সিবিএ-এর উদ্যোগে বাংলাদেশ ব্যাংকে শোকদিবসের আলোচনা সভা

প্রকাশিত : ৩০ আগস্ট, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে  
  

মো. আব্দুল বাছিত: বাংলাদেশ ব্যাংক, সিলেট-এর নির্বাহী পরিচালক মো. শাহ আলম বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মা, মাটি ও মানুষের নেতা ছিলেন। সারাজীবন দেশের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক এবং সাংস্কৃতিক মুক্তির জন্য কাজ করেছেন, অনেক ত্যাগ-তিতিক্ষা এবং জুলুম নির্যাতন সহ্য করে তাঁর ক্যারিশম্যাটিক নেতৃত্ব দিয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা উপহার দিয়েছেন। দেশের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য ব্যাংকারদেরকে কাজ করতে হবে। সোনার বাংলা গড়ে তুলতে দায়বদ্ধতাকে বাড়াতে হবে।
বাংলাদেশ ব্যাংক এমপ্লয়ীজ এসোসিয়েশন (সিবিএ), আঞ্চলিক কমিটি, সিলেট-এর উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস ও শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে মাসব্যাপী কর্মসূচীর অংশ হিসেবে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. মোফাখখারুল ইসলামের সভাপতিত্বে গত বুধবার (২৯ আগস্ট) বাদ সন্ধ্যায় ব্যাংকের প্রশিক্ষণ হলে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক মো. সাজ্জাদ হোসেন, জীবন কৃষ্ণ রায় এবং প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংক এমপ্লয়ীজ এসোসিয়েশন (সিবিএ) কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. মনজুরুল হক।
প্রণয় রায়, মো. মোফাজ্জল হোসেন এবং মো. মাহমুদুল হাসানের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপমহাব্যবস্থাপক মো. কমর উদ্দিন, মো. শওকত আলী, বাংলাদেশ ব্যাংক এমপ্লয়ীজ এসোসিয়েশন (সিবিএ) কেন্দ্রীয় কমিটির সমাজকল্যাণ সম্পাদক হাফেজ মো. আব্দুল বারেক, বাংলাদেশ ব্যাংক নীল দলের সভাপতি কবীর আহমদ শরীফ, বাংলাদেশ ব্যাংক অফিসার ওয়েলফেয়ার কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক মো. ইকবাল হাসান, নীল দলের সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব চন্দ্র দত্ত, ব্যাংক ক্লাবের সভাপতি বিনয় ভূষণ রায়, সহ সভাপতি সতীশ চন্দ্র দাশ, মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম কমান্ড, বাংলাদেশ ব্যাংক, সিলেট-এর সভাপতি সুব্রত তালুকদার, অফিসার্স এসোসিয়েশনের সহ সভাপতি মো. আব্দুল কাইয়ুম, সহকারী পরিচালক রাহাত বিন কুতুব, বাংলাদেশ ব্যাংক এমপ্লয়ীজ এসোসিয়েশন (সিবিএ), আঞ্চলিক কমিটি, সিলেট-এর কার্যকরী সভাপতি মো. আব্দুল ওয়াহিদ, কর্মচারী সংঘের সভাপতি আব্দুল মতিন। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিবিএ আঞ্চলিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ মো. আলমগীর। শুরুতে ১৫ আগস্ট শাহাদাৎ বরণকারী শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে ১ মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়। শেষে শহীদদের মাগফেরাত কামনায় মোনাজাত করা হয়। শুরুতে পবিত্র কোরআনস তেলাওয়াত এবং শেষে মোনাজাত পরিচালনা করেন বাংলাদেশ ব্যাংক মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা আবুল কাশেম।
সভায় বাংলাদেশ ব্যাংক, সিলেট-এর উপমহাব্যবস্থাপক স্বরুপ কুমার চৌধুরী, মো. হারুনুর রশীদ, শান্তনু কুমার রায়, ছৈয়দ আহমদ, মো. আব্দুল হাছিবসহ বাংলাদেশ ব্যাংক সিলেট-এর সর্বস্তরের কর্মকর্তা, বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন ব্যাংকের সিবিএ-এর নেতৃবৃন্দ সভায় উপস্থিত ছিলেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম হওয়ার মাধ্যমে দেশে স্বাধীনতার বীজ বপন হয়েছেন। বঙ্গবন্ধু বীজকে প্রস্ফুটিত করে পৃথিবীর মানচিত্রে বাংলাদেশকে উপহার দিয়েছেন। দেশের সার্বিক উন্নয়ন নিশ্চিৎ করতে সবাইকে কাজ করতে হবে।
মহাব্যবস্থাপক জীবন কৃষ্ণ রায় বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পৃথিবীর ইতিহাসের এক দূরদর্শী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। স্বাধীনতা অর্জনে তাঁর ত্যাগ-তিতিক্ষা পৃথিবীর ইতিহাসে অমর হয়ে থাকবে। স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
প্রধান বক্তা বাংলাদেশ ব্যাংক এমপ্লয়ীজ এসোসিয়েশন (সিবিএ) কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. মনজুরুল হক বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দু:খী মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর উদ্দেশ্য নিয়ে কাজ করেছেন। সারাজীবন অসংখ্যবার জেল-জুলুম সহ্য করেছেন। নিজের জীবন বাজি রেখে বাংলাদেশের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। তাঁর ত্যাগকে সত্যিকারভাবে মূল্যায়ন করার জন্য সবাইকে কাজ করতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের উন্নয়নে অসামান্য অবদান রেখেছেন বঙ্গবন্ধু। ব্যাংকারদেরকে তাই দেশের অর্থনৈতিক মুক্তি আনতে ভূমিকা পালন করতে হবে।

আরও পড়ুন



হবিগঞ্জ শায়েস্তাগঞ্জে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক  : হবিগঞ্জের...

নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস আজ

তাসলিমা খানম বীথি: আজ বিশ্ব...

ল’ইয়ার্স ৫ম প্রীতি ফুটবল টুর্নামেন্ট সমাপ্ত

ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে...