সচেতনতা মশক নিধনে সবচেয়ে বড় অস্ত্র – কাউন্সিলর কয়েস লোদী

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারি, ২০২০     আপডেট : ২ সপ্তাহ আগে  
  

হাউজিং এস্টেট এসোসিয়েশন-এর উদ্যোগে সোমবার মশক নিধন অভিযান নগরীর হাউজিং এস্টেট-এ শুরু হয়েছে। সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক প্যানেল মেয়র, ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদী হাউজিং এস্টেট মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় এ মশক নিধন অভিযান উদ্বোধন করেন।
মশক নিধন অভিযান উদ্বোধনকালে কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদী বলেন, সকলের সচেতনতা মশক নিধনে সবচেয়ে বড় অস্ত্র হতে পারে। মশার বংশ বিস্তার হয় মূলত অপরিচ্ছন বাসা এবং আশপাশের যেকোনো জায়গায়, ফুলের টব, প্লাস্টিকের পাত্র, পরিত্যক্ত টায়ার, প্লাস্টিকের ড্রাম, মাটির পাত্র, বালতি, টিনের কৌটা, ডাবের খোসা বা নারিকেলের মালা, কনটেইনার ইত্যাদিতে জমে নোংরা পানির মাধ্যমে। তাই তিন দিন পর পর এইসকল পানি অপসারণ করা জরুরি। এক্ষেত্রে মশক নিধন অভিযান আয়োজক হাউজিং এস্টেট এসোসিয়েশন প্রশংসার দাবিদার।
মশক নিধন অভিযান উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন হাউজিং এস্টেট এসোসিয়েশনের সভাপতি প্রফেসর ডা. আজিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ডা. একে এম দাউদ, সহ সম্পাদক ওলায়েত হোসেন লিটন, কোষাধ্যক্ষ মাওলানা মো. জাকারিয়া আহমেদ, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস মাসুম, অলি আহমদ চৌধূরী, হাজী আব্দুল বারী, লুৎফুর রহমান, আব্দুল তাহিদ, জি এম চৌধূরী, শাহ আবরু মিয়া, ওমর মাহবুব’সহ স্থানীয় সচেতন নাগরিকবৃন্দ।

আরও পড়ুন