শিল্পমান সমৃদ্ধ লেখার দিকে লেখকদের মনোযোগ দিতে হবে

প্রকাশিত : ১০ নভেম্বর, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে  
  

কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের ১০১৬ তম সাহিত্য আসরে বক্তারা বলেছেন, লেখালেখি একটা শিল্প। শব্দের পর শব্দের গাঁথুনি দিয়ে পৃষ্ঠার পর পৃষ্ঠা না লিখে শব্দ দিয়ে শিল্প সৃষ্টি করা প্রয়োজন। শব্দের সৌন্দর্য, বর্ণনার মুন্সিয়ানা, পড়ার মুগ্ধতা নিয়ে একটি লেখা শিল্পমানসমৃদ্ধ হয়। বক্তারা বলেন, সকল লেখকদের উচিত প্রতিটি লেখাকে শিল্পগুণে অংকিত করা, এক্ষেত্রে সবাইকে আরো বেশি মনোযোগী হতে হবে। ৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রাতে সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন সংসদের সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক আব্দুল মুকিত অপি এডভোকেট। আলোচনায় অংশ নেন-কার্যকরী পরিষদের সহসভাপতি সেলিম আউয়াল, কার্যকরী পরিষদের সদস্য রুহুল ফারুক ও জাহেদুর রহমান চৌধুরী, কবি ও সাহিত্য সমালোচক বাছিত ইবনে হাবীব, যুক্তরাজ্যের জনপ্রিয় পত্রিকা সাপ্তাহিক জনমতের নির্বাহী সম্পাদক গল্পকার ও সাংবাদিক সাঈম চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন- কার্যকরী পরিষদের সদস্য ফজলুল করিম আজাদ, কলামিস্ট বেলাল আহমদ চৌধুরী, প্রবীণ শিক্ষাবিদ মোঃ শওকত আলী, নন্দিনী সাহিত্য ও পাঠচক্রের সাধারণ সম্পাদক কবি হোসনে আরা কলি। লেখাপাঠে অংশ নেন- সংসদের সহসভাপতি সৈয়দ আলী আহমদ, এম আশরাফ আলী, ইছমত হানিফা চৌধুরী, এখলাছুর রহমান, সিরাজুল হক, কামরুল আলম, মোহাম্মদ আব্দুল হক, সামছুদ্দোহা ফজল সিদ্দিকী, কামাল আহমদ, লিপি খান, সৈয়দ মুক্তদা হামিদ, সালিম আহমদ, শাফায়েত হোসেন, জুনেদ আহমদ, আলাল আহম্মদ, আরমান মুন্না, আকরাম সাবিত, আহমদ জুয়েল, রায়হান কবির, জালাল উদ্দিন সরকার, আব্দুল বাছিত, মোঃ আব্দুল গাফফার উমরা মিয়া, মোঃ মাসুদ রানা, পল্লব চন্দ্র দেব, কবির আহমেদ, আহমদ জাবীর, মকসুদা আহমদ, জুবের আহমদ সার্জন, মোঃ বাহার উদ্দিন বাহার, অজয় বৈদ্য অন্তর, সৈয়দ কামরুল হাসান, কাজী আল মামুন, আকলিমা খানম আমিনা, শাহাদৎ হোসেন টিপু, মোঃ শাহিদুর রহমান (শাহীন), মোঃ লিলু মিয়া, শেখর চন্দ্র বোধ। সাহিত্য আসর উপস্থাপনা করেন গল্পকার তাসলিমা খানম বীথি। শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মোঃ আব্দুল বাছিত।

আরও পড়ুন