সিলেটে দিনব্যাপী ডিজিটাল ব্যাংকিং মেলা

প্রকাশিত : ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০     আপডেট : ৩ মাস আগে  
  

নগরীর সিলেট স্টেডিয়াম গেইটস্থ মোহাম্মদ আলী জিমনিসিয়ামে আয়োজিত দিনব্যাপী ডিজিটাল ব্যাংকিং মেলা আজ ২৯ ফেব্রুয়ারি শনিবার সকালে উদ্বোধন করা হয়। ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যাংকিং প্রোডাক্ট ও সেবা সম্পর্কে জনসাধারণকে অবহিত করার লক্ষ্যে ইসলামি ব্যাংক বাংলাদেশ লি. সিলেট জোনের উদ্যোগে ও আরো ৪টি ব্যাংকের অংশগ্রহনে দিনব্যাপী ডিজিটাল ব্যাংকিং মেলা অনুষ্ঠিত হয়। মেলায় অংশগ্রহনকারী ব্যাংকগুলো হচ্ছেÑ ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামি ব্যাংক লি. সোশ্যাল ইসলামি ব্যাংক লি., ইউনিয়ন ব্যাংক লি. ও এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক লি.। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক কাজী এনায়েত হোসেন এ মেলার উদ্বোধন করেন।

মেলায় ব্যাংকের এডিসি প্রোডাক্ট প্রদর্শনী ও ব্যবহারের পাশে নতুন একাউন্ট খোলাসহ অন্যান্য ব্যাংকিং সুযোগ সুবিধা প্রদর্শিত হয়। মেলায় হিসাব খোলা ও এডিসি প্রোডাক্টের রেজিস্ট্রেশনকারীদের লটারির মাধ্যমে ২৫টি স্মার্টফোন দেয়া হয় এবং র‌্যাফেল ড্র-এর মাধ্যমে ১০০টি পুরস্কার দেওয়া হয়। এছাড়াও মেলাতে ফ্রি ওয়াই-ফাই জোন, আইটি কর্ণার, ফ্যাশন কর্ণার, দেশের সর্ববৃহৎ অনলাইন স্টোর দারাজ-,রবি,এসএস এল,এয়ারটেল এর স্টল, ব্লাড গ্রুপিং ও ডোনেশনের ব্যবস্থা, ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের পণ্য প্রদর্শনী, ফুড ও বুক কর্ণার ছিল। বিকেলের কর্মসূচি ছিলো সমাপনী ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক কাজী এনায়েত হোসেন বলেন, দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির জন্য ডিজিটাল ব্যাংকিং গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে। ডিজিটাল ফাইনেন্সিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক কাঠামোতে বড় ধরনের সুযোগ সুবিধা এনে দিয়েছে। এর মাধ্যমে মানুষ একস্থান থেকে বিভিন্নস্থানে সহজে টাকা লেনদেন করতে পারে। সরকারের বিভিন্ন ভাতা, অনুদান ও সামাজিক নিরাপত্তা ফাইনেন্সিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে খুব সহজে সম্পাদন সম্ভব হচ্ছে। তিনি বলেন, গ্রাহকদের সচেতন করার জন্য ডিজিটাল ব্যাংকিং মেলা একটি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে। এ দেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিনত করতে হলে আমাদের নিজেদের অবস্থান পরিবর্তন করার পাশাপাশি অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জন করতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল রুপকল্প বাস্তবায়নে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক কর্মকান্ড এগিয়ে নিতে বাংলাদেশের অগ্রগতিতে ডিজিটাল ব্যাংকিংয়ে মানুষকে আন্তরিকতার সাথে সম্পৃক্ত করতে হবে।
ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লি.-এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও সিলেট জোনাল হেড শিকদার মো. শিহাবুদ্দীনের সভাপতিত্বে ও ইসলামী ব্যাংকের এভিপি ও সিলেট শাখার ম্যানেজার অপারেশন সৈয়দ মোহাম্মদ নকীব হোসাইনের পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংক, সিলেট-এর মহাব্যবস্থাপক মো. সিরাজুল ইসলাম, এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের ডিএমডি আতাউস সামাদ, ইসলামী ব্যাংক প্রধান কার্য্যালয়ের ইভিপি এন্ড হেড অব এসএস ম্যানেজমেন্ট ডিভিশন মোহাম্মদ সাঈদ উল্লাহ ও এসভিপি হেড অব ইমপ্লিমেন্টেশন এন্ড সাপোর্ট ডিভিশন মো. আহমেদ জোবায়েরুল হক। ইসলামি ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও সিলেট শাখা প্রধান মো. মনিরুল ইসলামের স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বার অব কমার্স-এর সাবেক সহসভাপতি ও বর্তমান পরিচালক মাসুদ আহমদ চৌধুরী, পরিচালক আলীমুল এহসান চৌধুরী, সোশ্যাল ইসলামি ব্যাংকের ভিপি মো. ফজলুর রহমান, ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামি ব্যাংকের ভিপি ফয়সল আহমদ ও ইউনিয়ন ব্যাংক লি.-এর এসএভিপি হুমায়ুন কবির, উদ্যোক্তা জেবিন সুলতানা, ইসলামী ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট মোঃ শহীদ আহমদ, আলীমুর রহমান, মোঃ ওবায়দুল্লাহ, রাব্বী কামাল চৌধুরী, মোহাম্মদ নুরুজ্জামান সহ সিলেটের সকল শাখা প্রধানসহ কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার মোঃ আব্দুল ওয়াহিদ।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংক, সিলেট এর মহাব্যবস্থাপক মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, এই ধরনের মেলার আয়োজনে ব্যাংক ও কাস্টমারের মধ্যে সম্পর্কের উন্নয়ন হয়। গ্রাহকেরা তাদের বিভিন্ন সুবিধা অসুবিধা শেয়ার করলে সেটি ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা ও গার্ডলাইন তৈরিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে।

আরও পড়ুন



সিলেটের চার জেলায় কাজ করছে সেনাবাহিনীর ২৬টি টীম

করোনাভাইরাস নিয়ে বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবিলায়...

সঞ্জয় কান্তি দাশকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন

ডাক্তারের শরণাপন্ন হলেই রোগ নির্ণয়ের...