সিলেট জেলা পরিষদে বিভিন্ন প্রকল্পে অনিয়ম ও দূর্নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিত

,
প্রকাশিত : ১২ অক্টোবর, ২০২০     আপডেট : ১ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক সিলেট জেলা পরিষদে বিভিন্ন প্রকল্পে অনিয়ম ও দূর্নীতির বিরুদ্ধে ১২ অক্টোবর সোমবার নগরীর জিন্দাবাজারস্থ একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিত হয়।
সিলেট জেলা পরিষদ কন্ট্রাক্টর ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের সভাপতি তোজাম্মেল হক তাজুলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আশফাক উদ্দিন আহমদের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা পরিষদ কন্ট্রাক্টর ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা ও সিলেট চেম্বারের পরিচালক আব্দুর রহমান জামিল, সুব্রত ধর বাপ্পি, সুদীপ দেব, সাজ্জাদ বখত, কামাল আহমেদ, সোয়েব আহমেদ, আলহাজ্ব এম. ইসমাঈল আলী আশিক।
এছাড়াও অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, এসোসিয়েশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি আশরাফুজ্জামান হাসু, আব্দুল মতিন বেলাল, মো. রাসেল আহমদ,রোটারিয়ান শাহজাহান সেলিম বুলবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক শাকিল আহমদ খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. বাবুল মিয়া, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মিলন আহমদ, আক্তার হোসেন খান (সাবেক চেয়ারম্যান), মোবারক হোসেন, শৈলেন কর, আজিজ আহমদ, ওয়াহিদুল ইসলাম রুহেল, শাহ নাজমুল ইসলাম, শামসুল ইসলাম মিলন, ফারুক আহমদ, মুহিবুর রহমান মিশলু, মাহমুদ হোসেন খান, মো. আল মামুন, মো. সেমুন আহমদ, মুহিবুল হক সোহেব, মাহি উদ্দিন মহি, আব্দুস সামাদ, মো. এমরান আহমদ, মো. বাদশা গাজী, গোলজার আহমদ জগলু, জাকির হোসেন, রুমন আলম, সালেহা বেগম, রিংকু কুমার চন্দ, পারভেজ আহমদ, প্রদীপ কুমার দেব, তাজ উদ্দিন, আবু মোহাম্মদ কাওসার,রোহান আহমদ, সাহেদ আহমদ, এম শাহিন, আফজল আহমদ প্রমুখ।
প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, সিলেট জেলা পরিষদে কতিপয় কর্মকর্তারা তাদের পছন্দমত গুটি কয়েক ঠিকাদারকে সরকারি নিয়ম-নীতি উপেক্ষা করে টেন্ডার কারসাজির মাধ্যমে মেন্দিবাগ মার্কেট নির্মাণ ও জেলা পরিষদের ডাক বাংলা সহ বিভিন্ন কাজ দিয়েছেন। এছাড়া কোটেশনের মাধ্যমে কাজ না করে বিল তুলে তাদের মধ্যে ভাগ বাটোয়ারা করে নেন। এর প্রতিবাদে সিলেট জেলা পরিষদ কন্ট্রাক্টর ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে স্মারকলিপি বিগত সময়ে প্রদান করা হয়েছে, কিন্তু এর কোন প্রতিকার বা ব্যবস্থা নেয়নি কর্তৃপক্ষ। সভা থেকে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই, মাননীয় পরিকল্পনামন্ত্রী, মাননীয় পররাষ্টমন্ত্রী ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর সাথে দুর্নীতির বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে সাক্ষাত, মানববন্ধন কর্মসূচী, সিলেটের সর্বমহলের সাংবাদিকদের নিয়ে সংবাদ সম্মেলন, জেলা পরিষদ ঘেরাও সহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। বক্তারা আরো বলেন, বিগত ২০২০- ২০২১ অর্থবছরে অনুষ্টিত ৫টি (ওটিএম) টেন্ডার বাতিলের আহবান জানালে ৪টি টেন্ডার বাতিল করে মূল ১টি দূর্নীতির টেন্ডার বহাল রয়েছে। এ ব্্যাপারে দ্রুত জেলা পরিষদে কতিপয় কর্মকর্তাদের দ্রুত প্রত্যাহার না করা হলে সিলেট জেলা পরিষদ কন্ট্রাক্টর ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন আরো কঠোর কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবে। সংগঠণের নেতৃবৃন্দ এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

বিশ্বনাথে ডাকাতি মামলার ২ আসামি গ্রেফতার : লুণ্ঠিত মোবাইল উদ্ধার

        সিলেটের বিশ্বনাথ থানা পুলিশ অভিযান...

ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ: পুলিশ খোঁজ না পেলেও ফেসবুকে সরব আসামিরা

        সিলেটএক্সপ্রেস ডেস্ক  এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে...

ভেতরে শরীর পোড়া মানুষের আত্মচিৎকার, বাইরে স্বজনদের আহাজারি

        সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: আজ শনিবার।...

সিলেটে রবীন্দ্রনাথের আগমনের শতবর্ষে সিসিকের বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

        বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সিলেট আগমনের...