সিলেটে পাচারকারীর কবল থেকে কিশোরী উদ্ধার, গ্রেপ্তার ২

প্রকাশিত : ০২ জুলাই, ২০২০     আপডেট : ১ মাস আগে

সিলেট নগরীতে মানবপাচারকারীর হাত থেকে এক কিশোরী উদ্ধার করেছে সিলেট জেলা ডিবি পুলিশ। বুধবার সন্ধ্যায় জালালাবাদ থানার নতুনবাজার এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত কিশোরী চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ থানার পাইকপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। বর্তমানে তারা পরিবারের সাথে ঢাকার বনানী থানার কর্ইাল বিটিসিএল কলোনীতে বসবাস করছেন।

এঘটনায় দুই পাচারকারীকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো – সুনামগ্ঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার থানার ধল গ্রামের মো বাজিদ উল্লার ছেলে জাহান মিয়া (২৫) ও আনোয়ারপুর গ্রামের কামরুজ্জামানের ছেলে রোমান মিয়া (২১)।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম এর নির্দেশনায় জেলা গোয়েন্দা শাখা (দক্ষিণ জোন) এর অফিসার ইনচার্জ আশীষ কুমার মৈত্রর নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের এসআই সৈয়দ ইমরোজ তারেক সহ একদল পুলিশ জালালাবাদ থানার নতুনবাজার এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে কিশোরীকে উদ্ধার ও পাচারকারীদের গ্রেপ্তার করে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ২৪জুন সন্ধ্যায় ঔই কিশোরী তার মায়ের সাথে রাগ করে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। রাতের বেলা ফার্মগেট এলাকায় মানবপাচাকারী চক্রের সদস্য জাহান মিয়া কিশোরীকে পেয়ে সুকৌশলে সিলেট এনে চক্রের অন্য সদস্য রোমান মিয়ার নিকট হস্তান্তর করে। পরে সে ভিকটিমকে দেহব্যবসায় ব্যবহারের উদ্দেশ্যে সিলেট নগরীর নতুন বাজার এলাকার বাসিন্দা শুভরাজ এর হেফাজতে রাখে।

এ বিষয়ে সিলেট জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মোঃ লুৎফর রহমান জানান, গত ২৪জুন সে মায়ের সাথে রাগ করে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। পরে ২৬জুন কিশোরীর ভাই সাহাবুদ্দিন ডিএমপি’র বনানী থানায় একটি নিখোঁজ জিডি করেন। জিডি নং-১০৯৭। পরবর্তীতে একটি মোবাইল নাম্বারের সুত্র ধরে কিশোরী সিলেট শহরে আছে বলে জানা যায়। বুধবার সকালে কিশোরীর ভাই সাহাবুদ্দিন সিলেট জেলা পুলিশের সহায়তা চাইলে পুলিশ সুপারের নির্দেশে জেলা গোয়েন্দা শাখার একটি টিম ভিকটিমকে উদ্ধার করে। গ্রেপ্তারকৃত আসামী ও ভিকটিমকে ডিএমপি’র বনানী থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন