লিডিং ইউনিভার্সিটির ১১তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা

প্রকাশিত : ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯     আপডেট : ৪ মাস আগে  
  

সিলেটের প্রথম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় লিডিং ইউনিভার্সিটির ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ (মেজর ইন ইসলামিক ইকনোমিকস এ্যান্ড ব্যাংকিং) এর উদ্যোগে ১৩ ডিসেম্বর শুক্রবার লিডিং ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাসের গ্যালারি-১ এ বিভাগীয় প্রধান ফজলে এলাহি মামুনের সভাপতিত্বে ও অত্র বিভাগের শিক্ষক মুহাম্মদ জিয়াউর রহমানের উপস্থাপনায় এমএ প্রোগ্রামের ১১তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠিত হয়। সভার শুরুতে কালামে হাকিম থেকে তিলাওয়াত করেন ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের এম.এ প্রোগ্রামের শিক্ষার্থী হাফিয রুম্মান আহমেদ নাতে রাসুল উপস্থাপন করেন অত্র বিভাগের এম এম প্রোগ্রামের শিক্ষার্থী আমহদ রবি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লিডিং ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ কামরুজ্জামান চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন লিডিং ইউনিভার্সিটির আধুনিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. এম রাকিব উদ্দিন, ইসলামি ফাউন্ডেশন এর উপ-পরিচালক মাওলানা শাহ মোঃ নজরুল ইসলাম এবং গ্রামীন ব্যাংকের যোনাল ম্যানেজার সিলেট যোন মো. হারুনুর রশিদ ভূঁইয়া ।
প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, শান্তিময় সমাজ, দেশ ও জাতি গঠনে ইসলামি শিক্ষার গুরুত্ব অপরিসীম। লিডিং ইউনিভার্সিটি কর্তৃপক্ষ যুগের চাহিদাকে সামনে রেখে আধুনিক শিক্ষার পাশাপাশি ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ প্রতিষ্ঠা করে ইসলাম ও আধুনিক শিক্ষার সমন্বয়ে একজন যোগ্য নাগরিক গড়তে সচেষ্ট। তাই অত্র বিভাগ হতে পাশ করা শিক্ষার্থীরা শান্তিপূর্ণ সমাজ গঠনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে। তিনি আরোও বলেন, বর্তমানে জঙ্গিবাদ একটি বৈশ্বিক সমস্যা। ইসলামি শিক্ষার অপব্যাখ্যার মাধ্যমে আমাদের মুসলিম যুব সমাজকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা হচ্ছে। তাই ইসলামের সুমহান বাণী উপস্থাপন করে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় আমাদেরকে কাজ করতে হবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. রাকিব উদ্দিন বলেন, ইবাদত কবুল হওয়ার অন্যতম শর্ত হালাল উপার্জন। ইসলামি অর্থব্যবস্থা সম্পর্কে সম্যক ধারণা প্রত্যেকেরই প্রয়োজন। লিডিং ইউনিভার্সিটি এ বিষয়টি সামনে রেখে ইসলামি অর্থব্যবস্থার সম্পর্কে সম্যক ধারণা দেওয়ার জন্য ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে ইসলামি অর্থনীতি ও ব্যাংকিং বিষয়কে অর্ন্তভূক্ত করা হয়েছে।
গ্রামীন ব্যাংকের যোনাল ম্যানেজার সিলেট যোন মো. হারুনুর রশিদ ভূঁইয়া বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিদায়ী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনার অত্র ইউনিভার্সিটির প্রতিনিধি। তাই নিজেকে একজন মানুষ হিসেবে মানব সেবায় আপনাদের আত্মনিয়োগ করতে হবে। উক্ত সংবর্ধনা সভায় অত্র বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরিশেষে বিদায়ী শিক্ষার্থীদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন লিডিং ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মো: কামরুজ্জামান চৌধুরীসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। ইসলামি স্টাডিজ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় প্রধানের আলোচনার মাধ্যমে সভার সমাপ্তি হয়। বিজ্ঞপ্তি

আরও পড়ুন