সিলেটে ‘জানালা’র উদ্যোগে বিনামূল্যে মাস্ক ও সাবান বিতরণ

প্রকাশিত : ২১ মার্চ, ২০২০     আপডেট : ৩ সপ্তাহ আগে  
  

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রকোপকালে একপ্রকার অসাধু ব্যবসায়ীরা যেখানে জীবাণুনাশক সাবান, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজারের মূল্যবৃদ্ধি করে যাচ্ছেন- তখন সমাজের একশ্রেণির মানুষ থেকে যাচ্ছে এগুলো ক্রয়ক্ষমতার বাইরে। গরিব রিকশাচালক, রাস্তায় ফুটপাথে থাকা মানুষ,দিনমজুরেরা ঠিক মতো জানেই-না এই ভাইরাস কী, এই ভাইরাস থেকে বাঁচতে কী করণীয়। জেনে থাকলেও উচ্চমূল্যের কারণে সাবান, স্যানিটাইজার এগুলো কিনে ব্যবহার করতে পারছেন না। এইসব মানুষগুলোর জন্যই সিলেটে “জানালা” ব্যতিক্রমধর্মী কার্যক্রমের আয়োজন করলো।
বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ী কর্তৃক জীবাণুনাশক সাবান, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজারের মূল্যবৃদ্ধির প্রতীকি প্রতিবাদ হিসেবে সিলেটে মাস্ক ও সাবান বিতরণ করেছে সমাজসেবী সংগঠন ‘জানালা’। নগরের বিভিন্ন স্থান ঘুরে গরিব রিকশাচালক, রাস্তা-ফুটপাথে থাকা মানুষ ও দিনমজুরদের মধ্যে এসব বিতরণ করা হয়।
গতকাল শনিবার বিকাল ৪টায় ঘটিকায় নগরীর চৌহাট্টা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে থেকে শুরু করে ‘জানালা’র নেতৃবৃন্দ প্রায় পাঁচ শতাধিক মাস্ক, জীবাণুনাশক সাবান বিনামূল্যে রিকশাচালক, গরিব ফুটপাথের বাসিন্দাদেরকে প্রদান করেন
এবং করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে প্রয়োজনীয় সচেতনতামূলক পরামর্শ প্রদান করেন।
এসময় ‘জানালা’র সঙ্গে একাত্মতা পোষণ করে তাদের সঙ্গে মাস্ক ও সাবান বিতরণকালে মিলিত হন সিলেট জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম।
এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জানালার সভাপতি ইফতি সিদ্দিকী, সহ-সভাপতি ফারদায়েক আহমেদ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এবাদ খান, সাংগঠনিক সম্পাদক মুস্তাক নাদিম সানী, জামী আহমেদ, সায়েম খান, মঞ্জুর আহমেদ আরিফ, আফজাল হোসাইন নাঈম সহ আরো অনেকে।
এসব বিতরণকালে টিম জানালার সদস্যরা বলেন- সমাজের সর্বস্তরের মানুষ সমান। তাদের ও প্রয়োজন রয়েছে মহামারী এই ভাইরাস থেকে নিজেকে রক্ষা করার, বেঁচে থাকার এবং অন্যকেও নিরাপদ রাখার৷ এজন্য আমাদের শিক্ষিত সমাজের দায়িত্ব হচ্ছে তাদেরকে সচেতন করা যাতে করে তারা নিজেরাও নিরাপদে থাকতে পারেন এবং অন্যের ক্ষতির কারণ না হোন।

আরও পড়ুন