সমাজের যে কোন কাজে কল্যান মুখী হতে হবে

প্রকাশিত : ২০ মার্চ, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে  
  

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জি বলেছেন. মানুষের কল্যাণে এগিয়ে আসা অনেক বড় মহৎ কাজ। শুধু দারিদ্র গোষ্ঠীর জন্য নয়, বিশেষ করে অসহায় শিক্ষার্থীদের জন্য এগিয়ে আসা উচিত। সমাজের যে কোন কাজে কল্যানমুখী হওয়া প্রয়োজন। অতীতে যারা মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছেন, ঠিক সেইভাবে তাদেরকে অনুসরণ করে এগিয়ে যেতে হবে। দারিদ্রতার কারনে কোনো শিক্ষার্থীর লেখাপড়া যেন বন্ধ না হয়, সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। জননী ফাউন্ডেশন কর্মের মাধ্যমে অসহায় মানুষের প্রতি যেভাবে এগিয়ে আসছে এবং তাদের মন মানসিকতা ও সততা যেভাবে কাজ করছে আমার বিশ্বাস একদিন সিলেটের জন্য গৌরব নিয়ে আসবে। সমাজের কল্যানের জন্য, মানবতার কল্যানের জন্য সম্মিলিতভাবে সকলকে কাজ করে যেতে হবে।
সমাজসেবা মুলক সংগঠণ জননী ফাউন্ডেশন সিলেট-এর নতুন কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
জননী ফাউন্ডেশনের সভাপতি কবি মোশাররফ হোসেন সুজাতের সভাপতিত্বে গতকাল সোমবার কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাখেন, সিলেট জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট এমাদুল্লাহ শহীদুল ইসলাম, সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সিলেট-এর সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, বিশিষ্ট কবি আব্দুল বাসিত মোহাম্মদ, সিলেট জেলা বারের সিনিয়র আইনজীবী আ্যডভোকেট জালাল আহমদ।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট এমাদুল্লাহ শহীদুল ইসলাম বলেন, সুশাসনের জন্য যেখানে অন্যায় সেখানে প্রতিবাদ করতে হবে। মৌলিক অধিকারের জন্য আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। প্রচারমুখি না হয়ে সবাইকে আরো বেশি কর্মমুখি হতে হবে।
সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)-এর সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী বলেন, বাল্যবিবাহ বন্ধের লক্ষ্যে সমাজকে সচেতন করতে হবে। বঞ্চিত মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য লড়াই করতে হবে। সমাজের কল্যাণে কাজ করার পাশাপাশি নিজের সুন্দর ভবিষ্যৎ গড়ার প্রতিও নজর দিতে হবে।
জননী ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মো: আমজাদ হোসাইন ও মহিলা সম্পাদিকা সৈয়দা শেফা’র যৌথ সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা দিবা ও শুভেচ্ছা বক্তব্যে রাখেন, এডভোকেট মাসুদ আহমদ চৌধুরী মহসিন, সিলেট এক্সপ্রেসের স্টাফ রিপোর্টার গল্পকার তাসলিমা খানম বীথি ও জননী মিডিয়ার সেক্রেটারী গীতিকার মাহমুদুর রহমান, জননী ফাউন্ডেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুূল ইসলাম সুমন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ মোস্তাফিজ তৈমুর, অর্থ সম্পাদক আতাউর রহমান সজীব, প্রচার সম্পাদক রশিদুর রহমান, সাহিত্য সম্পাদক মাহমুদুর রহমান জায়গীরদার, প্রচার সম্পাদক রায়হান তালুকদার। অনুষ্ঠান শেষে জননী ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে ২০১৮ সালের কবিতায় সম্মাননা প্রদান করা হয় কবি মোশাররফ হোসেন সুজাতকে, লেখার জন্য মো: আমজাদ হোসাইনকে, তরুণ সাহিত্যকর্মী সৈয়দা দিবাকে, সংগঠক হিসেবে নাজমুূল ইসলাম সুমন ও আতাউর রহমান সজীবকে। গান পরিবেশন করেন ফাউন্ডেশনের সদস্য আলীনুর আলী। কবিতা পাঠ করেন ছড়াকার সৈয়দ মুক্তদা হামিদ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ফাউন্ডেশনের সদস্য রিয়াজ উদ্দিন।

আরও পড়ুন



শাল্লায় বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ওজাতীয় শিশু দিবস পালিত

হাবিবুর রহমান হাবিব : সুনামগঞ্জের...

বাগবাড়িতে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগের অভিযোগ

সিলেট নগরীর বাগবাড়িতে দীর্ঘদিন থেকে...

বিশ্বনাথ উপজেলা বিএনপির ৯ নেতার পদ স্থগিত

দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থি ও গঠনতন্ত্র...