সিলেটে জঙ্গি অভিযানে : শক্তিশালী বোমা, সরঞ্জাম ও ল্যাপটপ উদ্ধার

প্রকাশিত : ১২ আগস্ট, ২০২০     আপডেট : ১ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নগরীর টিলাগড়ে জঙ্গি ট্রেনিংয়ের ঘাঁটি তৈরি করে সিলেট কে আতঙ্কের নগরী করতে চেয়েছিল জঙ্গিরা। সিলেট অঞ্চলের প্রধান নাইমুজ্জামানের নেতৃত্বে হযরত শাহজালাল (র.)-এর মাজারে হামলা চালানোর পরিকল্পনাসহ নগরীর গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে হামলা করার পরিকল্পনা ছিল তাদের। কিন্তু তাদের পরিকল্পনায় ভাটা ফেলে কাউন্টার টেররিজমের সদস্যরা। মঙ্গলবার দিনভর জঙ্গি অভিযানে নব্য জেএমবির পাঁচ সদস্য, শক্তিশালী বোমা ও বোমা তৈরীর সরঞ্জামসহ তাদের ব্যবহৃত ল্যাপটপ উদ্ধার করেছে কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট।

গত রোববার রাতে নগরীর মিরাবাজারের উদ্দীপন ৫১ নম্বর বাসা থেকে নব্য জেএমবির সিলেট আঞ্চলিক কমান্ডার ও শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নাইমুজ্জামানকে আটক করা হয়।

পরে ঢাকা থেকে আসা পুলিশের বিশেষ একটি দল আজ ভোর পর্যন্ত নগর ও নগরের উপকণ্ঠের বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে আরো চারজনকে আটক করে। তাদের মধ্যে সাদ ও সায়েম নামের দুজন রয়েছেন। বাকি দুজনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সাদ শাবিপ্রবির শিক্ষার্থী এবং সায়েম মদনমোহন কলেজের ছাত্র। তাদের ঢাকায় নেওয়া হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃত জঙ্গি সাদের বাসায় মঙ্গলবার (১১ আগষ্ট) রাত সাড়ে ৯টার দিকে অভিযান চালায় পুলিশ। অভিযানে সাদের ৪৫/১০ নম্বর শাহজালাল আবাসিক এলাকার বাসা থেকে বোমা ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম, ব্যবহৃত ল্যাপটপ উদ্ধার করেন কাউন্টার টেররিজমের সদস্যরা।

এদিকে টিলাগড়ের শাপলাবাগ ৪০/এ শাহ ভিলায় অভিযান চালায় পুলিশ। শাহ ভিলার মালিক শাহ মো. সামদ আলী জানান, প্রায় ২ মাস আগে জঙ্গি নাইম ও সায়েম কম্পিউটারের ট্রেনিং সেন্টার করার জন্য বাসা ভাড়া নেয়ার ব্যাপারে কথা বলে। পরে চারতলা বাসার এক তলায় একটি ইউনিট ভাড়া নেয় তারা। এসময় তারা ১মাসের অগ্রিম ভাড়া দিয়ে কয়েকদিন পর চুক্তিপত্র করবে বলে চলে যায়। কোন যোগাযোগ না করে মাসখানেক পর আরও একমাসের ভাড়া দিয়ে যায় তারা।

পুলিশ জানায় মূলত তারা টিলাগড়ে জঙ্গি ট্রেনিং সেন্টার খুলতে চাইছিলো। যেখান থেকে তারা সিলেট নগরীর গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে হামলা করার পরিকল্পনা করতে চেয়েছিল।

দিনভর অভিযানে আগে নব্য জেএমবি’র সিলেট সেক্টর কমান্ডারসহ ৫ জনকে আটক করা হয়। পুলিশের ভাষ্য, হযরত শাহজালাল রহমাতুল্লাহ আলাইহির মাজারে হামলা চালানোর পরিকল্পনা ছিল তাদের। আটকৃতরা হলেন নাইমুজ্জামান, মির্জা সায়েম, জুয়েল, সানাউল ইসলাম সাদি ও রুবেল।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

লকডাউনেও বসে নেই মাদক কারবারীরা

         করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সিলেট...

ইলিয়াস কাঞ্চনের মামলায় শাজাহান খানকে আদালতে হাজিরের নির্দেশ

         নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের চেয়ারম্যান...

 বৃহত্তর স্টেশন রোড ব্যবসায়ী সমিতির মানববন্ধন

          সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক :   সিলেট...