লোদীকে নিয়ে কামরানের নির্বাচনী বৈঠক

প্রকাশিত : ০৮ জুন, ২০১৮     আপডেট : ২ বছর আগে

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র, বিএনপি নেতা রেজাউল হাসান কয়েস লোদীকে নিয়ে নির্বাচনী মতবিনিময় সভা করলেন সাবেক মেয়র ও সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন কামরান। আজ শুক্রবার বাদ জুমা হাউজিং এস্টেটে ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় আসন্ন সিটি নির্বাচনকে নিজের জীবনের শেষ নির্বাচন হিসেবে আখ্যায়িত করে সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান বলেন, বিগত দিনের ভুলভ্রান্তির জন্যে আমাকে আল্লার ওয়াস্তে মাফ করবেন। আমাকে শেষবারের মতো সুযোগ দিন। আমি আপনাদের উপর ট্যাক্সের বোঝা চাপিয়ে দিইনি এবং ভবিষ্যতেও দেব না। আমি সিলেট সিটি কর্পোরেশনকে রাজনীতির উর্ধ্বে এনেছি। আমি সিলেট সিটি কর্পোরেশনকে একটি গণমুখী প্রতিষ্ঠানে পরিণত করবো।

কামরান তার বক্তব্যে কয়েস লোদীকে একজন ‘অতি ভদ্রলোক’ হিসেবে আখ্যায়িত করেন। প্যানেল মেয়র হিসেবে কয়েস লোদীকে বিগত সময়ে দায়িত্ব না দেয়ার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, প্যানেল মেয়র হওয়া সত্বেও দায়িত্ব না দিয়ে লোদীর প্রতি প্রতিহিংসামুলক আচরণ করা হয়েছে। একদিনের জন্যে হলেও তাকে ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব দেয়া উচিত ছিলো।

কামরান শান্তিপূর্ণ নির্বাচন কামনা করে বলেন, আপনারা অপপ্রচারের বিভ্রান্ত হবেন না। তিনি ঈমান আক্বিদা রক্ষার উপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, আমাদের ইয়াংরা যাতে পথভ্রষ্ট না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

কয়েস লোদী তার বক্তব্যে সাবেক মেয়র কামরানকে ‘সবার প্রিয় মানুষ’ এবং ‘শ্রদ্ধাভাজন সহকর্মী’ আখ্যায়িত করে বলেন, দীর্ঘ ১০ বছর তার নেতৃত্বে আমার কাজ করার সুযোগ হয়েছে।

কয়েস লোদী সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন কামরানকে ভোট প্রদান সম্পর্কে কোন ধরনের মন্তব্য না করে বলেন, মনের অনেক কথা চাইলেই বলা যায় না। তবে আমরা চাই জনবান্ধব জনপ্রতিনিধি। আল্লাহ সম্মান দানের মালিক। যখন যাকে ইচ্ছা তিনি সম্মানিত করেন। যিনি যোগ্য আল্লাহ যেন তাকে কবুল করেন।

এ সময় সিলেট জেলা বারের সাবেক সভাপতি ফখর উদ্দিন, বিএমএ-র সাবেক সভাপতি ডা. একেএম হাফিজ, লায়ন্স-এর ডিস্ট্রিক্ট গভর্নর ডা. আজিজুর রহমান, সমাজসেবী হাজী সফিক উদ্দিন আহমদ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি মতিউস সামাদ চৌধুরী মতি, কাউন্সিলর প্রার্থী আকরার বক্ত মজুমদারসহ এলাকার  বিভিন্ন স্তরের নাগরিকরা উপস্থিত ছিলেন।

বদর উদ্দিন কামরান আজ হাউজিং এস্টেট মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন।

আরও পড়ুন