সিলেটে ইংরেজ বিরোধী লড়াইয়ে’র ২৩৬তম শাহাদত বার্ষিকী পালন

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ৩১ অক্টোবর, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেটে প্রথম ইংরেজ বিরোধী লড়াইয়ে সৈয়দ হাদী ও সৈয়দ মাহদী’র ২৩৬তম শাহাদত বার্ষিকী পালন উপলক্ষে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্যে বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক, দৈনিক সিলেটের ডাক-এর নির্বাহী সম্পাদক আবদুল হামিদ মানিক বলেছেন, সৈয়দ হাদী-মাহেদীর বিদ্রোহ আমাদের ইতিহাসের একটি অনালোচিত দিক হলেও এটি আমাদের জন্য আলোকিত এবং গৌরবজনক অধ্যায়। এ পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী এটি ছিলো ব্রিটিশ বিরোধী প্রথম সশস্ত্র বিদ্রোহ।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের গুণীজন মূল্যায়ন সেল এর উদ্যোগে সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সংসদের সহ-সভাপতি ও দৈনিক উত্তরপূর্ব পত্রিকার প্রধান সম্পাদক আজিজ আহমদ সেলিম।
গুণীজন মূল্যায়ন সেল-এর আহবায়ক সেলিম আউয়ালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মাসিক শাহজালাল সম্পাদক মো. রুহুল ফারুক এবং আলোচনায় অংশ নেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ কর্নেল সৈয়দ আলী আহমদ (অব.), সংসদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী, সাবেক সহ-সভাপতি এম.এ. করিম চৌধুরী, সংসদের কোষাধ্যক্ষ আবদুস সাদেক লিপন এডভোকেট, মাসিক আল ইসলাহ সম্পাদক আবদুল মুকিত অপি এডভোকেট, কার্যকরী পরিষদ সদস্য কবি মুহিত চৌধুরী, জাহেদুর রহমান চৌধুরী, সৈয়দ মোহাম্মদ তাহের, শাহজালাল বিশ^বিদ্যালয়ের অধ্যাপক শাহাদত চৌধুরী, অধ্যাপক বাছিত ইবনে হাবীব এবং সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাহফুজ আহমদ। অনুষ্ঠানে ‘সংগ্রাম-শান্তির কবিতা’ শীর্ষক স্বরচিত কবিতা পাঠের আসরে অংশ নেন সিরাজুল হক, এখলাছুর রাহমান, সৈয়দা মুক্তদা হামিদ, জুবের আহমদ সার্জন, আবদুস শাহিদ, আব্দুল বাছিত, সাজন আহমদ সাজু, কুবাদ বখত চৌধুরী রুবেল, সেলিম সিকদার, জাওয়াদুর রহমান।
সৈয়দ আলী আহমদ বলেন, হাদা মিয়া-মাদা মিয়ার বিদ্রোহ ভারতের প্রথম ইংরেজ বিরোধী মুক্তিযুদ্ধ। ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে আত্মত্যাগকারী অনেকের নাম বাদ দেয়া হয়েছে, তাদেরকে খোঁজে বের করে যথার্থ সম্মান জানাতে হবে।
এম.এ. করিম চৌধুরী বলেন, সিলেট জাতীয়ভাবে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে, নতুন প্রজন্মের সামনে তা তুলে ধরতে হবে।
স্বাগত বক্তব্যে দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী বলেন, আমরা যদি অতীত ভুলে যাই, তাহলে সমৃদ্ধ ভবিষ্যত গড়তে পারবো না। সমৃদ্ধ ভবিষ্যৎ সৃষ্টির জন্য আমাদের নতুন প্রজন্মকে ইতিহাস সচেতন করে গড়ে তুলতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে আজিজ আহমদ সেলিম বলেন, হাজার বছরের ইতিহাস ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ একটি অঞ্চল হচ্ছে সিলেট। আমাদের সমৃদ্ধ ইতিহাসের গৌরবজনক তথ্য আমাদের নতুন প্রজন্মকে দেশপ্রেম- দেশগঠনে উদ্বুদ্ধ করবে।
মূল প্রবন্ধে মো. রুহুল ফারুক বলেন, আমরা সবাই যদি সৈয়দ হাদী, সৈয়দ মাহদীর স্মৃতি সংরক্ষণে সক্রিয় হই, ইতিহাস-ঐতিহ্য পরবর্তী প্রজন্মকে জানানোর জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করি তাহলে আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম আরো সমৃদ্ধ হবে।
উল্লেখ্য, ১৭৮২ সালে এদেশে ইংরেজ শাসন কায়েমের মাত্র ২৫ বছরের মাথায় সিলেটের শাহী ঈদগাহে ইংরেজদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেন সিলেটের মানুষ। এই বিদ্রোহে নেতৃত্ব দেন সৈয়দ মোহাম্মদ হাদী ও সৈয়দ মোহাম্মদ মাহদী, এই দুই ভাই। সেই ঈদগাহ ময়দানেই ইংরেজদের গুলিতে এই দুই ভাই শাহাদাত বরণ করেন। এই ঘটনাটি ঘটেছিল তিতুমীরের বিদ্রোহেরও আগে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

আজিজ আহমদ সেলিম এর মৃত্যুতে চেম্বারের শোক প্রকাশ

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক সিলেটের সিনিয়র...

বিশ্বজুড়ে ছন্দপ্রভা ছড়িয়ে দিলো ছান্দসিক

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: ‘ছন্দপ্রভা ছড়িয়ে...