িয়ে দু’একটি সিএনজি অটোরিক্সা চলতেও দেখা গেছে।

এদিকে, কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে গতকালও কাজ করছে সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ, ও র‌্যাব সদস্যরা। সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ অন্যান্য দিনের মতো গতকালও চেকপোস্ট বসিয়ে চালিয়েছে তল্লাশী। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়ার পাশাপাশি অনেককে জরিমানা করা হয়েছে। তবে, জরুরী পরিষেবায় নিয়োজিতরা পরিচয়পত্র দেখিয়ে ও প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে জানিয়ে গন্তব্যে বা কর্মস্থলে যেতে পেরেছেন।

এদিকে, সিলেট জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের তত্ত্বাববধানে সিলেট মহানগরীসহ ১৩টি উপজেলায় ৩৫টি মোবাইল টিম গতকাল একযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে। এ সময় ১৩৫টি মামলায় ১ লাখ ৪৮ হাজার ৭শ’ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ জানায়, করোনাভাইরাসের ব্যাপক ও ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত লকডাউনের কঠোর বিধিনিষেধ বাস্তবায়নের প্রয়োজনে এসএমপির ক্রাইম ও ট্রাফিক ডিভিশনের সাথে ডিবি পুলিশ ও পুলিশ লাইন্স অফিসার ও ফোর্স যৌথভাবে এসএমপির বিভিন্ন স্থানে চেকপোস্ট, সকল থানা- ফাঁড়ি-তদন্ত কেন্দ্র এলাকায় ২৪ ঘন্টা মোবাইল ডিউটিসহ নিরলসভাবে কাজ করছে। এর ধারাবাহিকতায় গতকাল রোববার লকডাউনের ১১তম দিনে লকডাউন বিধিনিষেধ অমান্য করায় সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অভিযানে ৪৭টি যানবাহনে মামলা, ৮৪টি আটক এবং ভ্রাম্যমাণ আদালত কর্তৃক ৪৯ হাজার ৭৮০ টাকা জরিমানা আদায় হয়েছে।
আটককৃত যানবাহনের মধ্যে সিএনজি অটোরিক্সা ৪৫টি, মোটরসাইকেল ১৩টি, প্রাইভেট কার ৩টি ও অন্যান্য ২৩টি রয়েছে।


আরও পড়ুন