সংসদের অলৌকিক আলোয় হুমায়ূন আহমেদ আলোকিত হয়েছিলেন

প্রকাশিত : ২০ জুলাই, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: নন্দিত কথাশিল্পী হুমায়ূন আহমেদের ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকীতে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের ১০০১তম সাহিত্য আসরে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা বলেছেন, হুমায়ূন আহমেদের শৈশবের সোনাঝরা দিনগুলো কেটেছে সিলেটে। চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র থাকাকালে তার ভাই আজকের বিশিষ্ট লেখক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল, বোন শেফুসহ মিরাবাজার থেকে হেঁটে হেঁটে দরগা গেইটের কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদে আসতেন। তিনি স্বীকার করেছেন সংসদে এসে তার কাছে প্রকান্ড একটা জানালা খুলে যায় এবং সেই জানালা দিয়ে আসা অলৌকিক আলোয় তিনি আলোকিত হয়েছিলেন।
অদ্য ১৯ জুলাই বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সাহিত্য সংসদের সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল মুকিত অপির সভাপতিত্ত্বে আলোচনা সভায় ‘সিলেটে হুমায়ূনের শৈশব এবং মুসলিম সাহিত্য সংসদ’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন সংসদের সহসভাপতি গল্পকার সেলিম আউয়াল।
আলোচনায় অংশ নেন- কার্যকরী পরিষদের সহসভাপতি লে. কর্ণেল (অব.) সৈয়দ আলী আহমদ, কবি ও সাহিত্য সমালোচক বাছিত ইবনে হাবীব। পঠিত লেখার ওপর আলোচনা করেন ছড়াকার কামরুল আলম । উপস্থিত ছিলেনÑ সংসদের কার্যকরী সদস্য শফিকুর রহমান, কবি কামাল আহমদ, ছড়াকার রেজাউল হক, ।
আসরে লেখাপাঠে অংশ নেন- এম, এ, হান্নান, মোঃ ফজলুল হোসেন মিনা, মোঃ শওকত আলী, সাঈদ চৌধুরী,এম শহিদুজ্জামান চৌধুরী, কুবাদ বখত চৌধুরী রুবেল, এম, আশরাফ আলী, মোহাম্মদ শাহাদত হোসেন চৌধুরী, আতাউর রহমান বঙ্গী, সৈয়দ মুক্তদা হামিদ, মামুন হোসেন বিলাল, বাহাউদ্দিন বাহার, মাছুমা টফি একা, জালাল জয়, মুয়াজ বিন এনাম, আব্দুল্লাহ আল মামুন, শামছুল হুদা সোয়েব, মোঃ লায়েক আলম, মোঃ আজিজুর রহমান আরিফ, জুনায়েদ আহনাফ, এম, এ, কাইয়ুম, সাজন আহমদ সাজু, রায়হান কবির, সৈয়দ মোফাজ্জল ইসলাম, সৈয়দ কামরুল হাসান, সাদিকুর রহমান, মাহফুজ হাসান শুভ্র, মাহমুদ হাসান স্বপ্ন। আসরে হুমায়ূন আহমেদের প্রিয় গিয়াস উদ্দিন আহমদ রচিত ‘মরিলে কান্দিসনা আমার দায়’ গানটি পরিবেশন করেন জুনায়েদুর রহমান।
আসর উপস্থাপনা করেন গল্পকার তাসলিমা খানম বীথি। শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন কবি মুহাম্মদ ফয়জুল হক।

আরও পড়ুন