লিডিং ইউনিভার্সিটির ভাদ্র মাহাত্ম্য ১৪২৭ উদযাপন

প্রকাশিত : ০২ সেপ্টেম্বর, ২০২০     আপডেট : ৪ সপ্তাহ আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নতুন আমেজে ভাদ্র মাহাত্ম্য ১৪২৭ উদযাপন করেছে সিলেটের প্রথম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় লিডিং ইউনিভার্সিটি। মঙ্গলবার ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ভার্চুয়াল এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ‍্যাপক এম এম শহিদুল হাসান পিএইচডি।
লিডিং ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ও বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান দানবীর ড. সৈয়দ রাগীব আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে লিডিং ইউনিভার্সিটির উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) শ্রীযুক্ত বনমালী ভৌমিক এবং বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য সৈয়দ আব্দুল হাই উপস্থিত ছিলেন। আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে গান পরিবেশন করেন বাংলাদেশের বিশিষ্ট রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী রোকাইয়া হাসিনা নীলি।

অনুষ্ঠানে ভাদ্র মাসের তাৎপর্য নিয়ে বক্তব্য, গান, স্বরচিত ছড়া ও কবিতা আবৃত্তি করেন লিডিং ইউনিভার্সিটির শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং তাদের পরিবারের সদস্যবৃন্দ।
আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক এম এম শহিদুল হাসান বলেন, কোভিট-১৯ এর পরিস্থিতি বিশ্বকে নতুন করে ভাবতে শিক্ষা দিয়েছে। উন্নয়নের চাকা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে বিভিন্নভাবে, মানুষ ঘরের মধ‍্যে দীর্ঘসময় থাকার পরে বঞ্চিত হচ্ছে সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ থেকে। সেই সময়ে লিডিং ইউনিভার্সিটির ভিন্ন আঙ্গিকের আজকের এই ভাদ্র মাহাত্ম্য অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে খুবই ভালো লাগলো। শরতের নীল আকাশে মেঘ ভেসে বেড়ানোর সময় ভাদ্রের মাহাত্ম্য অনুষ্ঠান নতুন প্রজন্মকে এদেশের কৃষ্টি, কালচার এবং ঐতিহ্যের সাথে পরিচয় করিয়ে দিবে এবং সোনার বাংলাদেশ গড়ার প্রত‍্যয় জোগাবে। তিনি আরও বলেন, লিডিং ইউনিভার্সিটি উপাচার্যের নেতৃত্বে এবং দানবীর রাগীব আলীর সঠিক দিকনির্দেশনায় সামনে এগিয়ে যাচ্ছে এবং সিলেটসহ দেশের উচ্চশিক্ষায় ভূমিকা রাখছে।

আমন্ত্রিত অতিথিদের ধন্যবাদ জানিয়ে ড. রাগীব আলী বলেন, প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি দেশীয় সংস্কৃতিকেও লালন করতে হবে। ভাদ্র মাস যে কতটুকু তাৎপর্যপূর্ণ তা আজকের এ অনুষ্ঠানে এসে বুঝতে পেরেছি। সেজন‍্য তিনি এ অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন‍্য উপাচার্য বনমালী ভৌমিকসহ সকলকে ধন্যবাদ জানান।

সুন্দর উপস্থাপনা এবং মনঃমুগ্ধকর পরিবেশনায় ভাদ্রের মাহাত্ম্যে এবং শরতের তাৎপর্যপূর্ণ অনুষ্ঠানটি খুবই উপভোগ‍্য ছিল উল্লেখ করে বনমালী ভৌমিক বলেন, অপূর্ব রূপ এবং অফুরান সম্ভার নিয়ে প্রতিবছরই ভাদ্র মাস শরতের আগমন নিয়ে প্রকৃতিতে রঙ ছড়ায়, মন উড়ে যায় শুভ্র মেঘের নীল আকাশে। শাপলা ফুলের শোভায় ঝাঁক বেঁধে পাখিরা উড়ে চলে নীড়ে। তিনি বলেন, অপরূপ বাংলার এ শুভ্রতা ও স্নিগ্ধতার মাসকে মহাসমারোহে আমন্ত্রণ এবং শরতের আগমনে ভাদ্রের মাহাত্ম্য বন্দনায় আজকের এ অনুষ্ঠান খুবই সফল হয়েছে। তিনি এ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
লিডিং ইউনিভার্সিটির ডেপুটি রেজিস্ট্রার মো. কাওসার হাওলাদার এবং ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ‍‍্যাপক মানফাত জাবিন হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার মেজর (অব) মো শাহ আলম, পিএসসি। ভাদ্র মাস ও শরতের তাৎপর্য তোলে ধরে বক্তব্য রাখেন আধুনিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ‍্যাপক ড. এম রকিব উদ্দিন, কলা ও আধুনিক ভাষা অনুষদের ডিন অধ‍্যাপক নাসির উদ্দিন আহমেদ, বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সচিব মেজর (অব) শায়েখুল হক চৌধুরী, আর্কিটেকচার বিভাগের অধ‍্যাপক সৈয়দা জেরিনা হোসেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও অনুষ্ঠানের অাহ্বায়ক ড. মোস্তাক আহমাদ দীন এবং প্রক্টর মো. রাশেদুল ইসলাম।

সাংস্কৃতিক পর্বে আরও গান, ছড়া ও কবিতা পরিবেশন করেন স্থাপত্য বিভাগের বিভাগীয় প্রধান স্থপতি রাজন দাশ, ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মিসেস রুমপা শারমিন, সিএসই বিভাগের প্রভাষক কাজী মো. জাহিদ হাসান, অতিথি শিল্পী মেহেজাবিন আহমেদ রুপন্তী, সুহৃদও স্বাগত, নাবিহা আহমেদ ও অঙ্কিতা দাশ নন্দিনী।
অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক, বিভিন্ন দপ্তর প্রধান ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

বঙ্গবন্ধু ছাত্র ফাউন্ডেশনের ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধন

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: মহান স্বাধীনতা...

হবিগঞ্জের দুই রাজাকারের রায় সোমবার

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের...