শীতল ছায়া যেখানে ঘুমায়

প্রকাশিত : ১৩ মে, ২০২০     আপডেট : ২ সপ্তাহ আগে  
  

সাঈদ চৌধুরী:

বিলেতের সকালটা আজ সূর্য ঝলমল ছিল
কবিতার জন্য আমি প্রকৃতির কাছে যাই
নিকটতম পার্কে কোন পাখি উড়ছে না
জনগনও বাতাসকে দূষিত করছেনা।

সাউথ পার্ক বৃক্ষরাজি সমৃদ্ধ এবং পরিচ্ছন্ন
বহু বন্যপ্রাণী, টুফড হাঁস, পোকার্ড আর
মিশরীয় গিজ মাঠ জুড়ে ছড়িয়ে আছে
তারা আজ নিঃশব্দ এবং তন্দ্রাচ্ছন্ন।

পার্কে ম্যালার্ড হাঁসগুলো ঘোড়ার মত ঘুমাচ্ছে
ঘোড়া আত্মরক্ষার জন্য নাকি দাঁড়িয়ে ঘুমায়
তার শরীর বেশ ভারী আর পিঠ সোজা
দাঁড়াতে অনেকটা সময় লেগে যায়।

লেকের পাশে কানাডা গোজও দাড়িয়ে ঘুমায়
তারাও হয়ত করোনা ভাইরাসে ভীত-ত্রস্ত
নাকি অদৃশ্য কোন হন্তারক আসতে পারে
আক্রান্ত হবার ভয়ে আত্মরক্ষা চায়।

রোদেলা মিষ্টি উত্তাপ ছিল আকাশে
দুপুর গড়িয়ে ক্লান্ত গ্রীষ্ম যেন এখন শান্ত
মেঘের প্রবাহে বাতাসে গাছের পাতা নড়ছে
কেমন অলসভাবে, তৃণমূল শীতল অবকাশে।

দোলনার কাছে থমকে দাঁড়াই
আমি দেখতে চাই শিশুরা হাসছে
বাতাসে যেন ঝড় উঠেছে আর তারা
সাবধানে আরোহণ করে নেমে আসছে।

রবিবার সকালে শিশুরা যখন দৌড়ায়
সূর্যের উত্তাপ তাদের স্ফটিক প্রবাহিত করে
প্রাত্যহিক জীবনে নিরাপদে তারা খেলা করে
মাথায় বরফের ভেজা চুল তখন রোদে শুকায়।

এই পার্কের সবুজ গাছ, লেক আর পাখির
শ্রুতি মধুর আওয়াজে আমার প্রাণ জুড়ায়
হৃদয় আকৃতির কর্নার গুলো টানে আমাকে
শয্যা নিবিড়ভাবে শীতল ছায়া যেখানে ঘুমায়।

আরও পড়ুন