সিলেট গোলাপগঞ্জ পৌরসভার উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ০৩ অক্টোবর, ২০১৮     আপডেট : ৪ বছর আগে

আজ বুধবার গোলাপগঞ্জ পৌরসভার উপ-নির্বাচন। সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়েছে ভোটগ্রহণ। বিকাল ৪টা পর্যন্ত ৯টি ওয়ার্ডের ৯টি কেন্দ্রে একটানা ভোটগ্রহণ চলবে। নির্বাচনে প্রায় প্রতিটি কেন্দ্রেই শান্তিপূর্ণ পরিবেশে চলছে ভোটগ্রহণ।
ভোট গ্রহণের জন্য নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।
পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হচ্ছেন-বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক, সাবেক মেয়র জাকারিয়া আহমদ পাপলু (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী সিলেট জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মহিউস সুন্নাহ চৌধুরী নার্জিস (নারিকেল গাছ), পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহিন (মোবাইল) এবং আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী, যুক্তরাজ্য যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম রাবেল (জগ)।
নির্বাচনী এলাকায় নিরাপত্তা বিধানের জন্য পুলিশের ৩টি স্ট্রাইকিং ফোর্স, একটি মোবাইল টিম, ৩ প্লাটুন বিজিবি এবং র‌্যাব সদস্যের ৪টি চৌকস দল মাঠে সার্বক্ষণিক নিয়োজিত রয়েছে। পাশাপাশি আনসার সদস্যরাও দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া, ৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং একজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাঠে কাজ করবেন। যে কোনো ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এরই মধ্যে পুরো পৌর এলাকার ৯টি ওয়ার্ড গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। পৌর এলাকায় গত রাত ১২টা থেকে আজ রাত ১২টা পর্যন্ত সব ধরনের যান্ত্রিক যানবাহন চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।
এদিকে, গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী কর্মকর্তাদের কাছে নির্বাচনী সরঞ্জাম হস্তান্তর করা হয়।
গোলাপগঞ্জ উপজেলা অডিটোরিয়ামে সিলেটের আঞ্চলিক নির্বাচন উপ-কমিশনার আলিমুজ্জামান, সিলেট জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার ও পৌর উপ-নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার খোরশেদ আলম, উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও পৌর উপ-নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং অফিসার সাঈদুর রহমানের উপস্থিতিতে নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং অফিসারদের কাছে ব্যালট পেপার, ব্যালট বক্সসহ অন্যান্য সরঞ্জামাদি হস্তান্তর করা হয়। এ সময় নির্বাচনী কর্মকর্তারা জানান, পৌর নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে নির্বাচন কমিশন যাবতীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। নির্বাচনের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত ৯ জন প্রিসাইডিং অফিসার, ৫৯ জন সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার ও ১১৮ জন পোলিং অফিসারকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।
পৌরসভার মোট ভোটার সংখ্যা ২১ হাজার ৬শত ৩২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ১০ হাজার ৯শ’ ৫৮ জন ও মহিলা ভোটার সংখ্যা ১০ হাজার ৬শ’ ৭৪ জন।
গোলাপগঞ্জ থানার ওসি (অপারেশন) মো: দেলওয়ার হোসেন গতরাতে সিলেটের ডাককে জানান, পুরো পৌর এলাকাকে নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা হয়েছে। সেখানে গতকাল মঙ্গলবার রাত থেকে বিজিবি, পুলিশ ও র‌্যাব সহ নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছেন। নির্বাচনের সামগ্রিক পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণ রয়েছে বলে জানান তিনি।
গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের প্রার্থী দলীয় প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ পৌরসভার সর্বশেষ নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ছিলেন জাকারিয়া আহমদ পাপলু। সে নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছিলেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী, তৎকালীন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সিরাজুল জব্বার চৌধুরী। গত ৩১মে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেয়র সিরাজুল জব্বার চৌধুরী ইন্তেকাল করেন। তাঁর মৃত্যুতে এ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।


আরও পড়ুন

ধর্ষকদের শাস্তির দাবীতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মহানগর যুবদলের মানববন্ধন

 সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক:এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে...

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ২১ আগস্টের কর্মসূচি

 প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার...

মাতৃভাষা দিবসে সিলেটে বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের র‌্যালী

 ২১শে ফেব্র“য়ারি মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা...