শিশুকে গলা কেটে হত্যা

,
প্রকাশিত : ২১ ডিসেম্বর, ২০২১     আপডেট : ৫ মাস আগে

জামালগঞ্জে মাহবুব আলম রিহান (৬) নামে এক শিশুকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। নিহত শিশুটি জামালগঞ্জ সদর ইউনিয়নের পূর্ব লক্ষীপুর গ্রামের হানিফ উদ্দিনের পুত্র। এ ঘটনায় তৌহিদ মিয়া (২৮) নামের এক যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় লোকজন।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, পার্শ্ববর্তী তাহিরপুর উপজেলার ভাটি তাহিরপুর গ্রামের তৌহিদ মিয়া জামালগঞ্জ সদর ইউনিয়নের পূর্ব লক্ষীপুর গ্রামে বোনের বাড়ি বেড়াতে আসেন। সোমবার সকালে আকস্মিকভাবে দুলাভাই হাবিব মিয়ার বোনের ছেলে শিশু রিহানকে দা দিয়ে জবাই করে হত্যা করেন তিনি। এ ঘটনায় তৌহিদকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে নিহতের পরিবার ও স্থানীয়রা।
এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য ইমামুল জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে লোকটা মানসিক ভারসাম্যহীন। গত বৃহস্পতিবার বোনের বাড়িতে বেড়াতে আসেন এবং স্থানীয় বাজার থেকে একটি দা কিনে আনেন। ওই দা দিয়েই তার দুলাভাইয়ের ভাগনেকে খুন করেন।
তিনি আরও বলেন, হত্যার পর আটক করা হলে তৌহিদ জানায় প্রায়ই স্বপ্নে দেখে তাকে কে বা কারা দা দিয়ে তাড়া করে বেড়ায়। তাই আক্রমণ প্রতিহত করতে কিনে আনা দাটি নিজের বালিশের নিচে রেখে ঘুমাতে যান। সোমবার সকালেও তেমনটা হলে ঘুম থেকে জেগে তার সামনে শিশুটিকে আসতে দেখে দা দিয়ে অতর্কিত হামলা করলে ঘটনাস্থলেই শিশুটি মারা যায়।
জামালগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মীর মোহাম্মদ আব্দুন নাসের জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় শিশু হত্যাকারীকে আটক করা হয়েছে। নিহত শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে আটক হয়েছে। আটক যুবকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।


আরও পড়ুন

ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ: পুলিশ খোঁজ না পেলেও ফেসবুকে সরব আসামিরা

 সিলেটএক্সপ্রেস ডেস্ক  এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে...

নার্সেস এসোসিয়েশন সিওমেক’র কমিটি গঠন

 বাংলাদেশ নার্সেস এসোসিয়েশন (বি এন...

ভিজিডি কার্ড কেড়ে নিলেন চেয়ারম্যান

 পছন্দের চেয়ারম্যান প্রার্থীকে ভোট দিয়ে...