সিলেটে লবণ গুজব: কঠোর অবস্থানে প্রশাসন

প্রকাশিত : 19 November, 2019     আপডেট : ৩ সপ্তাহ আগে  
  

সিলেটে লবণ গুজবের ঘটনায় নড়চড়ে বসেছে জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আজ মঙ্গলবার সর্বস্থরের দায়িত্বশীলদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভা করেন জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম ।সভায় বক্তারা বলেন, যারা গুজব রটিয়েছে তাদেরকে চিহ্নিত করে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। ভবিষ্যতরে যাতে কেউ এধরনের কর্ম করতে না পারে সে জন্য সকলকে সর্তক থাকতে হবে।
সভায় জেলা প্রশাসক জানান, দেশে লবনের কোন ঘাটতি নেই। বর্তমানে সাড়ে ৬ লাখ মেট্রিক টনের বেশি ভোজ্য লবণ মজুদ রয়েছে। এর মধ্যে কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের লবণ চাষিদের কাছে ৪ লাখ ৫ হাজার মেট্রিক টন এবং বিভিন্ন লবণ মিলের গুদামে ২ লাখ ৪৫ হাজার মেট্রিক টন লবণ মজুদ রয়েছে।

এ সময় কালিঘাট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জিয়াউল হক এবং সাধারণ সম্পাদক দেলওয়ার হোসেন জানান কালীঘাটসহ সিলেট প্রচুর পরিমানে লবণ যা আগামী দুই বছরেও শেষ হবে না।

সিলেটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম বলেন, একটি কুচক্রিমহল নানা ভাবে গুজব রটিয়ে ফায়দা লুটতে চাইতে। বিষয়টি আমাদের নজরে আসার সাথে সাথে আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি। জনগণকে সচেতন করার জন্য মাইকিং করেছি। তিনি বলেন এসব গুজব রোধে জনগণকে সচেতন হতে হবে।
মতবিনিময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, র্যাব ৯ এর অধিনায়ক মেজর শওকত, এসএমপির এডিসি নর্থ বিভূতি ভূষণ বেনাজি ,সিলেট চেম্বারের সভাপতি এটিএম শোয়েব, মেট্রপলিটন চেম্বারের সভাপতি হাসিন আহমদ, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির, জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি তাপস দাশ পুরকাস্থ, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী, বিটিভির সিলেট ব্যুরো চীফ আজিজ আহমদ সেলিম, সিলটিভির প্রধান সম্পাদক আল-আজাদ,বাজার কর্মকর্তা শাহ মো: মুর্শেদ প্রমূখ।

পরবর্তী খবর পড়ুন : Five Tips For Getting An Ideal Employee That Everyone Wants - One

আরও পড়ুন