সিলেটে জামায়াতের ঘাঁটি ভেঙে দিতে চায় বিএনপি

প্রকাশিত : ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জামায়াত অধ্যুষিত সিলেট-৫ (কানাইঘাট-জকিগঞ্জ) আসনে জামায়াতকে মাইনাস করে এবার শরিকদল জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের প্রার্থীকে দিয়ে আসনটি উদ্ধার করতে চায় বিএনপি। বিপরীতে আওয়ামীলীগের সাবেক এমপি শিল্পপতি হাফিজ আহমেদ মজুমদার দলের পক্ষে মাঠে রয়েছেন। মহাজোট থেকে বর্তমান সংসদ সদস্য জাতীয় পার্টির সেলিম উদ্দিনও নির্বাচনকে সামনে রেখে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। অবশ্য বরাবরের মতই বিএনপি এই আসনে নিজেদের প্রার্থী দিতে ব্যর্থ হয়েছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামায়াত অধ্যুষিত আসনটিতে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি উবায়দুল্লাহ ফারুক ভোটের হিসেবে অনেকটা পিছিয়ে। দলীয় প্রতীক খেজুর গাছ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তার দলটি। ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে মাত্র ৮ হাজার ভোট পেয়েছিলেন মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক।

২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছিলেন মহাজোটের শরিক দল জাতীয় পার্টির সেলিম উদ্দিন। এর আগে ২০০৮ সালে সকল দলের অংশগ্রহণমূলক ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক। তার প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা ছিল মাত্র ৮ হাজার ৯শ ৪৬ ভোট। এবার সেই উবায়দুল্লাহ ফারুককে দিয়েই আসনটি উদ্ধার করতে চায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। জামায়াতের ঘাঁটি ভেঙে দিতে এবার একাদশ জাতীয় নির্বাচনে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামকে আসনটি ছেড়ে দিয়েছে বিএনপি।

৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১লাখ ৯ হাজার ৬৯০ টি ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছিলেন আওয়ামী লীগের হাফিজ আহমেদ মজুমদার। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি ছিলেন জামায়াতের ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী। তারপ্রাপ্ত ভোট ছিল ৭৮ হাজার ৬১ ভোট।

৮ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামায়াতের ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী দাঁড়িপাল্লা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে জয়ী হয়েছিলেন। তার প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা ছিল ৭৭ হাজার ৭শ ৫০ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আওয়ামী লীগের হাফিজ আহমেদ মজুমদার। তার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ছিল ৫২ হাজার ৮শ।

৭ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হন আওয়ামী লীগের হাফিজ আহমদ মুজমদার। সেই নির্বাচনে জামায়াতের ফরিদ উদ্দিন চৌধুরীর সঙ্গে ভোটের ব্যবধান ছিল মাত্র ১ হাজার ৩শ ৬৩ ভোটের। ৫ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইসলামী ঐক্যজোটের মাওলানা ওবায়দুল হক সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আওয়ামী লীগের হাফিজ আহমেদ মুজমদার।

এবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামায়াতের ঘাটি ভেঙ্গে দিয়ে জমিয়তের প্রার্থীকে জয়ী করে আনতে চান বিএনপি নেতারা। তারা নিজেরা ছাড় দিয়ে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের প্রার্থীকে সমর্থন দিয়ে ঐক্যফ্রন্টের মনোনয়ন পেতে সহযোগিতা করেন। শক্তিশালী হাফিজ আহমেদ মজুমদারের বিরুদ্ধে উবায়দুল্লাহ ফারুককে দিয়ে আসনটিতে জয় পেতে মরিয়া বিএনপি। সুত্র বার্তা24


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

সিলেট মহানগর আ.লীগের জরুরী সভা শনিবার

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: সিলেট মহানগর...

পুরুষশূন্য বিশ্বনাথের মনোকুপা গ্রাম

          এমদাদুর রহমান মিলাদ, বিশ্বনাথ...