শারদীয় দুর্গোৎসবের বিজয়া দশমী আজ

,
প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর, ২০২০     আপডেট : ৩ মাস আগে
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

এক্সপ্রেস ডেস্ক :-আজই মর্ত্য ছাড়বেন দুর্গতিনাশিনী, ফিরবেন স্বামীর গৃহ কৈলাশে। বছরের আশ্বিন মাসের শুক্ল পক্ষের পঞ্চমী তিথি থেকে দশমী তিথিতে জগজ্জননী উমা দেবীর পিতৃগৃহ থেকে বেরিয়ে যাওয়া হয়। আশ্বিন মাস মলিন মাস (এক মাসে দুটি অমাবস্যা হলে মলিন মাস ধরা হয়) থাকায় এবার কার্তিক মাসের শুক্ল পক্ষের পঞ্চমী তিথি থেকে দশমী তিথিতে জগজ্জননী উমা দেবীর পিতৃগৃহ থেকে বেরিয়ে যাবেন। মহাষষ্ঠীর দিন অকাল বোধনে স্বামীর ঘর কৈলাশ থেকে দেবীর অধিষ্ঠান হয়েছিল ঠাকুরঘরে বা পূজামণ্ডপে। ষষ্ঠী থেকে দশমীর বিদায়ের সময় একদিকে আনন্দের জোয়ার, আবার অন্যদিকে বিষাদের সুর বাজে। আজ বিজয়া দশমী। সকালে দশমী পূজার পর দর্পণ বিসর্জন করা হবে।
শরতের শুক্লপক্ষে ভক্তের অকাল বোধনে মা-দুর্গা – দেবী লক্ষ্মী, দেবী সরস্বতী, কার্তিক, গণেশ, কলা বৌ এবং মাথার উপর শিবকে নিয়ে সপরিবারে আসেন ধরাধামে বা মণ্ডপে। সাথে অসুর, দুর্গার বাহন সিংহ, লক্ষ্মীর বাহন পেঁচা, সরস্বতীর বাহন শ্বেতহংস, কার্তিকের বাহন ময়ূর, গণেশের বাহন ইঁদুর। বিদায় বেলায় সকলকে নিয়ে মা উমা ফিরবেন কৈলাশে।
আদ্যাশক্তি মহামায়া মর্ত্যে আসেন সকল অশুভ শক্তি বিনাশ করে শান্তি প্রতিষ্ঠা এবং অধর্ম নির্মূল করে ধর্ম সংস্থাপন করতে। দেবী মহামায়া অসুরী শক্তির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে বিজয়ী হয়ে মর্ত্যে শান্তি প্রতিষ্ঠা করেন।
গতকাল রোববার ছিল মহানবমী। নবমী পূজা শেষে যজ্ঞাদি অনুষ্ঠিত হয়। যজ্ঞ নবমী পূজার মধ্য দিয়ে ভক্তরা দুর্গতিনাশিনী, মহিষাসুর মর্দিনীর আরাধনা করেন। মহানবমীর রাতেও নগরীর পূজামন্ডপগুলোতে ভক্ত, পুণ্যার্থী ও দর্শনার্থীদের ভিড় ছিল লক্ষ্যণীয়।
নগরীর দাড়িয়াপাড়ার চৈতালী সংঘ, দাড়িয়াপাড়ার ঝুমকা সংঘ, শ্রী শ্রী রক্ষাকালি বাড়ি, সনাতন যুব ফোরাম, মির্জাজাঙ্গালের দত্ত কুঠির, জল্লারপাড়ের সত্যম শিবম সুন্দরম, লামাবাজারের তিন মন্দির, মাছুদিঘিরপাড়ের ত্রিনয়নী, মাছিমপুর মণিপুরীপাড়ার শ্রীশ্রী গোপীনাথ জিউর মন্দির ও মাছিমপুর কুরি পাড়া, চালিবন্দর, কাস্টঘর, যতরপুর, তোপখানা, শেখঘাট, রায়নগর, ঝেরঝেরিপাড়া, শিবগঞ্জ, গোপালটিলা, বালুচর, দুর্গাবাড়ি, আম্বরখানা, করেরপাড়া, আখালিয়া কালিবাড়ি, গোটাটিকর, জৈনপুর ও শিববাড়ি পূজামণ্ডপে মানুষের ভিড় দেখা যায় ।
নগরীর চাঁদনীঘাটে আজ সোমবার বেলা ১টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত প্রতিমা বিসর্জন করা হবে। বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ সিলেট মহানগর শাখার ব্যবস্থাপনায় প্রতিমা বিসর্জনের সকল প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে। পূজা উদযাপন পরিষদ সিলেট মহানগর শাখার সুবোধ মঞ্চ থেকে প্রতিমা বিসর্জন নিয়ন্ত্রণ করা হবে জানান, মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত। তিনি আরো জানান, প্রতিমা বিসর্জন উদ্বোধন করবেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। প্রতিমা বিসর্জনের সময় শোভা যাত্রা বর্জন, বিসর্জনকালে শিশু-মহিলা ও বৃদ্ধ-বৃদ্ধা (বয়স্ক ব্যক্তিদের) সাথে না রাখা, প্রতিমা বহনকালে রাস্তায় মাইক ও সাউন্ড সিস্টেম না বাজানোর জন্য অনুরোধ জানান তিনি।
এদিকে, গতকাল রোববারও সিলেটে নিযুক্ত ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার নিরাজ কুমার জশওয়াল শারদীয় দুর্গাপূজার নবমী তিথিতে পূজামন্ডপে সপরিবারে পরিদর্শনে যান। তিনি নগরীর মির্জাজাঙ্গালে সনাতন যুব ফোরাম সিলেট এর পূজামন্ডপে উপস্থিত হলে তাঁকে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ সিলেট মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত অভ্যর্থনা জানান।
এসময় উপস্থিত ছিলেন সনাতন যুব ফোরাম সিলেট এর সভাপতি মিহির দেব, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার কর্মকার প্রমুখ।
সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগ ঃ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় দুর্গোৎসবের নবমীতে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন এর নেতৃত্বে সিলেট নগরীর বিভিন্ন পূজামন্ডপ পরিদর্শন করেছেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।
গতকাল রোববার দুপুরে নগরীর চালিবন্দর সার্বজনীন পূজামন্ডপ, রাইজিং স্টার কাষ্টঘর সার্বজনীন পূজামন্ডপ, গোটাটিকর মহামায়া সার্বজনীন পূজামন্ডপ, তোপখানা সার্বজনীন পূজামন্ডপ, মাছুদিঘী পাড় ত্রিনয়নী সার্বজনীন পূজামন্ডপ ও জামতলা সার্বজনীন পূজামন্ডপ পরিদর্শন করেন নেতৃবৃন্দ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট প্রদীপ ভট্টাচার্য্য, বিজিত চৌধুরী, মো. আব্দুর রহমান জামিল, বিধান কুমার সাহা, কাউন্সিলর আজম খান, কাউন্সিলর তৌফিক বক্স লিপন, ১৪নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট বিজয় কুমার দেব, নিজাম উদ্দিন ইরান, ছয়েফ খান, মাহফুজ চৌধুরী জয়, প্রভাষক রনদ্বীপ চৌধুরী লিংকন, অমিতাভ চক্রবর্তী রনি, প্রভাষক মিন্টু চন্দ্র দাস, সোয়েব আহমদ প্রমুখ।
সৈয়দা জেবুন্নেছা হকের শুভেচ্ছা ঃ
আওয়ামী লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক এমপি সৈয়দা জেবুন্নেছা হক সনাতন ধর্মালম্বীদের শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি এক বিবৃতিতে বলেন, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় দুর্গাপূজার সাথে মিশে আছে আবহমান বাংলার ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি। আমাদের দেশের হাজার বছরের ইতিহাসে অসাম্প্রদায়িকতার যে মেলবন্ধন রয়েছে-তা সার্বজনীন। ধর্মীয় উৎসবের পাশাপাশি দুর্গাপূজা দেশের জনগণের মাঝে পারস্পরিক সহমর্মিতা ও ঐক্য সৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। দুর্গাপূজা সবার মধ্যে স¤প্রীতি ও সৌহার্দ্যরে বন্ধনকে আরো সুসংহত করবে- এই প্রত্যাশা করছি।’
ছাতকে দূর্গাপুজা মন্ডপ পরিদর্শনে উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ ঃ
ছাতক উপজেলার বিভিন্ন দুর্গাপূজা মন্ডপ শনিবার পরিদর্শন করেন ছাতক উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ। তাদের মধ্যে ছিলেন সভাপতি এডভোকেট পিযুষ কান্তি ভট্টাচার্য, পৌর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মহন্ত কুমার রায়, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার রবীন্দ্র কুমার দাশ,সুনামগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের অন্যতম সদস্য,ছাতক উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক কৃপেশ চন্দ। নেতৃবৃন্দ পূজা মন্ডপের সভাপতি,সাধারণ সম্পাদকসহ পুজারীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন ও সার্বিক খোঁজ খবর নেন। তারা বৈশ্বিক করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের নির্দশনায় সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন পরিষদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক শান্তি পূর্ণ ও উৎসব মুখর পরিবেশে পূজা উদযাপন করার জন্য পুজারীদের প্রতি আহবান জানান। নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন পূজা মন্ডপে পৌঁছলে পুজা কমিটির সভাপতি,সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ তাদেরকে স্বাগত জানান।


  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

আরও পড়ুন

সিলেট জেলা পরিষদের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন

1        1Shareসিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক : স্বাধীনতার মহান...

শাহজালাল জামেয়া কামিল মাদরাসা নাজিরেরগাও’র পুরস্কার বিতরণ

1        1Shareশাহজালাল জামেয়া ইসলামিয়া কামিল মাদরাসা...

কাকুয়ারপারের অজিফা বেগম এলাকাবাসীর বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছেন

3        3Sharesসিলেট প্রেসক্লাবে পাল্টা সংবাদ সম্মেলনে...