সিলেটে ব্যাংকে প্রবাসীর ৭৬ লক্ষ টাকা জালিয়াতি, নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন বিলেতপ্রবাসী

প্রকাশিত : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০     আপডেট : ৮ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেটে ওয়ান ব্যাংকের ইসলামপুর শাখার এক কর্মকর্তা লন্ডন প্রবাসী এক গ্রাহকের ৭৬ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে এক লন্ডন প্রবাসী ৩১ ডিসেম্বর লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবে এক লিখিত সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেছেন। বর্তমানে বরখাস্তকৃত এই কর্মকর্তা উল্টো এই গ্রাহকের বিরুদ্ধে চেক প্রতারণার মামলা করে হয়রানি করছেন এবং এই প্রবাসী বর্তমানে দেশে গিয়ে মামলা মোকাবিলায় নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান।

লিখিত বক্তব্যে লন্ডন প্রবাসী রউফ আব্দুর রউফ জানান ২০১২ সালে পারিবারিকসূত্রে পরিচয়ের মাধ্যমে সিলেটের ইসলামপুর ব্রাঞ্চের সেকেন্ড অফিসার মো. সরফরাজ আলীর সাথে পরিচয় হওয়ার পর তার অনুরোধে তিনি অন্য ব্যাংক থেকে তার কষ্টার্জিত সঞ্চিত ৩০ লক্ষ টাকা ওয়ান ব্যাংকের ইসলামপুর শাখায় জমা করেন। পরবর্তীতে লন্ডনে এসে আরো ৪৭ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা ওয়ান ব্যাংকে জমা রাখেন।

২০১৯ সালে তিনি দেশে গেলে ওই কর্মকর্তা ব্যাংকে না গিয়ে আগে তার সাথে দেখা করতে বললে তার সন্দেহ হলে তিনি সরাসরি ব্যাংকে গিয়ে জানতে পারেন ওই কর্মকর্তা বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ধাপে ধাপে পুরো ৭৬ লক্ষ টাকা ২৩টি চেকের মাধ্যমে ২০১৪ সাল থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে উত্তোলন করেন। পরের দিন ওই কর্মকর্তা তার পরিবার নিয়ে গ্রাহকের বাসায় গিয়ে অর্থ আত্মসাতের কথা স্বীকার করেন এবং ওই টাকা ফিরিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। গ্রাহক রাজি হলে প্রথম ২৬ লক্ষ টাকার একটি চেক দিলে ওই টাকা গ্রাহকের একাউন্ট এ জমা হয় কিন্তু আরো ৫ লক্ষ টাকার একটি চেক দিলে তা ব্যাংক কর্তৃক প্রত্যাখ্যাত হয় এবং গত ছয় মাস ধরে বাকি টাকা গ্রাহককে তিনি পরিশোধ করেনন। উল্টো ব্যাংক থেকে প্রত্যাখ্যাত ৫ লক্ষ্ টাকা গ্রাহকের আপনজনদের মাধ্যমে পরিশোধ করেছেন অভিযোগ করে ওই চেক উদ্ধারের জন্য গ্রাহকের নামে প্রতারণার মামলা দায়ের করেন। এই ভূয়া মামলায় হাজিরা দিতে গ্রাহককে আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে যেতে হচ্ছে।

এদিকে টাকা না পেয়ে গ্রাহক ব্যাংক কর্মকর্তাকে উকিল নোটিশ পাঠিয়েছেন এবং ব্যাংক কর্তৃপক্ষ লিখিত অভিযোগ পেয়ে ওই কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করেছে এবং অভ্যন্তরীন তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

ভুক্তভোগী লন্ডন প্রবাসী দেশে গিয়ে আরো আইনি পদক্ষেপ নিতে নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন বলে জানান। এমতাবস্তায় তিনি বাংলাদেশের প্রশাসন, বাংলাদেশ ব্যাংক, বাংলাদেশ হাইকমিশনসহ সকল পক্ষকে তার আত্মসাৎকৃত টাকা ফেরত পেতে হস্তক্ষেপ কামনা করছেন এবং সকল প্রবাসীকে এ ধরণের প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা পেতে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

ওয়ার্ডবাসী সহজেই সেবা পাবে

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেট সিটি...

চা শ্রমিকের দৈনিক মজুরি ৪০০টাকা ঘোষণা করতে হবে

         বাংলাদেশ চা শ্রমিক ফেডারেশন সিলেট...

কুমার গনেশ পালের শোক সভা ৩০ এপ্রিল

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: বাংলাদেশ ফটো...

জেলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যোৎসাহী কমলগঞ্জের মেয়র জুয়েল আহমেদ

         বিশ্বজিৎ রায়, কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি...