শহীদ জিয়ার স্বাধীনতা ঘোষণার মধ্য দিয়ে জাতি মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিল

,
প্রকাশিত : ২৬ মার্চ, ২০১৮     আপডেট : ৪ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দ বলেছেন- মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষনাই ছিল মহান মুক্তিযুদ্ধের মুলমন্ত্র। ২৫ শে মার্চের কালো রাত্রে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী নিরীহ জনতার উপর নৃশংস হামলা চালায়। জাতির কঠিন পরিস্থিতিতে মেজর জিয়াউর রহমান কালুরঘাটস্থ স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে মহান স্বাধীনতার ঘোষনা দিয়ে জাতিকে মুক্তিযুদ্ধে উদ্ধুদ্ধ করেন। যার ফলে দীর্ঘ ৯ মাস রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বিশ্ব মানচিত্রে লাল সবুজের স্বাধীন বাংলাদেশ নামের রাষ্ট্রের অভ্যুদয় ঘটে। ক্ষমতাসীন অবৈধ সরকার মহান স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ভুলুন্ঠিত করে দেশকে একটি তাবেদার রাষ্ট্রে পরিনত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। স্বাধীনতার চেতনায় উদ্ধুদ্ধ হয়ে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার ও গণতন্ত্রের মা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে দেশপ্রেমিক জনতাকে ঝাপিয়ে পড়তে হবে।
সোমবার ২৬ শে মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে সিলেট মহানগর বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভায় নেতৃবৃন্দ উপরোক্ত কথা বলেন। সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিমের পরিচালনায় মহানগর বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মহানগর বিএনপি অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকী, সহ-সভাপতি এডভোকেট ফয়জুর রহমান জাহেদ, সহ-সভাপতি সালেহ আহমদ খসরু, আব্দুস সাত্তার, আব্দুর রহিম, মুফতী বদরুন নুর সায়েক, অধ্যাপিকা সামিয়া বেগম চৌধুরী, সুদীপ রঞ্জন সেন বাপ্পু, আমির হোসেন, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত চৌধুরী সাদেক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম আহমদ সিদ্দিকী, সৈয়দ মঈনুদ্দিন সোহেল, কাউন্সিলার দিনার খান হাসু, মাহবুব কাদির শাহী, এডভোকেট আতিকুর রহমান সাবু ও হুমায়ুন আহমদ মাসুক, সাংগঠনিক সম্পাদক কাউন্সিলার সৈয়দ তৌফিকুল হাদী, মুকুল মোর্শেদ ও মাহবুব চৌধুরী, দফতর সম্পাদক সৈয়দ রেজাউল করিম আলো, প্রচার সম্পাদক শামীম মজমুদার ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক খসরুজ্জামান খছরু প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে নাসিম হোসাইন বলেন- ক্ষমতাসীন অবৈধ বাকশালী সরকার স্বাধীনতার ইতিহাসকে বিকৃত করে জাতিকে বিভ্রান্ত করছে। মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের অর্জনকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে। কিন্তু শহীদ জিয়া শুধু স্বাধীনতার ঘোষনা দিয়েই ক্ষান্ত হননি জীবন বাজি রেখে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে দেশ স্বাধীন করেছেন। বিএনপি হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত দল। কারণ বিএনপিতেই সবচেয়ে বেশী মুক্তিযোদ্ধা রয়েছেন। শহীদ জিয়া স্বাধীনতার ঘোষনা দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে করে দেশ স্বাধীন করেছেন। আর বেগম খালেদা জিয়া গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। তাই সরকার তাঁকে কারারুদ্ধ করে রেখেছে। স্বাধীনতার চেতনায় উদ্ধুদ্ধ হয়ে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে দেশপ্রেমিক জনতাকে ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে নেমে আসতে হবে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন